শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
কনে গেল তারা ?
Published : Sunday, 16 August, 2020 at 12:23 AM
কনে গেল তারা ?৪৫ বচর আগের ১৫ আগস্টের সেই দিনির কতা মনে উটলি একনো জানের মদ্দি কাইন্দে দেয়। তামান দুইনেয় ইরাম ঘটনা আর দুডো আচে বিলে আমার জানা নেই। সেই নির্মম ঘটনার পর দেশে কত কি ঘইটে গিলো। কতজন ডিগবাজি দিলো তা আমার চাইতি আপনারাই ভালো জানেন। সেই সুমায় নিজির চোকির দেকিচি এই ঘটনা নিয়ে কতা কওয়ার মানুসজন ছিলো হাতে গুনা। একন যিরাম আনজাম কইরে প্যান্ডেল সাজায়ে চোঙ মাইক খাটিয়া প্যানা ঝুলোয়ে কোচ্চের লোক জড়ো কইরে মুকি কতার খই ফুটায়, ইরামও দিন গেচে কাঙালী ভোজের এট্টা ডেগ চড়ানোর লোক তলাশ কইরে পাওয়া যাইতো না। এলেকা ভিত্তিক কিচু মানুস সাহস কইরে নিজির পকেটের টাকা, বাড়ির চাইল ডাইল, আর বাশ কাট জড়ো কইরে ডেগ চড়াতেন। সেই খাইদ্য চাপনিতি লোকের বাড়ি বাড়ি দিয়াসতেন। ছিলোনা ফটক তুলার হড়িক লাগা কিম্বা পোচার পোচারনার নানান কায়দা। পলাপলি কইরে ইরাম আয়োজনের জন্যিও কতো নাইনসেত যে তাগের খাতি হইয়েচে তার কোন হিসেব নেই। কত জাগায় চুলোয় চড়ানো ডেগ ফেলায় দিয়া হইয়েচে, কোনটোয় রান্দা করা খাবার পানিতি ফেলায় দিয়া হইয়েচে। আয়োজরা মাইর গুতোনও খাইয়েচেন। তবু বঙ্গবন্ধুর ভালোবাসায় জীবনের মায়া বাদ দিয়ে তারা দিনডা পালন কইরে গেচেন। অথচ আইজ চারিদিকি নানান আয়োজন আর নিতার ছড়াছড়ি। কিডা কার আগে মাইক ধরবে তার পাল্লাপাল্লি। যারা এক সুমায় ডেগ চড়ানোর দায়তি মাইরেচে তারাও আজ ডেগ চড়াচ্চে। দুক্কির কতা হচ্চে যেই মানুসগুলো দুসসুমায়তি সুমকি ছিলো আইজ তারা পাইছোতি পাইছোতি কনে আচে কেউ কতি পারে না, তাগের খোজ কেউ রাকে কিনা সিডাও সন্দেহ। সেই সব মানুসগুলো বড্ড অভিমানী হয়। মনের দুক্কি নিজিগের আবডালে রাকে কিন্তু মনে মনে আশা করে তাগের কেউ ডাকতি আসুক। সবাই এত ব্যস্তর তাগের খোজ নিয়ার কারুর সুমায়ই নেয়। আবার অনেকে জাগা হারানোর ভয়তে ইচ্চে কইরেই তাগের কুনাঠাসা কইরে রাকে। তাগের কতা মনে করা জরুলী। মুরুব্বী কন ইতিহাসতে শিক্কে না নিলি একদিন ইতিহাসই তাগের শিক্কে দিয়ে যায়। কিডা কতি পারে আইজ যারা ইরাম কচ্চে কোন একদিন তাগের বেলায়ও ইরাম হবেনা!
ইতি
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft