সোমবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২১
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
তদন্ত কর্মকর্তার তালবাহানা
বিজয়নগরের অপহৃত মাদ্রাসা ছাত্রী উদ্ধার হয়নি, রেকর্ড হয়নি মামলা
কাগজ সংবাদ
Published : Thursday, 8 October, 2020 at 8:48 PM
বিজয়নগরের অপহৃত মাদ্রাসা ছাত্রী
উদ্ধার হয়নি, রেকর্ড হয়নি মামলাযশোরের বিজয়নগরে মাদ্রাসা ছাত্রী অপহরণের অভিযোগ দেয়ার পর ২০ দিনেও উদ্ধার হয়নি। এমনকি মামলাটিও রেকর্ড করা হয়নি। ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবা মেয়ে উদ্ধারের জন্য বিভিন্ন মহলে ধর্না দিচ্ছেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তার কাছ থেকে সহযোগিতা পাচ্ছেন না বলেও অভিযোগ করেন তিনি। নানা তালবাহানা করছেন তিনি।
বিজয়নগরের ওই বাবা জানিয়েছেন, গত ১৮ সেপ্টেম্বর তার মাদ্রাসা পড়ুয়া ১৩ বছরের মেয়ে অপহরণের ব্যাপারে তিনি যশোর কোতোয়ালি থানায় অভিযোগ করেন। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, বিজয় নগরের আব্বাস উদ্দিনের ছেলে রাসেল হোসেন তার মেয়ের মাদ্রাসায় যাওয়া-আসার পথে উত্যক্ত করত। মেয়ে তার নানা খারাপ প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় হুমকি দিত। এ নিয়ে রাসেলের পরিবারের কাছে অভিযোগ করা হলে সে না শুধরে উল্টো উত্যক্ত করা বাড়িয়ে দেয়। এরই একপর্যায়ে ১৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রতিবেশি ফটিক মৃধার বাড়ির সামনে থেকে মাইক্রোযোগে তার মেয়েকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। তার সাথে একই গ্রামের ইসহক মোল্লার ছেলে মুকুল, সিরাজ মোল্লার ছেলে  সরুজ, মৃত নওয়াব মোল্লার ছেলে হাশেম মোল্লা ও আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে জিল্লুর রহমান জড়িত। ওই অভিযোগে রাসেলের বাবা আব্বাস উদ্দিনকেও অভিযুক্ত করা হয়েছে।
অভিযোগ তদন্তের জন্য থানার অফিসার ইনচার্জ এসআই লিটনকে দায়িত্ব দেন। কিন্তু তিনি তদন্তের নামে আসামি পক্ষ নিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবা। এসআই লিটন ও এএসআই নজরুল এলাকায় তদন্তে গেলেও অদ্যাবধি কোনো ব্যবস্থা নেননি। উদ্ধার করা হয়নি তার মেয়েকে। এমনকি মামলটিও রেকর্ড করা হয়নি। গ্রামের কাগজ দপ্তরে এসে কান্নায় ভেঙে পড়েন ওই বাবা। তিনি জানান, তার মেয়ের বয়স মাত্র ১৩ বছর। তাকে আটকিয়ে রাখা হয়েছে। আর অভিযোগ করেও তিনি কোনো সুরাহা পাননি গত ২০ দিনেও।
এ ব্যাপারে অভিযোগ তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই লিটন জানিয়েছেন, তদন্ত চলছে। মেয়ের বাবার সাথে অভিযুক্ত পক্ষের আলোচনা চলছিল মিমাংসার। স্থানীয়ভাবে মিমাংসা হওয়ার ব্যাপারে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিও উদ্যাগ নেন। যে কারণে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। তবে মিমাংসা না হলে তদন্তে প্রাপ্ত তথ্য তিনি সিনিয়র অফিসারকে জানাবেন। তারা ব্যবস্থা নেবেন।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft