বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা
পেট্রাপোলে প্রবেশের অপেক্ষায় থাকা ট্রাকের অর্ধেক পিঁয়াজ পঁচে গেছে
মুসলিম উদ্দীন পাপ্পু, বেনাপোল
Published : Thursday, 24 September, 2020 at 11:36 PM

পেট্রাপোলে প্রবেশের অপেক্ষায় থাকা
 ট্রাকের অর্ধেক পিঁয়াজ পঁচে গেছেএগারো দিন ধরে ভারতের পেট্রাপোলে অপেক্ষমাণ ট্রাকে থাকা পিঁয়াজের বেশকিছু পঁচে গেছে। ভারতের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না হওয়ায় টানা ১১ দিন ধরে বেনাপোল বন্দর দিয়ে বন্ধ রয়েছে পিঁয়াজ আমদানি। ফলে,বেনাপোল বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় ভারতের পেট্রাপোলের বিভিন্ন বেসরকারি পার্কিং আর সড়কে পিঁয়াজবোঝাই বেশকিছু ট্রাক এখনো রয়েছে। এসব ট্রাকে থাকা পিঁয়াজের বেশিরভাগ নষ্ট হয়ে গেছে।
এদিকে, বাংলাদেশি আমদানিকারকরা তাদের ভারতীয় রপ্তানিকারক প্রতিনিধিদের মাধ্যমে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে পুরনো এলসির আটকেপড়া পিঁয়াজ ছাড় করার ব্যবস্থা করতে বার বার আবেদন করলেও এখনো পর্যন্ত সাড়া মেলেনি। ফলে, দেশে ভারত থেকে পিঁয়াজ আমদানি করা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।
পিঁয়াজ আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান শেখ ট্রেডার্সের শেখ মাহাবুব বলেন, প্রতিবছর পিঁয়াজ নিয়ে ঝামেলা হয়। ভারত কখনো উৎপাদন সংকট দেখিয়ে,আবার কখনো রপ্তানি মূল্য তিনগুণ বাড়িয়ে আমদানি বন্ধ করতে বাধ্য করে। এক্ষেত্রে সংকট মোকাবেলায় ভারত ছাড়াও বাইরের কিছু দেশের সাথে এই পণ্য আমদানি করতে বাণিজ্যিক সম্পর্ক জোরদার করা দরকার।
বেনাপোল আমদানি-রপ্তানি সমিতির সহসভাপতি আমিনুল হক আনু বলেন, তারা ভারতীয় ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে পিঁয়াজ রপ্তানি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আবেদন জানিয়েছেন। কিন্তু এখনো পর্যন্ত কোনো সাড়া পাওয়া যায় নি। ফলে বেনাপোল দিয়ে পিঁয়াজ আমদানি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।
আমদানিকারক রফিকুল ইসলাম রয়েল বলেন, বেনাপোল বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় ভারতের পেট্রাপোলে পার্কিংয়ে তাদের বেশকিছু ট্রাক পিঁয়াজ নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। অনেক ট্রাকের পিঁয়াজে পচন ধরেছে। নিষেধাজ্ঞার আগেই এসব ট্রাক বন্দর এলাকায় পৌঁছেছিল। দ্রুত এসব ট্রাক না ছাড়লে নতুন করে তারা লোকসানে পড়বেন।
বেনাপোল বন্দরের উপপরিচালক (ট্রাফিক) মামুন কবীর তরফদার জানান, কোনো পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই সংকট দেখিয়ে গত ১৪ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে পিঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় ভারত। এ পর্যন্ত পিঁয়াজের কোনো ট্রাক ঢুকতে দেয়নি ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। দেবে কিনা তাও নিশ্চিত করতে পারেনি।
তবে,পিঁয়াজ আমদানি বন্ধ থাকলেও বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দরের মধ্যে অন্যান্য পণ্য স্বাভাবিক রয়েছে।
গত ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দশদিনে ভারত থেকে আমদানি হয়েছে বিভিন্ন ধরনের দু’ হাজার পাঁচশ’ ৪৪ ট্রাক পণ্য। একই সময়ে ভারতে বাংলাদেশি পণ্য রপ্তানি হয়েছে এক হাজার ২৭ ট্রাক। এসব পণ্যের মধ্যে ৬৭ ট্রাক ছিল ইলিশ। দুর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছার নিদর্শনস্বরূপ বাংলাদেশ স্বল্পদামে ইলিশ দিলেও পিঁয়াজ দিচ্ছে না ভারত।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft