শুক্রবার, ০৭ মে, ২০২১
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
লাল কাড খাইয়ে গিলাম!
Published : Tuesday, 16 June, 2020 at 11:45 PM
লাল কাড খাইয়ে গিলাম!শুনতি পালাম করোনা আমাগের যশোররে তিনভাগ কইরে দেচে। একভাগরে লাল, একভাগরে হলুদ আর এক ভাগরে সবুজ কাড দেচে। খেলার মাটে যিরাম লাল কাড পালি মাটেত্তে  খেলা ফ্যালায়ে ঘরে উটতি হয় সিরাম দশা লাল কাড আলাগের। হলুদয়ালাগের সতর্ক করা হয়েচে আর সবুজয়ালাগের খেলা চালায় যাতি কওয়া হয়েচে। আমাগের আরবপুর ইউনিয়ানসহ যশোর শহরের ঘোপ আর নতুন উপশহর লাল কাড পাইয়েচে। এর বাইরি অভয়নগর উপজিলার নুয়াপাড়া পৌরসভার দুই, চার, পাচ, ছয় ও নয় নম্বর ওয়াড আর চলিশিয়া, পায়রা ও বাগুটিয়া ইউনিয়ান, চৌগাছা পৌরসভার ছয় নম্বর ওয়াড, বেনাপুল পৌরসভার দুই নম্বর ওয়াড ও সারসা ইউনিয়ান, ঝিঙেরগাচা পৌরসভার দুই ও তিন নম্বর ওয়াড আর কেশবপুর পৌরসভার এক নম্বর ওয়াড লাল কাড পাইয়েচে। লালকাড পাওয়া এলেকায় জারি করা হইয়েচে ১১ডা কড়া নিদ্দেশনা। স্বাস্ত্য বিদি মাইনে চাষবাস করা যাবে, গিরামে কলকারখানা ও কৃষিপণ্য বানানো কারখানায় কাজ করা যাবে, তেবে শহর এলেকায় সব বন্দ থাকপে। বাড়িত্তে অপিসির কাজ করা যাবে, কোন রকম ভিড়ভাট্টা কইরে সুমাবেশ করা যাবেনা, শুদু রুগী হাসপাতালে যাতি পারবেন। জরুলী দরকারে বাড়ির বাইরি যাওয়া যাবে  তেবে ভ্যান রিকশা তিন চাকার গাড়ি ট্যাক্সি বা নিজিস্ব গাড়িঘুড়া চালানো যাবে না। রাস্তা, নদী ও রেলপথে লাল এলেকার মদ্দি কোনো কিচু চলবে না। এ সব এলেকায় শুদু মাত্তর রাত্তিরি মালটানা গাড়িঘুড়া চলতি পারবে,  লাল এলেকায় কেবল মাত্তর মুদি দোকান আর ওষুদির দুকান খুলা থাকপে এর সাতে রেস্টুরেন ও খাওয়ার দুকান আর বাড়ি বাড়ি পৌছোয় দিয়া সিবা চালু থাকপে আর সব বন্দ থাকপে। আত্থিক লেনদেন করা যাবে, এলেকার রুগীগের পযযাপ্ত নমুনা পরীক্কে কত্তি হবে, সিনাক্ত রুগীরা বাড়ি বা সিন্টারে আলাদা থাইকে টিটমেন নেবেন। মসজিদ ও উপাসনালয়তি শুদু মাত্তর দায়িত্বপিরাপ্তরাই অংশগোহন কত্তি পারবেন। হুশিয়ার কইরে কওয়া হইয়েচে সব কাজে স্বাস্ত্য বিভাগের আগেত্তে কইয়ে দিয়া স্বাস্ত্য বিদি টু দ্যা পয়েন মাইনে চলতি হবে। ভয়তে আছি লাল কাড খাইয়ে এক খেলাত্তে বাদ যায় তাতে দুক্কু নেই তেবে যেন খাইন বাদায়ে খেলাত্তেই আজীবন মিয়াদে ছাটাই না হই!
ইতি
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮ ৮৭১০০৩




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft