শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
চুলকোনির ওষুদির নাম ইরাম ক্যান?
Published : Friday, 4 September, 2020 at 2:44 AM
আমার লিকা চিটি পইড়ে পিরায় নানান জন আমারে মুবাল করেন। তারা নানান বিষয় নিয়ে কতাবাত্তার উসান। সেদিন আমার এক ফক্কড় ভাইপো মুবাল কইরে কচ্চে, চাচা তুমিতো হরকোলি জিনুস নিয়ে চিটি লেকো। তুমি কি জানো দেশের পিরায় সব চুলকোনীর ওষুদ মাইয়েগের নামে। আমি কলাম কি সব আবাল তাবাল বগদিচিস। চুলকোনির সাতে মাইয়েগের সম্পক্ক কি? আর এ সব হক নাহক কতা কইয়ে তুই আবার সুমাজে চুলকোনী বাদায় দিসনে। ভাইপো কলে, আচ্চা কওদিনি রুপা, দিপা, রুপমা, রুপিন, ড্যাকরিন, ওনি, রাভিয়া, আফরিন, জেরিন, নওসিন এ সব কিসির নাম? আমি কলাম চাকরির ভাইবা বোডের মত হটাস কইরে উজোনভাটি কইচ্চেন কল্লি গ্যাজাগন্ডুস পাকায় ফেলি। এট্টু দম নিয়ে কলাম যা কচ্চিস তা শুইনে তো মাইয়েগের নামই মনে হচ্চে। ভাইপো কিটকিট কইরে হাইসে কলে, চাচা এ সব চুলকোনির ওষুদির নাম। বিশ্বেস যদি না হয় তেমাতায় যে কোন ওষুদির দুকানে যাইয়ে এট্টু মিলোয় নেও, বুজ পাইয়ে যাবানে।
ভাইপোর কতা শুইনে আকাটা মাইরে গিলাম। আসলেই সত্যি কিনা তা শুনার জন্যি গিরামের এক ওষুদির দুকানে গিলাম স্যাও কইলো এই গুলো চুলকোনির ওষুদ। এর মদ্দি কয়ডা আচে এলাজ্জীর ওসুদ। সিডাও এক ধরনের চুলকোনী। আর এর বাইরি আরো ওষুদ আচে যে গুলো চুলকোনির জন্যি দিয়া হয়। মশকরা কইরে কলিও ঘটনাডা শুইনে কারন খুজার চিস্টা কল্লাম। আগে জানতাম বেশীরভাগ ঝড়ের নাম হয় মাইয়েগের নামে। ওষুদির নামও মাইয়েগের নামে হোক ক্ষেতি নেই। কিন্তুক হ্যাতো কিচু থুইয়ে চুলকোনির ওষুদির নাম মাইয়েগের নামে কেন? এই নিয়ে দু এক জাগায় কতা উসাতিই যে সব কতা কলে তা হুবহু লিকলিই চুলকোনি ছড়ায় যাতি পারে বিলে ভুকসি মাল্লাম।
তেবে নানাজনে যে সব নানান কতা কলে যার কোন আগা মাতা খুইজে পালাম না। মানসির গা হাত পায় চুলকোনি হয় এ বিষয়ডা নিয়ে কোন সুরাহা কত্তি না পাইরে মনের মদ্দি চুলকোনি শুরু হইয়ে গ্যালো। তাই বিষয়ডা নিয়ে দু’কতা লিকার চিস্টা দিলাম। ইডারে দয়া কইরে কেউ চুলকোনি ভাববেন না। আমি মুক্কু সুক্কু মানুস, আমার হ্যাতো জানাবুজা নেই। যদি কারো কাচে এর সদুত্তর থাকে তালি দয়া কইরে এট্টু জানাবেন।
ইতি-
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft