শিরোনাম: ব্যবসায়ীদের জন্য ঋণ প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী : ফখরুল       করোনার জন্য সরকারি ছুটি ফের বাড়লো       ইরানে আরও দেড় শতাধিক মৃত্যু, মোট ৩৬০৩       খাজুরায় সহস্রাধিক পরিবারের মাঝে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি নেতা শাওনের খাদ্য বিতরণ       করোনাভাইরাস: ঐক্যের বিকল্প নেই       ঝিনাইদহ স্বপ্ন সিড়ি সমাজ কল্যান সংস্থার উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ       লকডাউনে মাত্রাতিরিক্ত মোবাইল ব্যবহারে যেসব ক্ষতি       করোনায় ভারতে মৃত্যু বেড়ে ৭৭, আক্রান্ত ৩৩৭৪       বিএনপি মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে না, অভিযোগ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর       লকডাউন বাড়লে বাড়তে পারে খাদ্যসঙ্কট      
আকন্দের জাদুকরী গুণাগুণ
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 28 February, 2020 at 6:56 AM
আকন্দের জাদুকরী গুণাগুণসাদা আর হালকা বেগুনী রঙের আভা মেশানো ফুল আকন্দ। রাস্তার পাশে বেড়ে ওঠে নিজে নিজেই। অযত্ন আর অবহেলার মাঝেও টিকে থাকে গাছ। এটি কিন্তু মূলত একপ্রকারের ঔষধি গাছ। নানারকম স্বাস্থ্য সমস্যায় এর ছাল, পাতা, ফুল ব্যবহৃত হয়।
গ্রামাঞ্চলে হাঁপানি ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় আকন্দ পাতা ব্যবহার করা হয়। আয়ুর্বেদ চিকিৎসা মতে, ১৪টি আকন্দ ফুলের মাঝের চৌকো অংশ নিতে হবে। এর সঙ্গে ২১টি গোলমরিচ দিয়ে একসঙ্গে বেটে ২১টি বড়ি বানাতে হবে। প্রতিদিন সকালে পানি দিয়ে একটি করে বড়ি খেলে হাঁপানি রোগের উপশম হয়।
এই ওষুধ খাওয়ার সময় পথ্য হিসেবে শুধু দুধ ভাত খেতে হয়। তাহলে শ্বাসকষ্ট দূর হয়।
আকন্দ গাছের মূলের ছাল শুকিয়ে চূর্ণ করে, আকন্দের আঠা দিয়ে মুড়িয়ে বিড়ির মতো বানিয়ে, তার ধোয়া গ্রহণ করলে হাঁপানি সমস্যা লাঘব হয়।
ফোঁড়া ফাটানোর কাজে আকন্দ পাতা ওষুধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়। আকন্দ পাতা দিয়ে ফোঁড়া চেপে বেঁধে রাখলে ফোঁড়া ফেটে যায়।
বিছা কামড়ালে যে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি হয় তা কমাতে আকন্দ পাতা ব্যবহার করা হয়।
দেহের কোনো স্থানে দূষিত ক্ষত হলে সেই স্থানটি আকন্দ পাতা সেদ্ধ পানি দিয়ে ধুয়ে দিন। এতে সেখানে আর পুঁজ হয় না।
বুকে সর্দি জমে গেলে পুরনো ঘি বুকে ডলতে হয়। ঘি মাখার পর বুকে আকন্দ পাতা গরম করে সেঁক দিলে দ্রুত সর্দি ভালো হয়।
খোস পাঁচড়া কিংবা একজিমা সমস্যায় আকন্দের আঠার সঙ্গে চার গুণ সরিষার তেল মিশিয়ে গরম করুন। এই গরম তেলের সঙ্গে কাঁচা হলুদের রস মিশিয়ে একজিমা আক্রান্ত স্থানে ম্যাসেজ করুন। উপকার পাবেন।
হাত বা পা মচকে গেলে আকন্দ পাতা দিয়ে গরম সেঁক দিন। ব্যথা উপশম হবে দ্রুত।
অবহেলায় বেড়ে ওঠা গাছটির এত উপকারিতা কি জানা ছিল আপনার?





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft