শিরোনাম: বোয়ালমারীতে মুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্ছিতের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন       কাঠালিয়ায় জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন       জিয়া আমাকে মন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল : রাষ্ট্রপতি       বিএনপি সবসময় বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচারে বিরোধিতা করেছে : কাদের       মোরেলগঞ্জে শোক দিবসে আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা       নির্বাচনে হারলেও ট্রাম্প নীরবে ক্ষমতা ছাড়বেন না : হিলারি       খোকসায় আ.লীগ সভাপ‌তি বাবুল আখতা‌রের নেতৃ‌ত্বে শোক র‌্যালী       দিনাজপুরে বঙ্গবন্ধু'র শাহাদাত বার্ষিকী        স্বাধীনতা দিবসে চীন-পাকিস্তানকে মোদির হুঁশিয়ারি       আয়নায় নিজেদের চেহারা দেখুন : রিজভী      
লিবিয়ায় সামরিক হস্তক্ষেপের হুমকি
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Saturday, 11 July, 2020 at 2:54 PM
লিবিয়ায় সামরিক হস্তক্ষেপের হুমকিমিশরের প্রেসিডেন্ট জেনারেল আব্দেল ফাত্তাহ আস-সিসি লিবিয়ায় সামরিক হস্তক্ষেপের যে হুমকি দিয়েছেন তার কঠোর নিন্দা জানিয়েছে ত্রিপোলিভিত্তিক লিবিয়ার জাতীয় ঐক্যমত্যের সরকার।
সরকারের সেনাবাহিনী বলেছে, ত্রিপোলি সরকার যে কোনো মূল্যে দেশের স্থিতিশীলতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা করবে।
লিবিয়ার ঐক্যমত্যের সরকারের শীর্ষস্থানীয় সেনা কমান্ডার আব্দুল-হাদি দাররাহ সংবাদ সংস্থা আল-জাজিরাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, তার বাহিনী দেশের প্রতি ইঞ্চি ভূমি পুনরুদ্ধার না করা পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাবে। একইসঙ্গে তিনি লিবিয়ায় তুর্কি সেনা উপস্থিতি অস্বীকার করে বলেন, ত্রিপোলির প্রতি আঙ্কারা যে সহযোগিতা করছে তা কারিগরি ও রসদ সংক্রান্ত বিষয়ে সীমাবদ্ধ।
মিশরের প্রেসিডেন্ট জেনারেল আব্দেল ফাত্তাহ আস-সিসি এর আগে হুমকি দিয়ে বলেছেন, লিবিয়ার সির্তে শহর ও আল-জুফরা বিমান ঘাঁটি হচ্ছে মিশরের রেডলাইন। তিনি বলেন, লিবিয়ায় সংঘর্ষরত দুই পক্ষ যদি এই দুই এলাকা অতিক্রম করে পূর্ব ও দক্ষিণ দিকে অগ্রসর হতে চায় তাহলে দেশটিতে সেনা পাঠাবে মিশর। সিসি’র এই বক্তব্যকে লিবিয়ার জাতীয় ঐক্যমত্যের সরকারের পাশাপাশি তুরস্কের বিরুদ্ধে মিশরের সর্বোচ্চ হুমকি বলে মনে করা হচ্ছে।
উল্লেখ্য, ২০১৪ সাল থেকে লিবিয়ার প্রতিদ্বন্দ্বী দুটি গ্রুপ একে অপরকে উৎখাত করার জন্য সশস্ত্র সংগ্রাম চালাচ্ছে। এক পক্ষে রয়েছে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত লিবিয়ার জাতীয় সরকার আর অন্য পক্ষে রয়েছে পূর্বাঞ্চলীয় তবরুক শহরভিত্তিক জেনারেল খলিফা হাফতারের বাহিনী। সংযুক্ত আরব আমিরাত, মিশর, রাশিয়া, জর্দান থেকে সহযোগিতা পাচ্ছেন খলিফা হাফতার। অন্যদিকে, ত্রিপোলিভিত্তিক সরকারের পেছনে রয়েছে তুরস্ক। সূত্র: পার্সটুডে




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft