শিরোনাম: চৌগাছার আলোচিত লিপির গডফাদার তরিকুল আটক       শারদীয় দূর্গাপূজাঁয় তিন দিনের সরকারি ছুটির দাবিতে নড়াইলে মানববন্ধন        ফুলতলায় আল শেফা ডায়াগনস্টিক সেন্টারের উদ্বোধন       মোরেলগঞ্জে চা দোকানিকে হত্যার ঘটনায় ৩ যুবক গ্রেফতার       মাকে হত্যার পর পুড়িয়ে লাশ গুমের অভিযোগে ছেলে গ্রেপ্তার       ইরানে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু আরও ২০৭ জন       করোনা মোকাবিলায় সার্কের সহযোগিতা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী       বিএনপি নেতাদের চোখের চিকিৎসা করানোর পরামর্শ হানিফের       ইরানের সব পানিসীমা সশস্ত্র বাহিনীর পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে : নৌ কমান্ডার       জিয়ার বিরুদ্ধে অপপ্রচারে জনগণ বিভ্রান্ত হবে না : রিজভী      
দল ছেড়ে ফের তৃণমূলে প্রভাবশালী নেতা
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 7 August, 2020 at 2:31 PM
দল ছেড়ে ফের তৃণমূলে প্রভাবশালী নেতাআবারও বিজেপির উইকেট ফেলল তৃণমূল। বিপ্লব মিত্রর পর এবার বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে ‘ঘর ওয়াপসি’ হল হুমায়ুন কবীর। আজ বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূলে ফিরলেন হুমায়ূন। ২০১৮ সালে দিল্লিতে ঘটা করে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন হুমায়ুন কবীর। কিন্তু দুবছরের মধ্যেই মোহভঙ্গ হল তাঁর।
বহরমপুরের টেক্সটাইল মোড়ে এক জনসভার মধ্যে দিয়ে তার হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন দলের চেয়ারম্যান সুব্রত সাহা। দল ছেড়েই একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন হুমায়ূন। নেতৃত্বের উপর যে ক্ষুব্ধ তিনি, তাঁর কথায় স্পষ্ট।
প্রসঙ্গত, তৃণমূলে ফেরার ব্যাপারে হুমায়ুন আগেই বলেছেন, ‘‘তৃণমূল ছেড়ে ভুল করেছিলাম। পুরনো দলেই ফিরছি। যত দিন রাজনীতি করব, দিদিই আমার নেত্রী। তাঁর কথা মতোই কাজ করব।’’ এদিন হুমায়ূনের সঙ্গেই দল ছেড়েছেন তাঁর বহু অনুগামী।
মুর্শিদাবাদে হুমায়ূন কবীরের দলত্যাগ বিজেপির কাছে বড়সড় ধাক্কা হিসাবেই মনে করছে রাজনৈতিকমহল। অন্যদিকে, আবার হুমায়ূনকে সামনে রেখেই নতুন করে অধীর গড়ে নিজেদের শক্তি আরও একবার দেখাতে চলেছে তৃণমূল।
স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব জানিয়েছেন, হুমায়ূন দীর্ঘদিন দলের সঙ্গে যোগাযোগ রাখেনি। সাধারন মানুষের পাশে থাকেনি। ফলে তাঁর দলবদল বিজেপির উপর তেমন কোনও প্রভাব পড়বে না বলেই মত বিজেপির। অন্যদিকে তৃণমূলের দাবি, বিজেপিতে যারা গিয়েছেন তাঁর তাঁদের ভুল বুঝতে পেরেছেন। আর সেই ভুল বুঝতে পেরে ফের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলে ফিরে আসছেন। আগামিদিনে সবাই তৃণমূলে ফিরে আসবে বলে দাবি স্থানীয় তৃণমূলের।
তবে দলবদল হুমায়ুনের কাছে একেবারেই নতুন নয়। এক সময় বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরীর ডান হাত ছিলেন তিনি। কংগ্রেসের টিকিটে জিতে জেলা পরিষদের সদস্য হয়েছিলেন। ২০১১ সালে রেজিননগর বিধানসভা কেন্দ্র থেকেও কংগ্রেসের টিকিটেই জিতেছিলেন। ২০১২ সালে তৃণমূলে যোগ দেন তিনি। মন্ত্রিত্বের পুরস্কারও মিলেছিল।
তবে ঠোঁটকাটা হুমায়ুন দলের তদানীন্তন জেলা পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারীর সম্পর্কে ‘বিরূপ’ মন্তব্য করায় দল তাঁকে ছেঁটে ফেলেছিল। ২০১৬’র বিধানসভা নির্বাচনে নির্দল হিসেবে দাঁড়িয়ে সামান্য ভোটে হেরে গিয়েছিলেন কংগ্রেস প্রার্থীর কাছে।পরের বছরে পুরনো দল কংগ্রেসে ফিরলেও ২০১৮ সালে ফের দল বদলে পা বাড়িয়েছিলেন বিজেপিতে। গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি’র প্রার্থীও হয়েছিলেন।
কিন্তু এনআরসি নিয়ে দলের সঙ্গে তাঁর গোল বেঁধেছিল। গত বছরই ডিসেম্বর মাসে হুমায়ুন বলেছিলেন, ‘‘যে দলেই থেকেছি মুর্শিদাবাদের মানুষ আমায় ভালবেসে পাশে থেকেছেন। কিন্তু নাগরিকত্ব বিল সেই সব মানুষের স্বার্থে খাঁড়ার মতো নেমে আসছে। তাই বিজেপি-তে আর থাকব না।’’
সেই মতো আজ বৃহস্পতিবার সরকারিভাবে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন হুমায়ুন। দলে যোগ দিয়েই হুমায়ুন কবীর বলেন, ‘আমি তৃণমূল দলটাই এবার করতে চাই। যতদিন বাঁচবো ততদিন তৃণমূল দলে থাকব’।
সুত্র : কলকাতা ২৪x৭




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft