বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর, ২০২০
আন্তর্জাতিক সংবাদ
কংগ্রেস নেতা রাহুল-প্রিয়াঙ্কা আটক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Thursday, 1 October, 2020 at 6:49 PM
কংগ্রেস নেতা রাহুল-প্রিয়াঙ্কা আটকদিল্লি-উত্তরপ্রদেশ মহাসড়কে নাটকীয় ঘটনার পর গ্রেপ্তার হলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভদ্রা। উত্তরপ্রদেশের হাথরাসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণে নিহত তরুণীর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার পথে পুলিশের হাতে আটক হন দেশটির বিরোধী দল কংগ্রেসের নেতা রাহুল গান্ধী ও তার বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। সরকারি বিধিমালা লঙ্ঘন করে বৃহৎ জনসমাবেশ করায় তাদের আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।
এসময় জনসমাবেশে নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গের অভিযোগে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ তথ্য জানায়।
গত মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) গণধর্ষণের শিকার ওই তরুণীর মৃত্যু হয়। রাতের আঁধারে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ ওই তরুণীর মরদেহ দাহ করতে বাধ্য করেছে, এমন একটি খবর ছড়িয়ে পড়লে দেশজুড়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।
রাহুল গান্ধী অভিযোগ করে বলেন, দিল্লি থেকে উত্তরপ্রদেশে ওই তরুণীর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার সময় উত্তরপ্রদেশ পুলিশ গতিরোধ করে গাড়িবহর আটকে দেয়। এ ঘটনার প্রতিবাদে দলের নেতাকর্মীরা রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে।
কংগ্রেসের এই নেতা এক টুইট বার্তায় পুলিশের লাঠিচার্জের শিকার হয়েছেন বলে জানিয়েছেন। একই সঙ্গে পুলিশ সদস্যরা তাকে ধাক্কা মেরে মাটিতে ফেলে দিয়েছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এক ভিডিওতে দেখা যায়, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী পুলিশের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়েছেন। ভিডিওতে পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্যে রাহুল গান্ধীকে বলতে শোনা যায়, আমাকে কেন আটক করছেন? আমাকে আটকের কারণ কি? গণমাধ্যমের কাছে পরিষ্কার করুন।
রাহুল-প্রিয়াঙ্কা আগেই ঘোষণা করেছিলেন হাথরসে যাওয়ার কথা। কিন্তু বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশে ১৪৪ ধারা জারি করে প্রশাসন।
আনন্দবাজার জানায়, তারপরও কর্মসূচি বাতিল করেননি কংগ্রেস নেতারা। রাহুল-প্রিয়াঙ্কা দলের গাড়ি আটকে দেওয়া হলে উত্তরপ্রদেশ-দিল্লি মহাসড়ক ধরে হাঁটতে শুরু করেন তারা। তাদের যেখানে আটকানো হয়, সেখান থেকে হাথরসের দূরত্ব প্রায় ১৪০ কিলোমিটার। সেখান থেকে কিছুদূর এগোনোর পরই তাদের আটকায় পুলিশ। শুরু হয় ধস্তাধস্তি। এসময় রাহুলকে গলাধাক্কা দিতেও দেখা যায় পুলিশকে। পরে তিনি গ্রেপ্তার হন।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft