শিরোনাম: ঝিনাইদহ স্বপ্ন সিড়ি সমাজ কল্যান সংস্থার উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ       লকডাউনে মাত্রাতিরিক্ত মোবাইল ব্যবহারে যেসব ক্ষতি       করোনায় ভারতে মৃত্যু বেড়ে ৭৭, আক্রান্ত ৩৩৭৪       বিএনপি মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে না, অভিযোগ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর       লকডাউন বাড়লে বাড়তে পারে খাদ্যসঙ্কট       মোদির কাছে করোনার ‘ওষুধ’ চেয়েছেন ট্রাম্প       নারায়ণগঞ্জে লকডাউন বা কারফিউ চাচ্ছেন আইভী       প্রবাসীদের ফেরত আনতে কয়েক দেশের চিঠি       প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা অত্যন্ত সময়োপযোগী : জিএম কাদের       সবাই আছেন প্রধানমন্ত্রীর প্যাকেজে : তথ্যমন্ত্রী      
১১ বছরে মিডিয়ার অভূতপূর্ব উন্নতি হয়েছে
ঢাকা অফিস :
Published : Thursday, 27 February, 2020 at 7:58 PM
১১ বছরে মিডিয়ার অভূতপূর্ব উন্নতি হয়েছেপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সাংবাদিকবান্ধব উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্য মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘গত ১১ বছরে মিডিয়ার অভূতপূর্ব উন্নতি হয়েছে।’
বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের মিলনায়তনে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) তিনি এ কথা বলেন।
হাছান মাহমুদ বলেন, “যেখানে ১১ বছর আগে সাড়ে চারশ দৈনিক পত্রিকা ছিল, এখন সেটি ১২৫০ এ উন্নীত হয়েছে। ১১ বছর আগে যেখানে টেলিভিশন চ্যানেল ১০টি ছিল, এখন ৩৪টিতে উন্নীত হয়েছে। ১১ বছর আগে যেখানে হাতেগোনা কয়েকটি অনলাইন পত্রিকা ছিল, এখন রেজিস্ট্রেশনের জন্য সাড়ে তিন হাজার অনলাইন পত্রিকা আবেদন করেছে। আইপিটিভির জন্য প্রায় ৫০০ আবেদন জমা পড়ে আছে।
‘গত ১১ বছরে মিডিয়ার এক্সপোটেন্সিয়াল গ্রোথ হয়েছে। যেটি অভূতপূর্ব। অনেক দেশে পত্রিকার সংখ্যা কমেছে গত ১০-১১ বছরে। ইউরোপের অনেক দেশে পত্রিকার সংখ্যা কমেছে। সরকারের গণমাধ্যমে বান্ধব নীতির কারণে এটি সম্ভব হয়েছে। এর সঙ্গে নানা চ্যালেঞ্জ যুক্ত হয়েছে যেগুলো আপনারা মোকাবিলা করছেন।”
তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সংবাদপত্রে যারা বিনিয়োগ করেন, সেখানে সাংবাদিকরা যদি কাজ না করেন, তাহলে সে সংবাদপত্র চলবে না। সুতরাং সংবাদপত্র টিকিয়ে রাখে সাংবাদিকরা। তাদেরকে বঞ্চিত করে কোনো সংবাদপত্রের সমৃদ্ধি আসতে পারে না। সেজন্য আমি মনে করি নবম ওয়েজ বোর্ড যেটা ঘোষণা করা হয়েছে সেটি অবশ্যই পালন করা উচিত।’
এসময় তথ্যমন্ত্রী জানান, গণমাধ্যমকর্মী আইন সহসাই মন্ত্রী পরিষদে উঠবে। বর্তমানে সেটি আইন মন্ত্রণালয়ে আছে। সেখানে থেকে তথ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠালে সেটি মন্ত্রী পরিষদে পাঠানো হবে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি মোল্লা জালাল, মহাসচিব শাবান মাহমুদ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাফর সূর্য ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী প্রমুখ।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft