বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
খুব জানতি ইচ্চে করে!
Published : Tuesday, 20 October, 2020 at 9:31 PM
খুব জানতি ইচ্চে করে!কুটিকালতে পইড়ে আসতিচি রুগিডা মরার পর ডাক্তার আইসলো। মইরে যাওয়ার পর ডাক্তার আসার কারনডা আজো জানতি পাল্লাম না! সারাজীবন সিনেমায় দেইকে আসলাম মারামারি হইয়ে যাওয়ার পর যকন নায়কের হাতে ডলা খাইয়ে ভিলেন পাটায় পড়ে, তারপরই পুলিশ আসে। সব ঝুনঝাট মিইটে যাওয়ার পর পুলিশ আসার ফ্যারাডা আইজও বুজি আইসলো না। একন চারিদিকি হরহামেশা এই জিনুসই দেকতিচি।
দুর্ঘটনার পর জানা যায় গাড়িডার ফিটনেস ছিলো না, ভুল চিকিসসের পর জানা যায় ক্লিনিকির লাইসেন ছিলো না, আগুন লাইগে পুইড়ে হুড়া হওয়ার পর অথবা হুড়মুড় কইরে ভাইঙ্গে যাওয়ার পর জানা যায় ভবনের নকশায় ত্রুটি ছিলো, ঘের খাওয়ার পর জানা যায় কম্মকত্তা দুন্নীতিবাজ ছিলো। পুলিশির হাতে ঘের খাওয়ার পর জানা যায় নিতার হ্যাতো টাকার উসসো ক্যাসিনো। পিপার পত্রিকার আর ফেসবুক ভাইসে যাওয়ার পর জানা যায় করোনা টেসের নাম কইরে ভুয়ো সাট্টিফেট দিয়া হচ্চে। টেরেনে কাইটে মরার পর জানা যায় রেলরাস্তায় গেট আর গেটম্যান জরুলী। আটদশটা খুন হওয়ার পর অস্তরধারী তলাশে মাটে ওলে আইন শৃংখলা রক্কেকারী বাহিনী, ছিনতেই হওয়ার পর জানা যায় এলেকায় উটতি বয়সীগের পালসার বাহিনী আচে। ফেসবুক আর ম্যাসেনজারে তলশুড়া ভিডিও আসার পর জানা যায় যাগের আমরা ধুয়া তুলশী পাতা মনে কত্তাম, তারা মজি মজি এই খাইন বাদায়েচে। হাতুড়ির বাড়ি খাওয়ার পর জানা যায় বেপরোয়া হইয়ে ওটচে হাতুড়ি বাহিনী। সরকারি কিম্বা পরের জাগা দকল করার পর জানা যায় বিটাডা জমি দকলকারী। কেলেংকারী ফাঁস হওয়ার পর জানা যায় পদ পদবী বাগায় নিতি কি কুকম্ম কইরেচে। সবকিচু জানা যায় ঘটনা ঘইটে যাওয়ার পর। খাইন বাইদে যাওয়ার পর চারিদিকি হুটোপাটা বাইদে যায়। স¹লি গা ঝাড়া দিয়ে ওটে।
বড় বড় মানসির কতা শুনলি নো পিশার হাই হইয়ে যায়। কিন্তুক মুক্কু সুক্কু মানুস হিসেবে এট্টা জিনুস বুজি আসে না। ঘটার পরই যদি সব জানা যাবে তালি এই সব দেকাশুনো করার জন্যি যাগের রাকা হইয়েচে তাগের কাজডা কি? আমি খেড়িখুদা মানুস, জানতি গেলি হয়তো কতি পারে আদার ব্যাপারী হইয়ে জাহাজের তলাশ কত্তি ক্যানো আইলে? তাই পোশ্নডা সুধীজনের কাচে রাকলাম।
ইতি-
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft