শনিবার, ০৮ মে, ২০২১
সারাদেশ
রাজশাহীতে চাল বিতরণ:
করোনা প্রতিরোধ, না সংক্রমণ করছি?
ডাঃ হাফিজুর রহমান (পান্না), রাজশাহী ব্যুরো :
Published : Monday, 30 March, 2020 at 4:57 PM
করোনা প্রতিরোধ, না সংক্রমণ করছি?রাজশাহীর নগরীতে করোনা ভাইরাসের কারণে বাইরে বের হতে না পারায় দরিদ্র জনগোষ্টির মাঝে চাল বিতরণ চলছে। নগরী ১৬ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলরের অফিসে সামনে বখতিয়ারা বাদ এলকায় সামাজিক দুরত্ব বজায় না রেখে কাউন্সিলর বেলাল আহম্মেদ উপস্থিতিতে চাল বিতরণ করতে দেখা যায়। সোমবার (৩০ মার্চ) সকাল থেকে চাল বিতরণ শুরু করে দুপর ১টা পর্যন্ত চলে এ কার্যক্রম। সেখানে দেখা গেলো সাদা গোল বিত্ব অঙ্কন দিয়ে রেখেছে। কিন্তু সেখানে মহিলাদের দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়নি।
তারা নিজেরদের ইচ্ছে মতো ওয়ার্ডের মানুষকে কার্যালয়ের সামনে ডেকে নিয়ে চাল বিতরণ করছেন। এতে মানুষগুলো গাদাগাদি করে লাইনে দাঁড়াচ্ছে। ফলে যে নিরাপদ দুরুত্বের কথা বলা হয়েছিল তা মানা হচ্ছে না। ফলে করোনার ঝুঁকি থেকেই যায়।
যদিও সরকারীভাবে ঘোষণা করা হয় যে করোনা প্রতিরোধে জনসমাগম নিষেধ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বার বার মাইকিং করা হচ্ছে, প্রয়োজন ছাড়া আপনারা বাড়ির বাহিরে আসবেন না। সামাজিক দুরত্ব বজয় রাখতে হবে। মুখে মাস্ক ব্যাহার করেন। তাহলে করোনা প্রতিরোধ করা সম্ভব।
এদিকে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষনা দিয়েছেন যে নিম্ন আয়ের দরিদ্র জনগোষ্টি মানুষদের বাড়ি বাড়ি খাবার পৌছিয়ে দেওয়া হবে। কিন্তু নগীর ১৬ নং ওয়ার্ডে দেখা গেল ভিন্ন চিত্র। চাল ও ডাল নেওয়ার জন্য শত শত মানুষ গাদাগাদি করে সামাজিক দুরত্ব বজায় না রেখে চাল নেয়ার জন্য দাঁড়িয়ে আছে। এতে করে করোনা সংক্রমণের সম্ভবনা রয়েছে। এ পরিস্থিতি দেখে এলাকার সচেতন মানুুষের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হচ্ছে।
চাল নিতে আসা একজন মহিলা নাম না বলার শর্তে বলেন, করোনা দেখে ভয় করছিনা, ভয় করছি দারিদ্রতা নিয়ে। তিনি আরো বলেন, যদি বাড়ি বাড়ি এই চালগুলো পৌছে দিতো তা হলে করোনা সংক্রমণের ঝুকি থাকতো না।
শুধু ১৬ নং ওয়ার্ডে না, রাজশাহীর অনেক জায়গাতে বড় বড় নেতাদেরও মাস্ক ও চাল বিতরণ অনুষ্ঠানে দেখা মিলে এ চিত্র। এখন প্রশ্ন থেকে যায় আমরা করোনাকে প্রতিরোধ করছি, না সংক্রমণ করছি।
এ বিষয়ে ১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহম্মেদকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, আমরা চার শত পরিবারকে ৯ কেজি চাল ও ২৫০শো ডাল দিচ্ছি। এটা নেওয়ার জন্য হাজার মানুষ হুমড়ি খেয়ে পড়ছে। বার বার নিষেধ করলেও শুনছেনা। তবে এ নিউজ ও ছিবি না প্রকাশ করার জন্য আমাকে বলা হয়। কিন্ত জাতীয় স্বার্থে এ নিউজ আমাকে লিখতে হলো।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft