বুধবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
সারাদেশ
স্মার্ট লাইসেন্স সিস্টেমের আওতায় রাজশাহী
রাজশাহী ব্যুরো :
Published : Saturday, 26 September, 2020 at 2:40 PM
স্মার্ট লাইসেন্স সিস্টেমের আওতায় রাজশাহীস্মার্ট লাইসেন্স ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের আওতায় এলো রাজশাহী। প্রথমবারের মতাে রাজশাহী জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ফায়ার আর্মস (আগ্নেয়াস্ত্র) ও ডিলিং লাইসেন্সের স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হয়েছে।
শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় রাজশাহী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহীর বিভাগীয় কমিশনার মো. হুমায়ুন কবীর খােন্দকার।
অনুষ্ঠানে জেলার ২০ জন বিশিষ্ট ব্যক্তির মাঝে ১০টি ফায়ার আর্মসের স্মার্ট কার্ড ও ১০টি ডিলিং লাইসেন্সের (ব্যবসায়ীদের জন্য) স্মার্ট কার্ড বিতরণ করা হয়।
আগ্নেয়াস্ত্রসহ সকল প্রকার ডিলিং লাইসেন্সের জন্য অনলাইনে আবেদন, অনলাইনে ফি জমা দেওয়া এবং সুরক্ষা বৈশিষ্ট্যযুক্ত স্মার্ট কার্ড প্রদান করার ওয়ান স্টপ সার্ভিস (ওএমএস) প্লাটফর্ম হলো স্মার্ট লাইসেন্স ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম।
সেবা প্রার্থীরা ঘরে বসেই পাের্টাল ব্যবহার করে অনলাইনের মাধ্যমে লাইসেন্সের আবেদন, ফি জমাদান, তথ্য আদানপ্রদান করতে পারবেন। নকল প্রতিরােধে স্মার্ট কার্ড লাইসেন্সটিতে ১৮ ধরনের নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্য যুক্ত করা হয়েছে।
লাইসেন্সের বিভিন্ন তথ্য তাৎক্ষণিক যাচাইয়ের জন্য একটি মােবাইল অ্যাপস ও একটি বিশেষায়িত ডিভাইস ব্যবহার করা হবে। যার মাধ্যমে লাইসেন্স গ্রহীতার এনআইডি নম্বর, লাইসেন্স নম্বর, আঙুলের ছাপসহ ৭ ধরনের তথ্য ব্যবহার করে তাৎক্ষণিক যাচাই করা যাবে। কোনো লাইসেন্সধারীর স্মার্ট কার্ডের বিষয়ে সন্দেহ হলে শুধু তার আঙুলের ছাপ যাচাইয়ের মাধ্যমে লাইসেন্স যাচাই করা যাবে।
অনুষ্ঠানে রাজশাহীর বিভাগীয় কমিশনার মো. হুমায়ুন কবীর খােন্দকার বলেন, স্মার্ট লাইসেন্স ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম কার্যক্রমটি বর্তমান সরকারের 'ভিশন ২০২১' তথা ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের পথে একটি মাইলফলক। কাগুজে লাইসেন্সের পরিবর্তে বায়ােমেট্রিক সিকিউরিটিসহ অন্যান্য বিশেষ নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্য সম্বলিত স্মার্ট কার্ড নাগরিক সেবা বৃদ্ধি করবে।
তিনি আরও বলেন, আধুনিক স্মার্ট সলিউশন ও আগ্নেয়াস্ত্রসহ সকল প্রকার লাইসেন্সের তথ্য এক ঠিকানাতেই পাওয়া যাবে। ফলে ভুয়া লাইসেন্সের ব্যবহার বন্ধ হয়ে যাবে এবং সরকারের রাজস্ব আয়ও বৃদ্ধি পাবে। অপরাধ দমন, রাষ্ট্রীয় জননিরাপত্তা বিধান সামাজিক শৃঙ্খলা রক্ষা ও ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসারে এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।
রাজশাহীর জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে সরকারি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এ সিস্টেমটি সম্পূর্ণভাবে বাস্তবায়ন করা হলে সেবা প্রার্থীদের হয়রানি ও ভােগান্তি কমবে এবং কম সময় লাগবে।
অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ও রাজশাহী জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft