শিরোনাম: সাতক্ষীরায় আরেক করোনা রোগী শনাক্ত       পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে ধুমকেতু ‘সোয়ান’       করোনা সুরক্ষা যন্ত্র বানাল ১২ বছরের কিশোর       সাঁথিয়া উপজেলা শাখা ছাত্রদলের উদ্যোগে দরিদ্রদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ       সাতক্ষীরায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে লাইনম্যানের মৃত্যু       স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান ওবায়দুল কাদেরের       ঈদের আনন্দঘন মুহূর্ত অম্লান হোক : জি এম কাদের       ফায়ার সার্ভিসে করোনা আক্রান্ত ৭৯ জন, সুস্থ ৯       সাতক্ষীরার আশাশুনিতে মৎস্যঘের দখলকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত-১ আহত-৩       আরাবী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দরিদ্রদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন      
বাগেরহাটে আশ্রয়কেন্দ্রে দেড় লাখ মানুষ
শুরু হয়েছে তীব্র ঝড়ো বাতাস
বাগেরহাট প্রতিনিধি :
Published : Wednesday, 20 May, 2020 at 1:37 PM
বাগেরহাটে আশ্রয়কেন্দ্রে দেড় লাখ মানুষবাগেরহাটে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাবে বুধবার (২০ মে) সকাল থেকেই থেমে থেমে বৃষ্টিপাতের সাথে তীব্র বাতাস বইতে শুরু করেছে। সেই সাথে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত ঘোষণায় পর জেলার উপকূলীয় এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।
উপকূলীয় এলাকার সাধারণ মানুষ গবাদিপশুসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে আশ্রয় কেন্দ্রে উঠেছেন। বুধবার দুপুর ১টা পর্যন্ত বাগেরহাটের ৯৭৭টি আশ্রয় কেন্দ্রে নারী-শিশু ও বৃদ্ধসহ দেড় লাখ মানুষ ও ২০ হাজার গবাদিপশু আশ্রয় নিয়েছে বলে বাগেরহাট জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে।
বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ বলেন, সময়ের সাথে সাথে বাগেরহাটে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাব পরতে শুরু করেছে। সকাল থেকে বৃষ্টির সাথে বাতাসের তীব্রতাও বৃদ্ধি পাচ্ছে। সাধারণ মানুষ তাদের গবাদিপশু ও প্রয়োজনীয় মালামালসহ আশ্রয় কেন্দ্রে গুলোতে আসছে। ইতোমধ্যেই এক লক্ষ ৫০ হাজার মানুষ ও ২০ হাজার গবাদিপশু আশ্রয় কেন্দ্রে উঠেছে। সময়ের সাথে সাথে আশ্রয় কেন্দ্রে গুলোতে মানুষের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে। এছাড়া করোনা পরিস্থিতির কারণে আমরা আশ্রয় কেন্দ্রে গুলো সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে কাজ করছি। সেজন্য ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্রগুলোর পাশাপাশি জেলা সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাকা ভবনগুলো আশ্রয় কেন্দ্রে হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। এসব আশ্রয় কেন্দ্রে ৪ লাখ ৮৬ হাজার ২৭৭ জন মানুষ ও প্রায় ৮৫ হাজার গবাদি পশু আশ্রয় নিতে পারবে। কেন্দ্রে গুলোতে আশ্রয় নেয়া জনসাধারণের মাঝে মাক্স, গ্লোভস ও হ্যান্ডস্যানিটাইজার বিতরণ করা হচ্ছে।  
তিনি আরও বলেন, ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় ১৩ মে.টন চাল নগদ ৩ লাখ টাকা, শিশু খাদ্যের জন্য ২ লাখ. গো খাদ্যের জন্য ২ লাখ টাকা ও ২ হাজার প্যাকেট শুকনা খাবার ৮৪টি মেডিকেল টিম ও ৭টি ফায়ার সার্ভিস টিম প্রস্তুত রাখা হয়েছে। জেলায় রেড ক্রিসেন্ট, স্কাউটস, সিপিপির মোট ১১ হাজার ৭০৮ জন স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রস্তুত রাখা হয়েছে ৮৫ টি মেডিকেল টিম। খোলা হয়েছে ১০টি কন্ট্রোল রুম।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft