শিরোনাম: অভিযানে আটককৃতরা অনুপ্রবেশকারী : এইচ টি ইমাম       জীবনহানীর শঙ্কা মানুষের নিত্যসঙ্গী হয়ে দাঁড়িয়েছে : ফখরুল       যাদের ধরা হচ্ছে কেউ চুনোপুঁটি নয় : তথ্যমন্ত্রী        জাতিসংঘে উপসাগরীয় নিরাপত্তা পরিকল্পনা পেশ করবে ইরান       সমাজে সুশাসনের ঘাটতি রয়েছে : তাজুল ইসলাম       ‘প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চারের ইঙ্গিত দিলেও নেতারা আঁচ করতে পারেননি’       সৌদিতে শূলে চড়িয়ে ও মাথায় কেটে ১৩৪ জনকে মৃত্যুদণ্ড       চাঁদাবাজির অভিযোগে মহিলা আ.লীগ নেত্রী বহিষ্কার       যুক্তরাষ্ট্রে বারে এলোপাতারি গুলি, নিহত ২       নতুন আলোচনায় ভিক্ষুক থেকে গায়িকা রানু      
ট্রাম্পের অভিবাসন নীতিকে সুপ্রিম কোর্টের সমর্থন
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Thursday, 12 September, 2019 at 9:13 PM
ট্রাম্পের অভিবাসন নীতিকে সুপ্রিম কোর্টের সমর্থনমার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিতর্কিত অভিবাসন নীতিকে সমর্থন করে রায় দিয়েছে স্থানীয় সুপ্রিম কোর্ট। এই নিয়ম অনুযায়ী তৃতীয় কোনো দেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার জন্য অবশ্যই অভিবাসীদের আগে ওই দেশে আশ্রয় চাইতে হবে। ফলে
এই অভিবাসন নীতি নিয়ে আইনি লড়াই এখনো চলছে। তবে সুপ্রিম কোর্টের এই রুল জারির মাধ্যমে এটা পরিষ্কার যে, এটি এখন গোটা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য প্রযোজ্য হবে।
এক টুইটে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, সীমান্তে আশ্রয় প্রার্থনার বিষয়ে মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের এটি একটি বড় জয়। অভিবাসন প্রত্যাসীদের সংখ্যা কমিয়ে আনা প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্পের শাসনামলের একটা বড় লক্ষ্য। সেই সাথে এটি ২০২০ সালে পুনঃনির্বাচনের জন্যও তার প্রতিশ্রুতির একটা বড় অংশ পূরণ করবে।
চলতি বছরের জুলাই মাসে এই পরিকল্পনাটি ঘোষণা করা হলে প্রায় সাথে সাথেই সেটি কার্যকর হওয়া থেকে ঠেকিয়ে দেয়া হয়। ফলে সুপ্রিম কোর্টের এই রায়কে ট্রাম্প প্রশাসনের বিরাট বিজয় হিসেবেই দেখছে মার্কিন গণমাধ্যমগুলো।
নতুন এই রুল কার্যকর হলে হন্ডুরাস, নিকারাগুয়া এবং এল সালভাদরের অভিবাসন প্রত্যাশীদের আশ্রয় চাইতে হলে যুক্তরাষ্ট্রের আগে প্রতিবেশী কোন দেশ বা মেক্সিকোতে আশ্রয় চাইতে হবে। তবে সুপ্রিম কোর্টের এই রুল আমেরিকা অঞ্চলের বাইরের অভিবাসন প্রত্যাশীদের উপরও প্রভাব ফেলবে।
এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের সিভিল লিবার্টিজ ইউনিয়ন এই রুলের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করেছে। তারা বলছে, আশ্রয় পাওয়ার যোগ্যদের সংখ্যা মারাত্মকভাবে কমিয়ে দেবে এই নিষেধাজ্ঞা।
এক পিটিশনে সংস্থাটি বলেছে, এই নিষেধাজ্ঞার কারণে, দক্ষিণ সীমান্ত এবং প্রবেশ বন্দরে থাকা আশ্রয় প্রার্থীরা এমনকি শুধু মেক্সিকান ছাড়া আর কেউই আশ্রয় চাওয়ার যোগ্য বলে বিবেচিত হবে না।
তবে, তৃতীয় কোন দেশে আশ্রয় চাওয়ার পর তা নাকচ হলে কিংবা মানব পাচারের শিকার ব্যক্তিরা এখনো আশ্রয় চেয়ে আবেদন করতে পারবে।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft