বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
খড়কিতে ১৭ মামলার আসামি ডিকু অপ্রতিরোধ্য
কাগজ সংবাদ
Published : Friday, 16 October, 2020 at 10:29 PM
খড়কিতে ১৭ মামলার আসামি ডিকু অপ্রতিরোধ্যযশোর শহরের খড়কি এলাকার ১৭ মামলার আসামি আক্তারুজ্জামান ডিকু অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে। তার হুমকি-ধামকিতে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ। এসব ঘটনায় তারা কোতোয়ালি মডেল থানা, পুলিশ সুপারসহ অন্যান্য আইনশৃংঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নিকট লিখিত অভিযোগ করেও কোন সুরাহা পাচ্ছেন না।
গত ১১ অক্টোবর পুলিশ সুপার বরাবরে এলাকাবাসীর দেয়া লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, খড়কি এলাকার চিহিৃত সন্ত্রাসী ও বাহিনী প্রধান আক্তারুজ্জামান ডিকু। তার সাথে রয়েছে একই এলাকার জিসান, আল আমিন, শামীম ওরফে জল্য শামীম, শুভসহ ১০/১২ জন। তারা নিয়মিত এলাকায় সকাল-সন্ধ্যা অস্ত্র নিয়ে মহড়া দিচ্ছে। ডিকুর নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা এলাকায় চাঁদাবাজি, নিরীহ মানুষের জমি দখল ও মাদকের কারবার চালিয়ে যাচ্ছে। এ জাতীয় কর্মকান্ডে এলাকার লোকজন সব সময় ভীত সন্ত্রস্ত থাকে। কিন্তু তারপরও তাদের হাত থেকে এলাকাবাসী নিস্তার পাচ্ছে না। অহেতুক নানা কারণে এলাকার লোকজনকে সন্ত্রাসীরা হুমকি দিচ্ছে। অথচ পুলিশকে জানিয়েও মানুষ এ বিষয়ে কোন প্রতিকার পাচ্ছে না। বাহিনী প্রধান ডিকুর বিরুদ্ধে কোতোয়ালি থানায় ১৭টি মামলা রয়েছে। এসব কারণে বর্তমানে খড়কিতে সন্ত্রাসীরা অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে।   
অভিযোগে আরো বলা হয়েছে, সন্ত্রাসী ডিকু খড়কির জাহিদ হোসেন অনুর লিজ নেয়া জমি, বাড়ি ও পুকুর জোরপূর্বক দখল করে নিয়েছে। শুধু তাই নয় এ বাড়ির ভাড়াটিয়াদের তারা হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দিয়েছে। একইসাথে অনুর পরিবারের সদস্যদের বাড়ির বাইরে বের হলে বা এ বিষয়ে কাউকে জানালে খুন জখমের হুমকি দেয়া হয়েছে। গত ৮ অক্টোবর বেলা ১১টার দিকে তার স্ত্রী ছেলে মেয়ে নিয়ে স্কুলে যাবার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হলে ডিকু তাদের গতিরোধ করে খুন জখমের হুমকি ও গালিগালাজ দেয়। এসময় স্থানীয়রা তাদের সাহায্যে এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা সটকে পড়ে। এসব ঘটনায় স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে অভিযোগ করেও কোন সুরাহা না পেয়ে পুলিশ সুপার বরাবরে এ অভিযোগ করা হয়েছে।
এর আগে ডিকুর সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে খড়কির আরো তিন ব্যক্তি কোতোয়ালি মডেল থানাসহ আইনশৃংঙ্খলা বাহিনীর দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু তারা কোন প্রতিকার পাননি। বিষয়টি পুলিশ এসে লোক দেখানো তদন্ত করে ফিরে গেছে। তারা কার্যকর কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। এমনকি অভিযোগগুলো মামলা হিসেবেও রেকর্ড হয়নি। এ কারণে উপায়ন্ত না পেয়ে ভুক্তভোগীরা পুলিশ সুপারের দারস্থ হয়েছেন। আবেদনে তারা সন্ত্রাসী ডিকুর চাঁদাবাজি, মাদকসহ ১৭ মামলার তালিকা যুক্ত করেছেন। তার অত্যাচার ও নির্যাতন থেকে মুক্তি পেতে এলাকাবাসী পুলিশি কার্যকরি পদক্ষেপ কামনা করেছেন।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft