শিরোনাম: যমেক হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের কন্যা এবং সিভিল সার্জনের পূত্রের জিপিএ-৫ অর্জন        নালিশ ছাড়াও শালিস হচ্চে, ফ্যারাডা কি !       বাঘারপাড়ায় কলেজের নাইটগার্ড ও তার পিতাকে হাতুড়িপেটা       যশোর পুলিশের ব্যতিক্রমী ও নান্দনিক উদ্যোগ       পাইকগাছায় সাংবাদিক করোনায় আক্রান্ত       ফুলতলায় ১০ হাজার বস্তা সিমেন্টসহ কার্গো ডুবি       বৃহস্পতিবার গ্লোবাল ভ্যাকসিন সামিটে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী       গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মানার অনুরোধ ওবায়দুল কাদেরের       আবরার হত্যা মামলা : জামিন মেলেনি জিওনের       সুস্থ আছেন মোহাম্মদ নাসিম      
আইইডিসিআর এর রিপোর্ট
যশোরে কেউ করোনায় আক্রান্ত নন
ফয়সল ইসলাম :
Published : Saturday, 28 March, 2020 at 12:48 AM, Update: 28.03.2020 2:50:57 AM
যশোরে কেউ করোনায় আক্রান্ত নন

যশোরে কেউ করোনায় আক্রান্ত ননকরোনাভাইরাস সংক্রমণ সতর্কতায় স্বাস্থ্য বিভাগ ও প্রশাসনের কঠোর পদক্ষেপে যশোরে হোম কোয়ারেন্টাইনে সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। এ সংখ্যা ছাড়িয়েছে দুসহস্রাধিক। তবে আশার কথা হচ্ছে যশোরে কোয়ারেন্টাইনে থাকা তিনজনের নমুনা পরীক্ষা করে করোনাভাইরাস পাওয়া যায়নি বলে নিশ্চিত করেছে আইইডিসিআর কর্তৃপক্ষ। গ্রামের কাগজকে এ তথ্য জানিয়েছেন যশোরের সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় (২৬ মার্চ সকাল ৮টা থেকে ২৭ মার্চ সকাল ৮টা পর্যন্ত) যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নতুন করে করোনাভাইরাস সংক্রামণ সন্দেহে আরও দুজনকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছে। এ নিয়ে যশোরে হাসপাতালে কোয়ারন্টাইনে থাকা রোগীর সংখ্যা সাতজন। তাদের মধ্যে ৬জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। শুক্রবার (২৭ মার্চ) রাত ৯টা পর্যন্ত হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন একজন।

যশোরের সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন জানিয়েছেন, ১০ মার্চ থেকে শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত অর্থাৎ গত ১৮ দিনে দুহাজার ২৯ জনকে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত সন্দেহভাজন হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। কমিউনিটি পর্যায়ে ভাইরাস সংক্রমণ সতর্কতায় গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ১শ ৪৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। এরমধ্যে শুধুমাত্র যশোর সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় রয়েছেন ৫২ জন। এছাড়াও অভয়নগরে ৪ জন, কেশবপুরে ২৩ জন ও মণিরামপুরে ৩৫ জনকে চিহ্নিত করে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। স্বাস্থ্য বিভাগ ও জেলা প্রশাসনের কঠোর নজরদারিতে রয়েছেন তারা। হোম কোয়ারেন্টাইনে একটানা ১৪ দিন থাকার পর ২শ ১৭ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। অর্থাৎ তারা করোনাভাইরাসের সংক্রমণমুক্ত। 

সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন গ্রামের কাগজকে জানিয়েছেন, যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে থাকা একজন ও হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা আরও দুজনের নমুনা সংগ্রহ করে ২৫ মার্চ আইইডিসিআর-এ পাঠানো হয়। পরীক্ষা নিরীক্ষার পর সেখান থেকে ২৭ মার্চ শুক্রবার রিপোর্ট যশোরে পৌঁছেছে। সন্দেহভাজনরা কেউই করোনাভাইরাসে সংক্রমিত নন। অর্থাৎ যশোরে করোনাভাইরাসে এখনো পর্যন্ত কেউ আক্রান্ত হননি। ফলে আতংকিত হওয়ার কিছু নেই। তবে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে সবাইকে নিজ নিজ ঘরে অবস্থান করে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা উচিত। তাহলেই করোনাভাইরাসের আক্রমণ প্রতিরোধ করা সম্ভব।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft