বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ, ২০২১
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
খুলনার গল্লামারী-জিরোপয়েন্ট দৃষ্টিনন্দন করা হচ্ছে
কাগজ ডেস্ক :
Published : Thursday, 1 October, 2020 at 3:48 PM
খুলনার গল্লামারী-জিরোপয়েন্ট দৃষ্টিনন্দন করা হচ্ছেখুলনার ময়লাপোতা থেকে জিরোপয়েন্ট পর্যন্ত মহাসড়কটি চারলেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের গল্লামারী থেকে জিরোপয়েন্ট অংশ দৃষ্টিনন্দন করা হচ্ছে।
বিশেষ করে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের অংশে সড়কের উভয়পাশে ওয়াকওয়ে, সার্ভিস রোড এবং একটি ফুটওভারব্রিজ অন্তর্ভূক্তির প্রস্তাব করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।
সম্প্রতি সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বরাবর প্রস্তাবটি প্রেরণ করা হয়।  সড়ক ও জনপথ বিভাগ এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে।
খুবি কর্তৃপক্ষের তৈরিকৃত থিম্যাটিক ডিজাইনে দেখা যায়, সড়কটির বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের অংশের প্রায় দেড়শ ফুট চওড়া সড়কের প্রতি দুই লেনে ত্রিশ ফুট করে ষাট ফুট প্রশস্ত রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে।  মাঝখানে দশ ফুট আইল্যান্ড, উভয় পাশে পনের ফুট করে সার্ভিস রোড এবং দশ ফুট প্রশস্ত মাস্টার ড্রেনসহ দৃষ্টিনন্দন ওয়াকওয়ের দৃশ্য রয়েছে।  এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে রাস্তা পারাপারের জন্য একটি ফুটওভার ব্রিজের দৃশ্য রয়েছে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ ও প্রকাশনা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক এস এম আতিয়ার রহমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের সার্ভিস রোড দিয়ে রিকশা-ভ্যান চলার সুযোগ থাকবে।  ফলে মূল চারলেন সড়কে দুর্ঘটনার আশঙ্কা থাকবে না।
তিনি বলেন, সড়কের আইল্যান্ড দশ ফুট প্রশস্ত রাখা এবং সার্ভিস রোড পনের ফিট রাখার যৌক্তিকতা হচ্ছে ভবিষ্যতে গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটি যাতে ছয় লেন বা আট লেন করার সুযোগ থাকে এবং উড়াল সড়ক করার ক্ষেত্রেও কোনো প্রতিবন্ধকতা না হয়।
এদিকে খুবি উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান স্বাক্ষরিত প্রস্তাবে উল্লেখ করা হয়, এই প্রকল্পেরই অন্তর্ভূক্ত গল্লামারী থেকে জিরোপয়েন্ট পর্যন্ত এক কিলোমিটার অংশে রয়েছে মহান মুক্তিযুদ্ধের বধ্যভূমি।  খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় এবং গল্লামারীতে নির্মিত মহান স্বাধীনতার স্মৃতিসৌধটিও এই মহাসড়কের পাশে অবস্থিত।  খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭ হাজার শিক্ষার্থী ও সহস্রাধিক শিক্ষক, কর্মকতা-কর্মচারি এবং হাজার হাজার সাধারণ মানুষ খুলনা শহরে প্রবেশের আগে মহাসড়কের এ অংশ ব্যবহার করেন।  নানা ধরনের অসংখ্য যানবাহনও এ মহাসড়কে চলাচল করে।  ফলে ব্যস্ততম এ মহাসড়কটির জিরোপয়েন্ট থেকে গল্লামারী এক কিলোমিটার চারলেন করার পাশাপাশি এর উভয় পাশে সার্ভিস রোডসহ দৃষ্টিনন্দন ওয়াকওয়ে এবং খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেইনগেটের আশপাশে শিক্ষার্থী ও সাধারণের নিরাপদ পারাপারের জন্য একটি ফুটওভার ব্রিজের অত্যন্ত প্রয়োজন।  বিষয়টি খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (কেডিএ) ডিটেইল্ড এরিয়া ডেভলপমেন্ট প্লানেও (ডিএডিপি) অন্তর্ভূক্ত রয়েছে। 



আরও খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft