সোমবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২১
অর্থকড়ি
সুপারিতে ভাগ্য বদল রশিদ শেখের
গনেশ পাল, মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট)
Published : Tuesday, 27 October, 2020 at 1:48 PM
সুপারিতে ভাগ্য বদল রশিদ শেখেরসুপারির ফলনে ভাগ্যের চাকা ঘুরে গেলো কৃষক রশিদ শেখ (৫২) পরিবারের। নিজের এক বিঘা জমিতে পাঁচশ’ গাছ থেকে এ বছরে তিনি বিক্রি করেছেন পাঁচ লাখ টাকার সুপারি। এবার ফলন কম হলেও বাজার দর রয়েছে দ্বিগুন।
সরেজমিনে সোমবার বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জের রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের কামলা গ্রামে গেলে সফল সুপারি চাষি রশিদ শেখ জানান, তার পৈত্তিক জমি রয়েছে এক বিঘা। তার মধ্যে বসতবাড়ি ছাড়া বাকি জমিতে সুপারির বাগান। মাঠে নিজেদের কোনো জমি নেই, অপরের জমি বর্গা রেখে মাছ ও ধান চাষ করছেন। তবে মূল পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছেন সুপারি চাষ। বৃদ্ধ পিতা-মাতা, স্ত্রী, ছেলে মেয়েসহ ছয় সদস্যের পরিবার। নিজের আয়ের ওপর থেকে ছেলে মেয়েদের লেখা পড়া করানো হয়।
প্রতিবছর তার এ সুপারি বাগানে ফলন যে অনুপাতে হয় এ বছর হয়েছে তার অর্ধেক। তার পরও তিনি অনেক খুশি, হতাশ হয়নি। বাজার দর রয়েছে দ্বিগুন। গত বছরে যে সুপারির কুড়ি বিক্রি হয়েছে দুশ’ ৭০ থেকে তিনশ’ টাকা এ বছরে তা বিক্রি হচ্ছে চারশ’ থেকে পাঁচশ’ টাকা দরে। এ বছর দু’ হাজারেরও বেশি সুপারি বিক্রি করছেন তিনি। উপার্জন করেছেন পাঁচ লাখ টাকা। তিনি একজন সফল চাষি হিসেবে সুপারি বাগানে চাষাবাদের জন্যে যুব সমাজকে এগিয়ে আসতে অনুরোধ জানান। 
এদিকে, খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নের মধ্যে এ বছরে বেশি সুপারি ফলন হয়েছে। চিংড়াখালী, রামচন্দ্রপুর, বনগ্রাম, হোগলাপাশা ও খাউলিয়া ইউনিয়নে। ইতিমধ্যে এসব ইউনিয়নে ছোট-বড় বিভিন্ন হাট বাজারে সুপারি বিক্রি জমে উঠেছে। বিশেষ করে রংপুর, গাইবান্ধা, জেলা থেকে এসে আড়ৎদাররা সুপারি কিনে নিয়ে যাচ্ছেন ট্রাকযোগে। বাজার দর ভালো পাওয়ায় তারা কিনতে আগ্রহী হচ্ছেন। চাষিরাও পাচ্ছেন চড়া মূল্য।
এ সর্ম্পকে মোরেলগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ সিফাত আল মারুফ বলেন, এ উপজেলায় সাড়ে ছয়শ’ হেক্টর জমিতে এ বছর সুপারির ফলন হয়েছে। অন্যসব বছরের চেয়ে ফলন একটু কম হলেও ভালো দাম পাচ্ছেন চাষিরা। দাম বৃদ্ধি হওয়ায় চাষিরা পরবর্তীতে সুপারি চাষাবাদে আগ্রহ বাড়াবে বলে তিনি মনে করেন। 



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft