শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
ডাবও পাহরা খেলা দেকাচ্চে !
Published : Saturday, 29 August, 2020 at 2:09 AM
যশোরের বাজারে ডাব যেন ডুমোরির ফুল হতি চইলেচে। ইরাম কান্ড এর আগে কোনদিন চোকি পড়িনি। বাজারে একন স্যায়না ডাব তলাশ কইরে পাওয়া যাচ্চে না। যে সব জাগায় ডাব বিক্কির হইতো বেশীর ভাগ দুকান একন বন্দ। আর যারাও এট্টা দুডো বেইচতেচে তারে ডাব কবো, না মুচি কবো সিডা ভাবদি যাইয়ে মাতায় নেটওয়ার ফেল মাইরে যাচ্চে। কাটলি এক ঢোক পানি হবে কিনা তার কোন গ্যারান্টি নেই অথচ সেই মাছুম ডাবের দাম চাচ্চে ৩৫ তে ৪০ টাকা। সেদিন সন্দেয় আমাগের ফয়সল চাচা ঢাকায় যাবে, চিনাজানা এক কুটুমির জন্যি হাউস কইরে কয়ডা ডাব নিয়ে যাবে বিলে আমারে কইলো। চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ডে তয়কার বেচাকিনা করে আমার এক ভাইপো শাবান তারে কলাম কয়ডা ডাব কিনে দিতি। সে কলে ধম্মতলায় ইউনুস ম্যা’ভাইয়ের কাচে গুটা বিশেক ডাব আচে নুরানী চিহারা। ঝনাত খচাত কুড়িডে নিলে দাম পড়বে ৩৫ টাকা কইরে। আমি ফয়সল চাচারে কলাম চলবে কিনা। হ্যা কতিই ফোনে ফোনে অডার দিয়ে দিলাম। আমাগের সুমন ভাইপো গিলো টাকা দিয়ে সেই ডাব আনতি। যকন ফিরে আইসলো তকন ডাবের সাইজ দেইকে থ’ মাইরে গিলাম। ইডা ডাব না কুকুর মারা ঢ্যালা আন্দাজ কত্তি কষ্ট হচ্চিল। বাইল্য বিয়ে যদি অপরাদ হয় তালি ইরাম মুচি কাইটে বিক্রির কেন অপরাদ হবে না সিডাই মাতার মদ্দি চক্কর দিচ্চিল। গুড়–লে ডাবের মদ্দি এক ছটাক পানি আছে কিনা সন্দেহ। ডাবের দামে ছুবলা কিনে আইনলো কিনা তা দেকতি গুটা কয়েক কাটা হইলো। পানির গেলেস লাইগলো না, সুই ফুটোনো সিরিঞ্জির এক সিরিঞ্জ হবে এটাট্ট ডাবের পানি। তাতে না আচে সাদ না আচে গন্দ। লবন গুলা খালিও বুজা যায় তাতে লবন লবন ভাব আচে, সেই ডাবের পানিতি তাও নেই। টাকা দিয়ে জিনুস কিইনে ইরাম হ্যারেজ কোনদিন খায় নি। পরে জানতি পাল্লাম ডাব একন দুস্প্রাপ্য। কি কারনে তার সটিক উত্তর কেউ কতি পারে না। কেউ কচ্চে আম্পান ঝড়ে গাছ ভাইঙ্গে গেচে, কেউ কচ্চে মুবালির টাওয়ারের কারনে মুচি পইড়ে যাইয়ে নারকেল গাচে ফল হচ্চে না, কেউ কচ্চে করোনা, ডেঙ্গু বা সাধারন জ্বর হলি ডাবের পানি খাওয়া উপকারী এই খবরে বাজারেত্তে ডাব ভুকসি মাইরেচে। মনে মনে কলাম ছালে ছুতোয় সব জিনুসির দাম বাড়ে, শুদু দিন দিন কমছে মানসির দাম। দুক্কির কতা কবো কারে আর শোনবেই বা খিডা!
ইতি
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft