সোমবার, ১০ মে, ২০২১
জাতীয়
আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারীদের বের করে দিতে হবে : তথ্যমন্ত্রী
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :
Published : Saturday, 11 May, 2019 at 8:38 PM
আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারীদের বের করে দিতে হবে : তথ্যমন্ত্রীঅন্য দল থেকে আওয়ামী লীগে যোগ দেয়া ব্যক্তিদের ধীরে ধীরে বের করে দিতে বলেছেন দলটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।
শনিবার দুপুরে নগরের কাজীর দেউড়ীতে ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর জেলা, দক্ষিণ জেলা, কক্সবাজার, বান্দরবান, রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় তিনি এ কথা বলেন।
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আমরা পরপর তিনবার রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকার কারণে সংগঠনের মধ্যে অনুপ্রবেশকারী ঢুকেছে। অনেক সুবিধাবাদী সংগঠনের মধ্যে ঢুকেছে। আজকে এখানে যারা এসেছেন, আপনারা তৃণমূলের নেতা, আপনাদের নিয়েই আওয়ামী লীগ। আপনাদের জানাচ্ছি, এই অনুপ্রবেশকারীদের আমাদের সংগঠনে দরকার নেই। যারা ঢুকেছিল, ধীরে ধীরে তাদেরকে বের করে দিতে হবে। সেই কার্যক্রম আমাদের শুরু করতে হবে।
সারাদেশে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ডিজিটাল ডাটাবেজ তৈরির কাজ শুরু হয়েছে বলেও জানান দলটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।
তিনি বলেন, সমস্ত নেতাকর্মীদের প্রতি আমি বিনীত অনুরোধ জানিয়ে বলি, ক্ষমতায় থাকলে বিনয়ী হতে হয়। বিনয় মানুষকে মহান করে। বিনয়ী মানুষকে সবাই ভালোবাসে। উদ্ধত্য মানুষ পছন্দ করে না। আমাদের নেতকর্মীদের মাঝে যেন উদ্ধত্য আচরণ না থাকে, সেজন্য এই সভা থেকে একটি বার্তা দেওয়া প্রয়োজন।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা পরপর তিনবার ক্ষমতায়। আমাদেরকে জনগণ রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব দিয়েছে। আমাদের নেতাকর্মীরা যেন বিনয়ী হয়। অনেক উন্নয়ন করার পরও কোন নেতা যদি সংগঠনের কর্মীদের মূল্যায়ন না করেন, কর্মীরা যদি তাকে আপন মনে না করেন, তাহলে সে উন্নয়ন কখনো জনপ্রিয়তা পাবে না। অনেক উন্নয়ন করেও অনেক নেতা জনপ্রিয় হতে পারেননি। এর কারণ হচ্ছে, সে নেতার সাথে তৃণমূলের সম্পর্ক নেই।
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে রাজনীতি করি। বিএনপিতে কোনো আদর্শ নেই। তারা ক্ষমতার উচ্ছিষ্ট, ভাড়া করা নেতাদের নিয়ে দল প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। ঐক্যফ্রন্টে এখন ঐক্য নেই। ঐক্যফ্রন্টও ভেঙে যাচ্ছে।
আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম হানিফের সভাপতিত্বে বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু। সভার সঞ্চালনা করেন আওয়ামী লীগের চট্টগ্রাম বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম।
সভায় শিক্ষা উপমন্ত্রী মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, চট্টগ্রামের সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং তিন পার্বত্য জেলার সাংসদ এবং সংরক্ষিত নারী সাংসদবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft