শিরোনাম: শ্যামনগরে অতিদরিদ্রদের মধ্যে অর্থ সহায়তা কার্যক্রম উদ্বোধন       আমরণ অনশনে রায়হানের মা       যশোরে ফেনসিডিলসহ এক ব্যক্তি আটক       পাইকগাছায় ৩টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার       মধুখালীতে সড়ক দুর্ঘটনায় দু’জন নিহত, আহত ৫        কাঠ ব্যবসায়ীকে গলাকেটে হত্যা       এল ক্লাসিকোতে রিয়ালের জয়       পাঞ্জাবের কাছে হারলো হায়দরাবাদ       প্রেসিডেন্ট কাপ ক্রিকেটের ফাইনাল আজ       টিকার জন্যে ঋণ চাইল বাংলাদেশ       
উচ্চশিক্ষায় সেশনজট এড়ানো প্রসঙ্গে
Published : Thursday, 24 September, 2020 at 12:40 AM
উচ্চশিক্ষায় সেশনজট এড়ানো প্রসঙ্গেপ্রায় ছয় মাস ধরে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বন্ধের ফলে উচ্চ শিক্ষায় যে ক্ষতি হয়েছে বা মহামারী প্রলম্বিত হলে কী করণীয়, তা নিয়ে ভাবছেন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা। তারা বলছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে সেশনজট অনিবার্য হয়ে পড়েছে। তবে বিভিন্ন উপায় ও কৌশল অবলম্বন করে ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়ার সুযোগও রয়েছে। এক্ষেত্রে সেমিস্টার বা বার্ষিক শিক্ষাপঞ্জির সময় ও সাপ্তাহিক ছুটি কমিয়ে এবং অতিরিক্ত ক্লাস নিয়ে ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়া যেতে পারে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক এএসএম মাকসুদ কামাল বিভিন্ন মিডিয়ায় সাংবাাদিকদের বলেন, ‘আশা করি শিক্ষার্থীরা বড় ধরনের সেশনজটে পড়বে না। যারা অনার্স ডিগ্রি বা মাস্টার্স ডিগ্রির টার্মিনালে আছে, তারা হয়ত কিছু দিনের জন্য সেশনজটে পড়তে পারে। তবে যারা ফার্স্ট ইয়ার বা সেকেন্ড ইয়ারে আছে তাদের সেশনজটে পড়ার কোনো শঙ্কা নেই। ইয়ারলি সিস্টেমে যাদের পরীক্ষা হয়, আমরা হয়ত ১২ মাসের মধ্যে ৮-৯ মাস ক্লাস নিয়ে পরীক্ষা নিতে পারব, যাতে তাদের শিক্ষা জীবনে কোনো ছেদ না পড়ে। সেমিস্টার পদ্ধতিতে যাদের পরীক্ষা, ষষ্ঠ থেকে অষ্টম সেমিস্টার পর্যন্ত তাদের কিছুটা অসুবিধা হতে পারে। তবে তাদের এই সেশনজট নিরসনেও নানা পরামর্শ রয়েছে। সব শিক্ষার্থী যাতে অনলাইন ক্লাসে যোগ দিতে পারে সেই ব্যবস্থা করতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে জানিয়ে অধ্যাপক মাকসুদ কামাল বলেন, ‘যেসব শিক্ষার্থীর ডিভাইস নাই বা ডেটা প্যাক কিনতে সমস্যা, তাদেরকে আমরা আর্থিক সাপোর্ট দেওয়ার জন্য বিভিন্ন বিভাগে চাহিদাপত্র পাঠিয়েছি। শিগগিরই অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামো উন্নয়নসহ শিক্ষার্থীদের অসুবিধা দূর হবে। প্যানডেমিক প্রলম্বিত হলে বিকল্প উপায়েও শিক্ষার্থীদের মূল্যায়নের চিন্তা আছে। তবে আগে শিক্ষার্থীদের সুযোগ-সুবিধা দিয়ে অনলাইনে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে।’ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম বলেন, ‘সেশনজট কমানোর জন্য আমরা কিছু বিষয়ের কথা ভাবছি। তবে আমরা এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেইনি। সেশনজট এড়ানোর জন্য ক্যাম্পাস খুললে শীতকালীন ছুটির মতো বড় ছুটি বাতিল করা এবং সাপ্তাহিক বন্ধ দুই দিন থেকে এক দিনে নামিয়ে আনার মতো বিষয়েও আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’
এমন সিদ্ধান্ত যখন উচ্চ শিক্ষায় ভাবা হচ্ছে, তখন আমরা আশাবাদী, মহামারির কারণে আসা সকল পর্যায়ের সেশনজন কাটিয়ে উঠা সম্ভব হবে, যদি শিক্ষক সমাজ আন্তরিক থাকেন।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft