মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
ভৈরব নদ খুচা নিয়ে দুডো কতা -১
Published : Saturday, 5 September, 2020 at 2:20 AM
যশোরের চৌগাছা উপজিলার তাহেরপুরিত্তে শুরু কইরে যশোর শহরের বুকির উপদ্দিয়ে বাঘারপাড়া, অভয়নগর হয়ে খুলনার রূপসা নদীতি যাইয়ে পইড়েচে ভৈরব নদ। দকলদারিত্তের খপ্পরে পইড়ে ভৈরব নদ সরু খাল হইয়ে গিলো। ২০১০ সালের ২৭ ডিসেম্বর যশোর বিজ্ঞান ও পোযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস উদ্বোধনের সময় পোধানমুন্ত্রী শেখ হাসিনা ভৈরব নদ খুচার পোতিশ্রুতি দিলেন। সেই মুতাবেক ২০১৩ সালে নদের খুচাখুচি করার জন্যি সমীক্কের কাজ শেষ করা হইলো।  সেই সুমায় গালভরা কত বুলি শুনিলাম। ভৈরব নদ তার হারানো যৌবন ফিরে পাবে। দড়াটানায় নদের বুক চিরে চলবে পালতুলা নৌকো। যশোরেত্তে গাঙ বাইয়ে যাওয়া যাবে খুলনা পন্তিক। রূপকতার মতো মনে হচ্চিল সেই সুমায়। কিন্তু দিন যাতি যাতি শুদু কতায় থাইকে গ্যালো নদের রূপ আর ফিল্লো না। ২০১৬ সালের ১৬ আগস্ট একনেকের সভায়  নদটা খুচার জন্যি ২৭২ কোটি ৮১ লাখ টাকা অনুমোদন দিয়া হইলো। টাকা ছাড় হওয়ার পর পানি উন্নয়ন বোড, জিলা পোশাসন, নদী কমিশন বহুত মিটিং সিটিং করিল। জাতীয় নদী রক্কে কমিশনের চিয়ারমেন চাচা যশোরে আইসে আঙাচ দিলেন ২৭ সালের সিএস খতেন দেইকে নদীর জাগা উদ্দার করা হবে। দরকার পড়লি তিনি যশোর আইসে জাগায় দাড়ায় থাইকে দকলের জাগা চুয়া করবেন। তারপর দিন যায় কতা থাকে সিরাম দশা। অবলাস্টে সাহস কইরে ২০১৯ সালের ২৮ মার্চ যশোরের সেই সুমায়’র ডিসি আব্দুল আওয়াল চাচা ভৈরব নদের জাগা উদ্দারে আইগোয় আইলেন। তিনি সেই সুমায়’র সদর এসিল্যান জাকির হাসান চাচারে দায়িত্ব দিলেন দকলের জাগা চুয়া করার জন্যি। এক এক কইরে ৮৪ডা দুকান পাট উচ্চেদ করিল মুবাল কোট। দড়াটানা বিরিজির পশ্চিম পাশে দেকতি দেকতি চুয়া হইয়ে গ্যালো। কিন্তুক রহস্যজনক কারনে উচ্চেদ কাজডা আর বিরিজ পার পুব পাশে আসতি পাইল্লো না। এরমদ্দি ডিসি চাচা দুডো মামলা খাইয়ে যশোরেত্তে বদলী হইয়ে ঢাকায় চইলে গেলেন তার পর এই নিয়ে আর কারো মুকি রা নেই। দড়াটানা বাদ দিয়ে শহরের আশপাশ বিজয় নগর, বোলপুর, নীলগঞ্জ, নিমতলি, কচুয়ার কিচু জাগা খুচার কাজ চলতিলো। কিন্তুক তাতেও মানসির অভিযোগ ছিলো মাতাভত্তি চুল থুইয়ে গোফ কাটার মতো দশা। গাঙের মাঝখান বাদ দিয়ে দুই কান্দার দিকি হালকার ওপর ঝাপসা খুচা হচ্চিল। (চলবে)
ইতি
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft