শনিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২১
জাতীয়
কর্মস্থলে যেতে পথে পথে যাত্রীদের ভোগান্তি
কাগজ ডেস্ক :
Published : Thursday, 30 April, 2020 at 10:30 AM
কর্মস্থলে যেতে পথে পথে যাত্রীদের ভোগান্তিকর্মস্থলে ফেরা ঢাকাগামী পোশাক শ্রমিকদের ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে পথে পথে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। লকডাউনের কারণে বিভিন্ন স্থানে বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন তারা। তারপরেও ছুটতে হচ্ছে তাদের কর্মস্থলে।
একদিকে লকডাউন অন্যদিকে গার্মেন্টস খোলা। চাকরি বাঁচানোর জন্য লকডাউন উপেক্ষা করেই তারা শত বাধা পেরিয়ে যাচ্ছেন গন্তব্যে। জীবনের ঝুঁকি জেনেও তারা হার মানছেন না।
সরেজমিন বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) সকালে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাটে গিয়ে দেখা যায় এমনই চিত্র। সামাজিক দূরত্বের নেই কোন বালাই। একে অপরের সাথে মিলেমিশে তারা নদী পার হচ্ছেন। করোনার কারণে দৌলতদিয়া ঘাটের লঞ্চ চলাচল বন্ধ প্রায় দেড় মাস। ফেরিও চলছে সীমিত। এরমধ্যে পোশাক শ্রমিকরা ফেরিতেই নদী পার হচ্ছেন। স্থানীয় প্রশাসনের বাধার মুখেও তারা ফেরিতে উঠছেন।
ফেরি সীমিত থাকায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা রোদের মধ্যে অপেক্ষা করতে হচ্ছে তাদের। একটি ফেরি ঘাটে আসলেই দৌড়ে কে কার আগে উঠবে সেই প্রতিযোগিতা চলছে।
পোশাক শ্রমিক রেহেনা খাতুন বলেন, কি করবো ভাই। পেটের তাগিদেই ঘর থেকে বের হতে হচ্ছে। কর্মস্থলে না ফিরলে চাকরি থাকবে না।
তিনি আরও বলেন, যশোর লকডাউন চলছে। মাগুরা, ফরিদপুর ও রাজবাড়ীতেও লকডাউন। যারা গার্মেন্টস খুলল তারা কি জানে না লকডাউন চলছে। আমরা এরমধ্যে কিভাবে আসবো আপনারই বলেন। এরপর আবার পথে পথে পুলিশের বাধা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মাগুরার বাসিন্দা এক ব্যাংকার বলেন, ঘাট পর্যন্ত আসতে ১০ জায়গায় পুলিশ বাধা দিয়েছে। তারা কি জানেনা ব্যাংক খোলা। আমি একটি বিপদে বাড়িতে আসি। এখন যেতেই পারছিনা। সরকারের এই সময়টাতে আরও দায়িত্বশীল হওয়া উচিত।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft