শিরোনাম: পুলিশে নতুন আক্রান্ত ১৫২, মোট সুস্থ ১১ শতাধিক       করোনার মাঝে কাশি হলে যা করবেন       বন্ধ হবে স্যাটেলাইট, মোবাইল!       একদিনেই মৃত্যু ২১, আক্রান্ত ১১৬৬ জন       যেসব উপসর্গে চিকিৎসকরাও অবাক       বিএনপির নেতারা পুরনো বৃত্তেই ঘুরপাক খাচ্ছেন : কাদের       দিনাজপুরে ঘরে ধান তুলতে ব্যস্ত কৃষক       নারায়ণগঞ্জে আরও ১৪৫ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত       ভারতে ছুটে আসছে পঙ্গপালের আরেকটি বাহিনী!       ভারতে ২৪ ঘণ্টায় সাড়ে ৬০০০সহ মোট আক্রান্ত প্রায় দেড় লাখ      
পশ্চিমবঙ্গে করোনা আক্রান্ত ৪, বাস বন্ধ
কাগজ ডেস্ক :
Published : Sunday, 22 March, 2020 at 7:54 PM
পশ্চিমবঙ্গে করোনা আক্রান্ত ৪, বাস বন্ধকরোনা ভাইরাসের প্রকোপ ধীরে ধীরে বাড়ছে ভারতের মাটিতে। দেশজুড়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৩৩ জনে। মৃত ৫।
ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন চার জন। ফলে আতংকের দিনরাত্রি শুরু হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে। এই অবস্থায় ভারতের ভিন রাজ্য থেকে আসা সমস্ত বাস পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হলো পশ্চিমবঙ্গে। শনিবার মধ্যরাত থেকে আর ভিন রাজ্যের বাস ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না বাংলায়।
পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পরিবহণ দফতরের সচিব বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়ে দিয়েছেন, রাজ্যে নভেল ভাইরাস নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতি বিবেচনা করে ২১ মার্চ (শনিবার) মধ্যরাত থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত ভিন রাজ্যে বাস পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হল।
একইভাবে ভিন রাজ্যের বাসগুলিকে ঢুকতে দেওয়া হবে না রাজ্যে। সংশ্লিষ্ট সবপক্ষকে এব্যাপারে উপযুক্ত পদক্ষেপ করতে অনুরোধ করা হচ্ছে।
পাশাপাশি, রেলকে চিঠি লিখে আপাতত দূরপাল্লার ট্রেন পরিষেবা বন্ধ রাখার আর্জি করল পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য প্রশাসনিক ভবন নবান্ন।
চিঠিতে বলা হয়েছে, নভেল করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের জেরে ২২ মার্চ মধ্যরাত থেকে পশ্চিমবঙ্গের বাইরে থেকে আসা ট্রেনগুলি বন্ধ করা হোক এবং তা কার্যকর থাকুক ৩১ মার্চ পর্যন্ত। গণজমায়েত নিয়ন্ত্রণে ইতিমধ্যেই ব্যবস্থা নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার।
এদিকে আজ রোববার ভারতজুড়ে চলছে জনতা কারফিউ। ভারতে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ রুখতে বৃহস্পতিবার এই কারফিউর কথা ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে তিনি বলেন, ‘আগামী রোববার (২২ মার্চ) সকাল ৭ থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সকল দেশবাসীকে জনতা কারফিউ পালনের অনুরোধ করছি। ওইদিন কোনও নাগরিক ঘরের বাইরে বেরোবেন না। রাস্তায় যাবেন না। পাড়াতেও কারও সঙ্গে মিশবেন না। নিজের ঘরেই থাকুন। জরুরি ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্তদের তো বাইরে বেরোতে হবে। তবে সাধারণ নাগরিকরা দেশহিতে আত্মসংযমের কর্তব্য পালন করুন।’
জনতা কারফিউতে নামমাত্র লোকাল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় রেল।
শনিবার রাত ১২টা থেকে বন্ধ হয়ে গিয়েছে ভারতের সমস্ত লোকাল, দূরপাল্লা ও প্যাসেঞ্জার ট্রেন। রোববার রাত ১০টা পর্যন্ত বন্ধ থাকবে সমস্ত লোকাল, প্যাসেঞ্জার ও দূরপাল্লার ট্রেন।
শনিবার ভারতের রেল কর্তৃপক্ষ স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, রোববার কোনও ট্রেনই চলবে না। জরুরি পরিষেবা স্বাভাবিক রাখতে নামমাত্র লোকাল ট্রেন চলবে। তবে যাত্রাপথে থাকা ট্রেনগুলি সচল থাকবে। যাত্রীদের একান্ত প্রয়োজন না হলে বাইরে না বেরোনোর আবেদন করেছেন রেল কর্তৃপক্ষ।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft