রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ বলছে আত্মহত্যা
হয়রানী করতেই বৃদ্ধ বৃদ্ধাসহ খড়কীর ৭ জনের নামে মামলা
অভিজিৎ ব্যানার্জী
Published : Tuesday, 3 November, 2020 at 10:21 PM
হয়রানী করতেই বৃদ্ধ বৃদ্ধাসহ খড়কীর ৭ জনের নামে মামলাযশোর শহরের খড়কীতে শ^শুরালয়ে দরজার সিটকানি ভেঙে উদ্ধার করা শানতলার দাউদ হোসেনের ছেলে সুমনের লাশ প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ আত্মহত্যা বলেই ধারনা করে। একটি অপমৃত্যু মামলাও রেকর্ড হয় থানায়। পুলিশের কাছ থেকে লাশ বুঝে দাফনের কয়েকদিন পর হত্যার অভিযোগ তুলে আদালতে মামলা মা করেছেন। আর ওই মামলাটি সেরেফ হয়রানী ও অসৎ উদ্দেশ্যে করা হয়েছে বলে বিভিন্ন মহল থেকে তথ্য আসছে। মৃতের বৃদ্ধ এবং গুরুতর অসুস্থ শ^শুর শাশুড়িসহ ওই পরিবারের ৭ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলাটি বানোয়াট অভিযোগের উপর করা হয়েছে বলেও তথ্য মিলেছে।
শানতলার সুমন ছাত্রাবস্থায় ২০১৫ সালে খড়কীর রেজাউল করিম আলী রেজার মেয়ে শায়লা শারমিনকে বিয়ে করেন। আর বিয়ের পর থেকে শ^শুরালয়ে অবস্থান করেন। এর মধ্যে স্ত্রী শায়লা শারমিন কাজ নিয়ে দুবাই চলে যান। স্ত্রী দেশে না থাকা ও নিজের বাড়ি ছেড়ে শ^শুরালয়ে থাকায় নানা অস্বস্তিতে সময় পার করছিলেন সুমন। এরই এক পর্যায়ে গত ১৫ সেপ্টেম্বর সকালে তার লাশ উদ্ধার হয়। পুলিশ গিয়ে ঘরের দরজার সিটকানি ভেঙে লাশ উদ্ধার করে। পুলিশ সুরোতহাল প্রতিবেদনও তৈরি করে। শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন না পাওয়ায় অপমৃত্যু মামলা করা হয়। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ ধারণা করে এটি একটি আত্মহত্যার ঘটনা।
এদিকে আত্মহত্যা পরিস্কার হয়েও সুমনের পরিবার তার শ^শুর  পক্ষের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতানোর হীনমানসে হত্যার অভিযোগ তুলতে থাকে। ঘটনার দেড় মাস পর আদালতে মামরা ঠুকে দেন হত্যার অভিযোগ তুলে। সুমনের মা রেবেকা সুলতানা অভিযোগ তোলেন, তার ছেলেকে ১৪ সেপ্টেম্বর রাতের যে কোনো সময়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। হত্যায়   ছেলের শ^শুর রেজাউল করিম আলী রেজা (৬০),  শাশুড়ি  শিরিনা বেগম  শিরিন রেজা (৫৫),  শালা ঝন্টু, মন্টু, ঝন্টুর স্ত্রী শিউলী বেগম, মন্টুর স্ত্রী ডলি বেগম ও মৃত সুমনের স্ত্রী শায়লা শারমিন হত্যায় জড়িত। কিন্তু মামলাটি একেবারে মিথ্যা অভিযোগে ভরা বলে দাবি স্থানীয়দের। কেননা শ’শ’ মানুষের সামনে পুলিশ দরজার সিটাকানি ভেঙে লাশ উদ্ধার করে। এলাকাবাসী বলছেন, সম্পূর্ণ হীনমানসে উদ্ভট এবং কাল্পনিক সব অভিযোগ তুলে এ মামলা করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে লাশ উদ্ধারের সময় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা অফিসার এসআই সেকেন্দার গ্রামের কাগজকে জানিয়েছেন, প্রাথমিক তদন্তে ধারণা করা হচ্ছে সুমন আত্মহত্যা করেছে। এছাড়া তার শরীরে কোনো আঘতের প্রমাণ মেলেনে। এরপরও ময়নাতদন্ত রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত পরিস্কার বলা যাবে না।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft