শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০
সারাদেশ
ঠাকুরগাঁওয়ে হঠাৎ ঝড়, ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত
ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি :
Published : Saturday, 18 May, 2019 at 1:18 PM
ঠাকুরগাঁওয়ে হঠাৎ ঝড়, ঘরবাড়ি বিধ্বস্তকালবৈশাখী ঝড়ে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় একটি গ্রামের শতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে দিকে উপজেলার শুকানপুকুরী ইউনিয়নের বাংরোড গ্রামের উপর দিয়ে এ ঝড় বয়ে যায় বলে স্থানীয়রা জানান।
চার থেকে পাঁচ মিনিটের ওই ঝড়ে নূর হক, খেলাফত, কান্দরু, শফিকুল ইসলাম, মোশারফ হোসেন, আব্দুল করিম, আব্দুর রহিম, অনিল চন্দ্র, সুধির ঘোষ, ঋষিকান্তের ঘর-বাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে।
সরেজমিনে দেখা গেছে, ঝড়ে উপড়ে পড়েছে গ্রামের অসংখ্য গাছপালা, বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে বিদ্যুৎ সংযোগ। নষ্ট হয়েছে বিভিন্ন ফসল।
শুখানপুকুরী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান বলেন, হঠাৎ ঝড়ের কবলে পড়ে বাংরোড গ্রামে ১৮টি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, এরমধ্যে ১০টি পরিবার একেবারেই নিঃস্ব হয়ে গেছে।
ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের আপাতত চাল দেওয়া হবে; পরে পুনর্বাসনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।
ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত শফিকুল ইসলাম বলেন, হঠাৎ করেই প্রচণ্ড বেগে ঝড় শুরু হয়। ঝড়টি মাত্র কয়েক মিনিট স্থায়ী হয়। কিন্তু এতেই সবকিছু লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে।
ঋষিকান্ত রায় বলেন, হঠাৎ ঝড়ের আঘাতে আমার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়ে গেছে। ঝড়ে গ্রামের ১৮টি পরিবারের পাকা, আধা পাকা, কাচা বাড়ি লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে এবং সহস্রাধিক গাছপালা উপরে পড়েছে।
অনিল বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করছেন। হঠাৎ ঝড়ের কারণে বাংরোড গ্রামে প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ইতিমধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত সবাইকে সর্বাত্মক সহায়তা দেওয়া হবে।



আরও খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft