সোমবার, ১০ মে, ২০২১
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
নৌ-পুলিশের অভিযান
সুন্দরবনের বনদস্যু খান বাহিনীর হাত থেকে ৫ জেলে উদ্ধার
আকবর কবীর, শ্যামনগর (সাতক্ষীরা) থেকে নিজস্ব প্রতিনিধি
Published : Sunday, 8 November, 2020 at 3:03 PM
সুন্দরবনের বনদস্যু খান বাহিনীর হাত থেকে ৫ জেলে উদ্ধার ভেটখালী রায়নগর নৌ-পুলিশের অভিযানে সুন্দরবনের বনদস্যু খান বাহিনীর হাত থেকে  ৫ জেলে উদ্ধার হয়েছে। গত ৬ নভেম্বর ভেটখালী রায়নগর নৌ-পলিশের অফিসার ইনচার্জ আক্কাস আলী সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে দক্ষিন তালপট্টীর হলদেবুনিয়ার আমড়াতলীর খালে পরিত্যক্ত বন বিভাগের অফিসে অবস্থানরত বনদস্যু খান বাহিনীর হাত থেকে অপহৃত ৫ জেলেকে উদ্ধার করেন। 
অপহৃত জেলেরা হলেন, শ্যামনগর উপজেলার কৈখালী ইউনিয়নের পূর্ব কৈখালী গ্রামের জয়নাল গাজীর পুত্র বুলবুল গাজী (৩২), কৈখালী গ্রামের মৃত্যু আবুল কাশেম মোড়লের পুত্র ফজলুল রহমান (৪৫), আব্দুল মজিদ গাজীর পুত্র রেজাউল ইসলাম (৩৮), হাফিজুর রহমান (৩২), আব্দুল মজিদ কাগুচীর পুত্র আহম্মাদ কাগুচী (৪০)। 
ভেটখালী রায়নগর নৌ-পুলিশের অফিসার ইনচার্জ আক্কাস আলী জানান, গত ৬ নভেম্বর  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দক্ষিন তালপট্টীর হলদেবুনিয়ার আমড়াতলীর খালে পরিত্যাক্ত বনবিভাগের অফিসে অভিযান পরিচালনা করি।তাদের অবস্থান বুঝতে পেরে বনদস্যু খান বাহিনী ৫ জন অপহৃত জেলে এবং তাদের ব্যবহৃত নৌকা রেখে গহীন সুন্দরবনে পালিয়ে যায়। পরিত্যক্ত অফিসের মধ্যে প্রবেশ করে দেখি তারা সেখানে অজানা আতঙ্কে সময় কাটাচ্ছে।  বিভিন্ন জায়গা থেকে জেলেদের অপহরন করে এই পরিত্যাক্ত অফিসে মুক্তিপনের দাবীতে খান বাহিনী আটকে রাখতো। উদ্ধারকৃত জেলেদের  শনিবার রাতেই তাদের স্বজনদের কাছে ফেরত দেয়া হয়।
উদ্ধার অভিযান শেষে ওই এলাকায় পুলিশের প্রবেশ নিয়ে বিজিবি ও পুলিশের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয় বলে জানা গেছে। 
এ ব্যাপারে নৌ-পুলিশের খুলনা পুলিশ সুপার  জিয়াউদ্দীন বলেন, বর্ডারের ৫ কি:মি: ভিতরে প্রবেশ করতে অনুমতির প্রয়োজন আছে কি না আমার জানা নাই। তবে কোন অপরাধীকে ধরতে কোন অনুমতি লাগে বলে আমার মনে হয় না।নীলডুমুর ১৭ বিজিবি রিভারাইন সিও লে: কর্নেল মিল্টন কবীর বলেন, নিয়ম অনুযায়ী বর্ডারের ৫ কি:মি: ভিতরে প্রবেশ করতে হলে বর্ডারগার্ডকে অবশ্যই অবগত করতে হবে। বর্ডারের কোন রকম বিপদ হলে দায়ভার নিতে হবে বিজিবিকে এইটা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ। 
বিজিবির কাছিকাটা ভাসমান ক্যাম্পের কমান্ডার নুর হোসেনের মোবাইল নেটওয়ার্কের বাইরে থাকায় তার মন্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। অপহৃত জেলেরা জানান, আমরা কৈখালী ফরেষ্ট থেকে বৈধ পারমিট নিয়ে গত ৫ নভেম্বর ২০২০ তারিখে সুন্দরবনের  অভয়ারন্য এলাকায় মাছ ধরতে প্রবেশ করি।  ভারতীয় জলদস্যু হলদেবুনিয়া থেকে মুক্তিপনের দাবিতে  খান বাহিনী পরিচয়ে আমাদের আটক করে। এ সময়ে তারা মাথা পিছু ১ লাখ টাকা মুক্তিপন দাবী করে। এবং  শারিরীক নির্যাতন করে। বনদস্যু খান বাহিনীর ৪ জন সদস্য। এদের কাছে ২টা বন্দুক, ১টি পিস্তল ও ১টি দা রয়েছে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft