বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
ডিবির অভিযানে তিন চোর আটক, ১৮টি ইজিবাইক উদ্ধার
বিশেষ প্রতিনিধি
Published : Friday, 14 August, 2020 at 1:44 AM
ডিবির অভিযানে তিন চোর আটক, ১৮টি ইজিবাইক উদ্ধারযশোর জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের অভিযানে আন্তঃজেলা ইজিবাইক চোরচক্রের তিন সদস্যকে আটক করা হয়েছে। এসময় ১৮টি চোরাই ইজিবাইক, ৭০পিস চেতনানাশক ট্যাবলেট ও ৯টি মোবাইলফোন উদ্ধার করা হয়। পলাতক অন্যদের আটকে অভিযান চলমান রয়েছে।  বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজ দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আশরাফ হোসেন।
গত ১২ ও ১৩ আগস্ট আন্তঃজেলা অটোরিক্সা (ইজি বাইক) চোরচক্র ধরতে অভিযান চলে। আটক হয় বরগুনার তালতলি উপজেলার বাইজুরা গ্রামের মৃত আব্দুল ওহাব ফরাজির ছেলে আলম ফরাজি ওরফে মহারাজ (৪৪), যশোরের সীতারামপুরের মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে রবিউল ইসলাম (৪৮), কুষ্টিয়ার চৌড়হাস ফুলতলার মৃত কুতুব উদ্দিনের ছেলে মিজানুর রহমান ওরফে মেজর (৩৮)। এসময় উদ্ধার হয় ইজিবাইক ছিনতাইয়ের সময় অপরণ হওয়া দু’জন। এরা হচ্ছে নড়াইলের চাকই গ্রামের  মৃত নওশেদ গাজীর ছেলে রফিজ গাজী (৪০) ও গোপালগঞ্জের কাজলিয়ার সামাদ শেখের ছেলে ইমরান শেখ (২০)।
জেলা পুলিশ জানিয়েছে, অপহৃত রফিজ গাজী একজন ইজিবাইক চালক। তার সাথে ২৭ জুলাই শংকরপাশা চৌরাস্তা ঘাট থেকে অভয়নগরের দেয়াপাড়া ব্রিজ যাওয়ার পথে অজ্ঞাত ২জন আরোহীর পরিচয় হয়। তারা মাছের ব্যবসা করে মর্মে পরিচয় দেয় এবং মোবাইল নম্বর আদান প্রদান করে। পরের দিন ২৮ জুলাই সকাল ১০ টায় সময় ইজিবাইক চালক রফিজ গাজীকে অপরিচিত আরোহীদের মধ্যে একজন মোবাইল করে দেয়াপাড়া ব্রিজে যেতে বলে। সে তার গ্রীন রংয়ের ইজিবাইক নিয়ে বেলা ১২ টার সময় যায়। তখন অজ্ঞাত আরোহীদের ১ জন তার গাড়ীতে উঠে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বসুন্দিয়া রেলস্টেশন এলাকায় জংগলবাধালের একটি দু’তলা বিল্ডিংয়ের নিচতলায় তাদের ভাড়া বাসায় নিয়ে যায়। তাকে ভাত খেতে দিলে সে মাংস ও ডাল ভাত খায়। এর পর অচেতন হয়ে পড়ে। ২ আগস্ট যশোর জেনারেল হাসপাতালে জ্ঞান ফেরে এবং জানতে পারে তাকে ২৯ জুলাই বসুন্দিয়ার একটি বাসা থেকে পুলিশের সহায়তায় অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। অজ্ঞাত দুস্কৃতকারীরা তাকে অপহরণ করে নিয়ে খাদ্যের সাথে চেতনা নাশক ওষুধ খাইয়ে অজ্ঞান করে ইজিবাইক ও সাথে থাকা মোবাইল ফোন, নগদ ২৫শ টাকা নিয়ে যায়। এছাড়া তার পরিবারের কাছে মুক্তিপন দাবি করে। ১১ আগস্ট অভয়নগর থানায় একটি মামলা হয়। মামলাটি চাঞ্চল্যকর ও স্পর্শকাতর হওয়ায় এসপি জেলা গোয়েন্দা শাখার উপর তদন্ত ন্যাস্ত করেন। গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ সোমেন দাশের নেতৃত্বে ১২ আগস্ট গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোলাবাড়িয়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। ওই এলাকার ওয়াজেদ আলী মুন্সির একটি গোডাউন ঘর থেকে ইজিবাইক চোর চক্রের মূল হোতা আলম ফরাজি (৪৪) ও রবিউল ইসলামকে (৪৮) আটক করা হয়। ধৃত আসামিদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক একই দিন কুষ্টিয়ার চৌড়হাস ফুলতলা এলাকায় মিজানুর রহমান ওরফে মেজরের (৪০) অটো গ্যারেজে অভিযান পরিচালনা করে ভিকটিম রফিজ গাজীর গ্রীন রংয়ের ইজিবাইকসহ ৩ টি চোরাই ইজি বাইক জব্দ করা হয়।
এছাড়াও ওই অটো গ্যারেজ থেকে চোরাই সন্ধিগ্ধ ১৫ টি ইজি বাইক যশোর ডিবি টিমের সহায়তায় কুষ্টিয়া সদর থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আসামিরাজানিয়েছে তারা অভয়নগর থানার মামলার ঘটনা ছাড়াও ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর, সাতক্ষীরা জেলার পাটকেলঘাটা, মাগুরা জেলার শালিখা থানা এলাকায় একই পদ্ধতিতে ইজি বাইক চুরি ছিনতাই করে।
ব্রিফিংয়ের সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সালাউদ্দিন সিকদার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ডিএসবি তৌহিদুল ইসলাম,  জেলা গোয়েন্দা শাখা ওসি সৌমেন দাশ উপস্থিত ছিলেন।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft