আজ সোমবার, ৯ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২২ জানুয়ারী ২০১৮ খ্রিস্টাব্দ
শিরোনাম: দিনাজপুরের আওকরা মসজিদ ধ্বংসের পথে       প্রতিবন্ধী পরিবার নিয়ে দূর্বিসহ জীবন যাপন করছেন আবেদা বেগম       রাণীনগরে সওজের জায়গা দখল করে বহুতল ভবন নির্মাণ       একটি ব্রিজের অভাবে দুই ইউনিয়নবাসীর সীমাহীন দুর্ভোগ       অবশেষে ৪০ হাজার কোটি টাকার চীনা বিনিয়োগ       মাঠ যাচাইয়ে এ মাসেই মাঠে নামছে আওয়ামী লীগ       বিমানবন্দর হবে পদ্মার পাড়ে       সিলেট থেকে নির্বাচনী প্রচারে নামছেন প্রধানমন্ত্রী       নেতানিয়াহুর গ্রেফতার দাবিতে ইসরাইলে বিক্ষোভ চলছে       নির্বাচন নিরপেক্ষ হলে ৮ শতাংশ ভোটও পাবে না আ.লীগ : ফখরুল      
নওগাঁয় তাপমাত্রা রেকর্ড ৬.২, শৈত্য প্রবাহে জনজীবন স্থবির
মোফাজ্জল হোসেন, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি :
Published : Friday, 12 January, 2018 at 9:30 PM
নওগাঁয় তাপমাত্রা রেকর্ড ৬.২, শৈত্য প্রবাহে জনজীবন স্থবিরদেশের সর্ব নিম্ন তাপমাত্রা শুক্রবার রেকর্ড করা হয় নওগাঁয় ৬.২ ডিগ্রী সেলসিয়াস। এদিকে ভোর থেকে ঘন কুয়াশা আর তীব্র শৈত্য প্রবাহে জনজীবন স্থবির হয়ে পড়েছে। নিম্ন আয়ের মানুষের দুর্ভোগ চরমে ঠেকেছে। বিশেষ করে গবাদি পশু নিয়ে বিপাকে রয়েছে সাধারন মানুষ। শীত থেকে গবাদি পশূকে রক্ষায় চটের বস্তা দিয়ে ঢেকে রাখছে। একটু গরমের খোঁজে আগুন জ¦ালিয়ে শীত নিবারন করছে মানুষ জন। আরো দু-একদিন শৈত্য প্রবাহ অব্যহত থাকবে বলে জানিয়েছে স্থানয়ি আবহাওয়া অফিস। কনকনে ঠান্ডা বাতাসের দাপটে মানুষ এখন কাহিল হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে শ্রমজীবী, দিন মুজুর মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েছে। প্রচন্ড শীতের কারনে ঘরের বাহিরে কাজে যেতে পারছে না খেটে খাওয়া মানুষ। এই কনকনে ঠান্ডা বাতাসের সাথে ঘন কুয়াশাও চারিদিকে আছন্ন করে আছে। টানা শৈত প্রবাহ আর কনকনে তীব্র শীতে জনজীবন বিপর্যদ্ধ হয়ে পড়েছে। ঘন কুয়াশায় ঢেকে আছে জেলার অধিকাংশ এলাকা। ঘন কুয়াশার কারনে দিনের বেলায় হেডলাইট জ্বালিয়ে ঝুঁকির মধ্যে চলাচল করছে যানবাহন। শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি পাওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছেন খেটে খাওয়া শ্রমজীবি-পেশাজীবি মানুষেরা। শিশু-বৃদ্ধরা সবচেয়ে বেশী দুভোর্গের মধ্যে পড়েছে। নওগাঁ সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা গেছে, শীতজণিত সর্দি, জ্বর, নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়ার রোগে জেলা সদরসহ ১১টি উপজেলা হাসপাতালে রোগী ভর্তির সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এদের মধ্যে বেশিরভাগ শিশু ও বৃদ্ধ। নওগাঁ কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর সূত্র জানা যায় তীব্র শীত ও কুয়াশার শস্য ক্ষেতে ক্ষতির সম্ভবনা রয়েছে। 




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


আরও খবর
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft