শিরোনাম: নারী-শিশু নির্যাতনকারীদের চরম দণ্ড চায় ১৪ দল       ১৭ মার্চ থেকে ডাকঘর সঞ্চয়ে সুদ আগের মতো : অর্থমন্ত্রী       ঢাকার মেয়রদের শপথ গ্রহণের তারিখ ঘোষণা       মাদক মামলায় ক্যাসিনো খালেদ বললেন, ‘আমি নির্দোষ’       ‘ভারতে সহিংসতা বন্ধে বিশ্ব সম্প্রদায়কে এখনই ব্যবস্থা নিতে হবে’       মুজিববর্ষে মোদি ঢাকায় এলে বঙ্গবন্ধুকে অসম্মান করা হবে : ভিপি নুর       জ্বলছে দিল্লি : শান্তির ডাক মমতার       পাপিয়ার অবৈধ সম্পদের বিষয়ে অনুসন্ধান করবে দুদক       ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র কার্যক্রমে রাশিয়ার সমর্থন, নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের       স্থলবন্দরে ১৪টি দুর্নীতির উৎস চিহ্নিত      
ঝাঁপায় অবৈধ স্থাপনা নিজ উদ্যোগে ভাঙছেন দখলদার
রাজগঞ্জ প্রতিনিধি :
Published : Saturday, 25 January, 2020 at 6:50 AM
ঝাঁপায় অবৈধ স্থাপনা নিজ উদ্যোগে ভাঙছেন দখলদারমণিরামপুর উপজেলার ঝাঁপা ইউনিয়নের ঝাঁপা আলীম মাদ্রাসা মোড়ে সরকারি জমিতে গড়ে তোলা অবৈধ্য স্থাপনা নিজ উদ্যোগেই উচ্ছেদ করছেন দখলদার।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম ঝাঁপার ১৭৪ নম্বর মৌজার, ৪৬৮১ দাগের  ০.০১৮৯ একর সরকারি জমির ওপর অবৈধভাবে একতলা ভবন নির্মাণ করেন। এই জমিতে নির্মিত ভবনের কয়েকটি কক্ষ দোকান ও অফিস হিসেবে ব্যবহার করে আসছিলেন তিনি। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী আতিকুর রহমান এই অবৈধ এই ভবন উচ্ছেদ করার রায় প্রদান করেন।
এর আগে সাবেক জেলা প্রশাসক ড. মো. হুমায়ুন কবীর এক নোটিশে ওই জমি থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের জন্যে দখলদার সিরাজুল ইসলামকে নির্দেশ দিয়েছিলেন। ওই নোটিশে সাবেক জেলা প্রশাসক উল্লেখ করেন ‘যেহেতু আপনি সরকারি জমি অবৈধভাবে ভোগ দখল করছেন, সেকারণে আপনাকে উক্ত দখল ছেড়ে দেয়ার জন্য ১৯৭০ সালের সরকারি এবং স্থানীয় কর্তৃপক্ষীয় ভূমি ও ইমারত দখল পুনরুদ্ধার আইনের ৫(১) ধারা মোতাবেক নোটিশ প্রদান করা হলো। নোটিশ প্রাপ্তির ৭ দিনের মধ্যে অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নিতে ব্যর্থ হলে আপনাকে আইনানুগভাবে উচ্ছেদ করা হবে’।
দু’টি নোটিশ হাতে পেয়ে সিরাজুল ইসলাম নিজ উদ্যোগে ভবনটি ভাঙার উদ্যোগ নিয়েছেন। গত কয়েক দিন ধরে চলছে এই ভবন ভাঙার কাজ। সরকারি জমি থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করায় এলাকার মানুষ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।
এই ভবন ভাঙার বিষয়ে সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘আমি সরকারি জমিতে ভবন নির্মাণ করেছি এটা সত্য কথা। এই জমির সাথে আমার নিজের জমি একই দাগে রয়েছে তাই ভবন তৈরি করেছিলাম। প্রথমে আমি জানতাম না এটি সরকারি জমি। সরকারি নোটিশের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে নিজ উদ্যোগে ভবনটি ভেঙে নিচ্ছি’।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft