রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
জাতীয়
ফুটপাত দখলমুক্ত করতে ‘অ্যাকশনে’ নেমেছেন আতিকুল
কাগজ ডেস্ক :
Published : Monday, 7 September, 2020 at 6:18 PM
ফুটপাত দখলমুক্ত করতে ‘অ্যাকশনে’ নেমেছেন আতিকুলঅবৈধ সামগ্রী অপসারণ করে রাজধানীর ফুটপাত দখলমুক্ত করতে ‘অ্যাকশনে’ নেমেছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। ‘স্পট নিলাম’র মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে বিক্রি করছেন ফুটপাত। সবাইকে সতর্ক করে বলছেন, যারা ফুটপাত দখল করছেন তাদের জন্য এটা একটা ‘মেসেজ’।  
সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) ফুটপাত থেকে অবৈধ মালামাল ও সামগ্রী অপসারণে অভিযান শুরু করে ডিএনসিসি।
দিনের শুরুতেই গুলশান এলাকায় অভিযানে নেতৃত্ব দেন স্বয়ং ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম। এ সময় অন্তত দুইটি স্থানে ফুটপাতে থাকা অবৈধ সামগ্রী ‘স্পট নিলাম’র ব্যবস্থা করেন তিনি।  শুরুতেই গুলশান-২ নম্বর এলাকার ৮৬ নম্বর রোডে অভিযানে যায় সিটি কর্পোরেশন। এসময় একটি নির্মাণাধীন ভবনের রড এবং অন্যান্য কিছু সামগ্রী ফুটপাতেই পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাৎক্ষণিকভাবে নিলামের ব্যবস্থা করা হয় সেগুলো।  
আনুমানিক ৭-৮ টন রড নিলামে তোলা হয়। মাহমুদ মোল্লা নামে এক ব্যক্তি ৪৯ হাজার টাকায় নিলামে সেগুলো কিনে নেন। এর সঙ্গে করযুক্ত হয় আরও প্রায় সাত হাজার টাকা। ঘটনাস্থলে সরকারি কাজে বাধা দেওয়ায় সাইট ইঞ্জিনিয়ার সাইদ মোহাম্মদ সিদ্দিকীকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
দ্বিতীয় পর্যায়ে ৮৮ নম্বর রোডে দলসমেত অভিযানে যান আতিকুল ইসলাম। সেখানে ফুটপাত এর ওপর শতাধিক ইট পড়ে থাকতে দেখেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে নিলাম করা হয় সেগুলোও। আট হাজার টাকায় এক ব্যক্তি কিনে নেন সেগুলো। সেখানেও সরকারি কাজে বাধা দিতে এলে সিভিল ইঞ্জিনিয়ার রিপন কুমারকে এক লাখ টাকা জরিমানা করে সিটি কর্পোরেশন।  
দুইটি স্পটে অভিযান শেষে এক ব্রিফিংয়ে ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ফুটপাতে কোন নির্মাণসামগ্রী রাখা যাবে না। ফুটপাতে নির্মাণসামগ্রী রেখে কেউ ব্যবসা করতে পারবেন না, সে যতই প্রভাবশালী হোক। দেখে মনে হয় এটা যেন তাদের বাপ-দাদার রাস্তা! কিন্তু এই শহর আমাদের সবার। এই শহর থেকে আমাদের জীবিকা হয়। এখানে আপনারা ব্যবসা করছেন। কেউ আবাসিক ভবনের ব্যবসা করছেন কেউ কমের্সিয়াল ব্যবসা করছেন। সেটা করতে পারেন। কিন্তু ফুটপাতে কিছু রেখে ব্যবসা করা যাবে না। ফুটপাতে কিছু পাওয়া গেলে এভাবেই ‘স্পট নিলাম’ করা হবে। এ ধরনের অভিযান ‘স্পট নিলাম’ শহরের অন্যান্যদের জন্য একটি ‘স্ট্রং মেসেজ’ বলেও মন্তব্য করেন আতিকুল ইসলাম।  
এদিকে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন আওতাধীন বিভিন্ন এলাকায় দিনভর অভিযান পরিচালনা করছে সিটি কর্পোরেশন। এ সময় ফুটপাতে কোন অবৈধ সামগ্রী ও মালামাল পাওয়া গেলে ‘স্পট নিলাম’ করা হবে বলেও জানিয়েছে সংস্থাটি।  



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft