শিরোনাম: ‘রোহিঙ্গা গণহত্যায় আইসিজের রায় যথার্থ’       ইশরাক ইতোমধ্যে জনগণের রায়ে নির্বাচিত : মোশাররফ       নির্বাচন সুষ্ঠু হলে অতীতের দুর্নাম ঘুচবে : দুদু       রোহিঙ্গা সুরক্ষায় যে চার আদেশ দিলেন আন্তর্জাতিক আদালত       ক্লিকেই জানা যাবে লোকসংখ্যা : পরিকল্পনামন্ত্রী       ইরানি ব্যবসায়ীদের ভিসা দেবে না যুক্তরাষ্ট্র       জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে প্রচারণা নয় : আতিক       চীনের রহস্যময় ভাইরাসে ১৭ জনের মৃত্যু       শিবির সন্দেহে ঢাবিতে নির্যাতন : প্রতিবাদে বিক্ষোভ       হরমুজ প্রণালীতে টাস্কফোর্স পাঠাচ্ছে দ. কোরিয়া      
‘রাতারাতি সব বদলে দেওয়া সম্ভব নয়’
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 11 December, 2019 at 7:38 PM
‘রাতারাতি সব বদলে দেওয়া সম্ভব নয়’স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, ‘ঢাকাকে দৃষ্টিনন্দন শহর গড়ে তুলতে নানা প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। তবে রাতারাতি সব বদলে ফেলা সম্ভব নয়। এজন্য কিছুটা সময় লাগবে।’
বুধবার রাজধানীর আফতাবনগর সংলগ্ন খিলগাঁও থানাধীন দাশেরকান্দি এলাকায় পয়ঃশোধনাগার প্রকল্প পরিদর্শনকালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। এসময় প্রকল্পের অগ্রগতি সম্পর্কে বাংলাদেশি ও চায়নার প্রকৌশলীরা মন্ত্রীকে অবহিত করেন।
বায়ু দূষণ কমাতে মাস্টার প্ল্যান গ্রহণ করা হবে জানিয়ে তাজুল ইসলাম বলেন, ‘বিভিন্ন জায়গায় রাস্তা খোঁড়াখুড়ির কারণে বায়ু দূষণ হচ্ছে। প্রায় সারা বছর ধরে এসব কাজ চলতে থাকে। এমন যেন আর না হয় সে লক্ষ্যে আমরা মাস্টার প্ল্যান গ্রহণ করছি ‘
দাশেরকান্দি পয়ঃশোধনগার প্রকল্পের মাধ্যেমে সৃষ্ট পয়ঃবর্জ্য পরিশোধন করে নিষ্কাশিত করার মাধ্যমে পানি ও পরিবেশ দূষণ রোধ করা সম্ভব হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন মন্ত্রী।
প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, ঢাকার পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থাকে একই পাইপলাইনে নিয়ে আসতে চীন সরকারের সহযোগিতায় ঢাকা ওয়াসার ২০২৫ সালের মধ্যে বাস্তবায়নাধীন মহাপ্রকল্পের অংশ হিসেবে দাশেরকান্দির এ পয়ঃশোধনাগার প্রকল্প নির্মিত হচ্ছে। তিন হাজার ৩৭৭ কোটি ১৭ লাখ টাকা ব্যয়ে এ প্রকল্প ২০২০ সালের মধ্যে বাস্তবায়ন করা হবে। ২৪ হেক্টর জমির ওপর বাস্তবায়নাধীন এ প্রকল্পে দৈনিক ৫০ কোটি লিটার পয়ঃবর্জ্য পরিশোধনের মাধ্যমে ৫০ লাখ নগরবাসীকে সেবা দেওয়া সম্ভব হবে।
ওয়াসার মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী ঢাকা শহরের অভ্যন্তরে পাগলা, দাশেরকান্দি, রায়েরবাজার, উত্তরা ও মিরপুর এলাকায় মোট পাঁচটি পয়ঃশোধনাগার নির্মাণ হবে।
দাশেরকান্দি পয়ঃশোধনাগারের মাধ্যমে গুলশান, বনানী, বারিধারা ডিওএইচএস, বসুন্ধরা, বাড্ডা, ভাটারা, বনশ্রী, কুড়িল, সংসদ ভবন এলাকা, শুক্রাবাদ, ফার্মগেট, তেজগাঁও, আফতাব নগর, নিকেতন, সাঁতারকুল, হাতিরঝিল ও এর আশপাশের এলাকার সৃষ্ট পয়ঃবর্জ্য পরিশোধন করে বালু নদীতে নিষ্কাশিত হওয়ার মাধ্যেমে পানি ও পরিবেশ দূষণ রোধ করা সম্ভব হবে।
স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে ঢাকা ওয়াসা। নির্মাণ প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ‘হাইড্রো-চায়না’।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft