মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
চোক কান এট্টু খুলা না রাকলিই সাড়ে সব্বরাশ!
Published : Thursday, 29 October, 2020 at 9:07 PM
চোক কান এট্টু খুলা না রাকলিই সাড়ে সব্বরাশ! ইরাম এক সুমায় ছিলো বহুত কিচুর মানবিচ ছিলো। একন কোন কিচুর বালাই নেই। কিডা মাতব্বর, কিডা কইলেমান বুজার জো নেই! আগে আমরা বড়গের দেকলি সাইকেলতে লাইবে সালাম দিচি। আর একন মুকির ওপর সিগারেটের ধুমো মাইরে চইলে যাচ্চে হাটুর বয়সী ছাবালরা। রাস্তাঘাটে এট্টু এট্টু ছাবাল মাইরে যে সব আচরণ কত্তেচে তাতে লজ্জায় চোক বুইজে থাকতি হচ্চে।
সেদিন এক দোস্ত কলে, পার্কে বেড়াতি যাইয়ে যদি দেকো কানাচিতি এট্টা ছাবাল আর এট্টা মাইয়ে গুচগুচ কত্তেচে তালি কি কইরে বুজবা ইরা পেমিক পেমিকা না বর বউ? আমি কলাম আনকা হলি বোজবে কি কইরে! দোস্ত কলে ইডা খুব সহজ। তুমারে আগোয় আসতি দেইকে যদি তারা লজ্জা পায় তালি উরা বর বউ। আর যদি তাগের কাজকম্ম দেইকে তুমি লজ্জা পাও তালি উরা পেমিক পেমিকা। আমিতো শুইনে থ’, কলাম কলেডা কি! দোস্ত কলে ঘটনা সত্যি, সিরিয়াল আর সিনেমায় দেইকে সব ছিলেপিলের সব পাইকে সারা। মুবাল কুম্পানীর সিমির অফারের মত একন পেম পিরিতীর প্যাকেজ বাইরো করেচে। ঘন্টা চুক্তি, একদিন, সাত দিন, পনের দিন, একমাস, তিন মাস ইরাম হরকোলি প্যাকেজ আচে। রাজি হলি এক চাপো, রাজি না থকলি দুই চাপো। রাজী হলি আবার শত্ত পোযোজ্য। ইশকুল কলেজ, বন্দুর বাড়ি, কোচিং, জরুলী কাজের উসলোত দিয়ে সব পার্কে, গাঙ কান্দায়, ঝোপঝাড়ে, আন্দারে রেস্তোরার কুনা কানচিতি সব ভুকচি মাইরে থাকচে। ইরা নিজিগের হ্যাতো চালাক মনে করে, যেন কেউ কিচু বোজেনা। তাগের ভাব দেকলি মনে হবে কেউ কৃষ্ণ কেউ রাদা, আর ধরা খালি কবে ও বুইন, আমি ওর দাদা। আগে আড়ালে আবডালে চালালিও একন এসব চোকির সুমকি চালায় যাচ্চে। কিচু কল্লি দোষ নেই কলিই যত দোষ। হুড়মুড় কইরে চারিদিকি যে খাইন বাইদে যাচ্চে সিডা যদি যার যার পরিবারেত্তে একনি চোকি পাহারা না দিয়া হয় তালি কিন্তুক কেলেংকারী ঘইটে গেলি পরে কাইন্দে লাভডা কি!  
আগে ছাবাল মাইয়ে কনে যায়, কার সাতে মেশে, এই সব তলাশ কত্তি হইতো। আর একন নেটে কি দেকে আর মুবালি কি রাকে সিডা তলাশ কল্লিও বহুত কিচুর খোঁজ মিইলে যায়। তাই চোক কান এট্টু খুলা না রাকলিই সাড়ে সব্বরাশ।
ইতি-
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩









সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft