শনিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
মণিরামপুরে ছাত্রদলের কমিটি গঠনের উদ্যোগ
বিবাহিত জুয়েলের বিষয়ে তদন্ত কমিটি
জাহাঙ্গীর আলম, মণিরামপুর (যশোর)
Published : Sunday, 27 September, 2020 at 12:04 AM

বিবাহিত জুয়েলের বিষয়ে তদন্ত কমিটিযশোরের মণিরামপুরে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের আহ্বায়ক প্রার্থী ইউনুছ আলী জুয়েলকে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠেছে। সংগঠনের গঠনতন্ত্রে বিবাহিত, অছাত্র ও বয়স্করা থাকতে পারবেন না উল্লেখ থাকলেও বিএনপির শীর্ষস্থানীয় এক নেতার আশির্বাদে বিবাহিত জুয়েল নেতৃত্বে আসার চেষ্টা চালাচ্ছেন। তার বিরুদ্ধে ইউনিয়ন কমিটির এক নেতা সংগঠনের খুলনা বিভাগীয় মনিটরিং কমিটির কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন।
সংগঠন সূত্রে জানাগেছে, দীর্ঘদিন ঝিমিয়ে থাকা সংগঠনকে চাঙা করতে যশোরের মণিরামপুর উপজেলা, পৌর ও কলেজ শাখা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। কমিটিতে আসার জন্যে বিএনপির শীর্ষস্থানীয় বিবদমান দু’ গ্রুপের দু’ নেতা শহীদ ইকবাল ও আবু মুছার আশির্বাদে অনেকে দেনদরবার শুরু করেছেন। এনিয়ে চলছে জোর গ্রুপিং-লবিং। এরই মধ্যে উপজেলা ছাত্র দলের কমিটিতে আহ্বায়ক পদপ্রার্থী ইউনুছ আলী জুয়েল বিবাহিত বলে অভিযোগ করেছেন চালুয়াহাটি ইউনিয়ন ছাত্রদলের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক। তিনি এই অভিযোগ দায়ের করেছেন ছাত্রদলের খুলনা বিভাগীয় মনিটরিং কমিটির কারণে।
অভিযোগে তিনি জানিয়েছেন, ছাত্রদলের নেতৃত্বে বিবাহিত কেউ আসতে পারবে না বলে গঠনতন্ত্রে উল্লেখ থাকলেও ইউনুছ আলী জুয়েল বিবাহিত। তিনি চালুয়াহাটি গ্রামের অহিদুজ্জামান বাবুলের মেয়েকে বিয়ে করেছিলেন। এই অভিযোগের তদন্ত করতে মনিটরিং কমিটি যশোর জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রাজিদুর রহমান সাগর, সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান বাপ্পি, যুগ্ম সম্পাদক সোহানুর রহমান শামিম ও সাংগঠনিক সম্পাদক শাহনেওয়াজ ইমরানকে দায়িত্ব দেয়ার পর শুক্রবার বিকেলে তারা মণিরামপুরে যান।
হরিহরনগর ইউনিয়নের ম্যারেজ রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ আব্দুস সামাদ জানান, ‘২০১৪ সালের ২৬ নভেম্বর তার কাছে ইউনুছ আলী জুয়েল ও শাহনাজ পারভিন বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করেন। তিন মাস পর ২০১৫ সালে ২৭ ফেব্রুয়ারি তা রেজিস্ট্রি হয়’।
চালুয়াহাটী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ সরদার এক প্রত্যয়নপত্রে উল্লেখ করেছেন, ‘ইউনুচ আলী জুয়েল তথ্য গোপন করে ভুল বুঝিয়ে চলতি বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি অবিবাহিত সনদপত্র গ্রহণ করেন। সনদপত্রটি পরে বাতিল করা হয়েছে’।
চেয়ারম্যান গত ২৯ আগস্ট দেওয়া প্রত্যয়নপত্রে আরও উল্লেখ করেছেন, ‘সত্যতা যাচাই-বাছাই করে নতুন করে সনদপত্র দেওয়া হল। ইউনুচ আলী জুয়েল ২০১২ সালে চালুয়াহাটী গ্রামের অহিদুজ্জামান বাবুলের কন্যাকে ইসলামি শরিয়া মোতাবেক বিবাহ করেছিলেন’।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তদন্ত কমিটির সদস্য জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক সোহানুর রহমান শামিম বলেন, তদন্তের বিষয়টি তিনি কেন্দ্রীয় মনিটরিং কমিটির কাছে অবহতি করবেন।
এবিষয়ে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ও খুলনা বিভাগীয় মনিটরিং কমিটির প্রধান মিজানুর রহমান সজিব মোবাইল ফোনে জানান, ‘জুয়েল নামে এক ছাত্র নেতার বিয়ে সংক্রান্ত একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। কোনো বিবাহিত, অছাত্র, সংগঠন বিরোধী কর্মকান্ডসহ রাষ্ট্রবিরোধী কাজের সাথে জড়িত কেউ ছাত্রদলের নেতৃত্বে আসতে পারবে না। কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে গঠনতন্ত্র মোতাবেক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft