শিরোনাম: একটি মহল ক্ষমতায় আসতে না পেরে গুজব ছড়াচ্ছে : পরিকল্পনামন্ত্রী       ধান কেনার ক্ষেত্রে দরিদ্র কৃষকদের বেছে নেয়া হবে : কৃষিমন্ত্রী       মানবিক মূল্যবোধই ইসলামের মূল ভিত্তি : পুতিন       ‘শিগগির ১৮ হাজার শিক্ষক নিয়োগ’       শিবসেনার নেতৃত্ব মানতে রাজি কংগ্রেস-এনসিপি        ৪৫ টাকায় টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি জোরদার       সৌদি আরবে সেনা মোতায়েন ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি       সরকারের পতন ছাড়া দেশে শান্তি আসবে না : সালাম       বিশ্বের নতুন দেশ হতে যাচ্ছে বুগেনভিলে?       কংগ্রেসের বিধায়ককে পুলিশের মারধর      
নওগাঁয় ধানের মাঠে খাদ্যমন্ত্রী
নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি :
Published : Saturday, 9 November, 2019 at 7:40 PM
নওগাঁয় ধানের মাঠে খাদ্যমন্ত্রীনওগাঁর মাঠে মাঠে নতুন ফসলের ঘ্রান ছড়াচ্ছে আমনের পাকা ধান। চলতি মৌসুমের ধান ঘরে তুলতে কাটা মাড়াইয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছেন জেলার চাষিরা। হেমন্তের মৃদু বাতাসে সোনালী শীষে দোল খাচ্ছে চাষির স্বপ্ন। ক’দিন পরেই নতুন ধান-চালে ভরে উঠবে কৃষকের গোলা।
মাঠের ফসল দেখতে শনিবার (৯ নভেম্বর) নওগাঁর নিয়ামতপুরে যান খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি। ধানখেতের মধ্যে কিছুক্ষণ হেঁটে ঘুরে দেখেন পাকা ধানের ফলন। ফসল দেখে পুলকিত হোন মন্ত্রী। তিনি মাঠে গিয়ে চাষিদের সাথে কথা বলেন। চলতি আমন ফসল ছাড়াও অন্যান্য চাষাবাদ ও গ্রামীণ অর্থনীতির খোঁজখবর নেন।
এসময় তার সাথে ছিলেন নওগাঁ জেলা খাদ্য নিয়স্ত্রক জিএম ফারুক হোসেন পাটওয়ারী, স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তা ও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।
ফসল দেখতে গিয়ে সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি বলেন, সপ্তাহ খানেকের মধ্যেই পুরোদমে শুরু হবে আমন ধানের কাটা মাড়াই। এরমধ্যে যদি প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করতে না হয়, তাহলে বাম্পার ফলন ঘরে উঠবে। বিঘা প্রতি ২২ থেকে ২৫ মন পর্যন্ত ফলন হবে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
এসময় চাষিদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, কৃষকদের উৎপাদিত ফসলে লাভবান করতে অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে প্রথমবারের মত সরকারি ভাবে ৬ লাখ মেট্টিক টন ধান কেনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ২৬ টাকা কেজি দরে ২০ নভেম্বর থেকে সারাদেশে একযোগে সরাসরি প্রকৃত চাষিদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহ শুরু হবে। চলবে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এ জন্য স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় কৃষি বিভাগ থেকে চাষি তালিকা সংগ্রহের কাজ চলছে।
সারাদেশে এবার আমনের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে প্রায় দেড় কোটি মেট্টিক টন। বাম্পার ফলন হলে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সেদিক খেয়াল রেখেই সরকারী লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। ধানের পাশাপাশি সরকারী ভাবে সাড়ে ৩লাখ মেট্টিক টন সিদ্ধ চাল ও ৫০লাখ মেট্টিক টন আতপ চাল সংগ্রহ করা হবে।
সরকারি গুদামে ধান-চাল সরবরাহে কোন ভাবেই মধ্যস্বত্ত্বভোগী, দালাল চক্র কিংবা দলীয় নেতা স্থান পাবে না এমন প্রতিশ্রুতি দেন মন্ত্রী। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই সরাসরি খাদ্যগুদামে ধান সরবরাহ করতে কৃষকদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
খাদ্যমন্ত্রীকে কাছে পেয়ে উৎসাহ প্রকাশ করে কৃষকরা জানান, এবার ধানের ফলন ভালো হয়েছে। সরকারিভাবে বেঁধে দেওয়া দরে তারা খুশি। তবে এই দর খোলা বাজরেও নিশ্চিত করার দাবি তুলে ধরেন। এ জন্য নজরদারী বাড়ানোর কথা বলেন চাষিরা।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft