সোমবার, ২৫ জানুয়ারি, ২০২১
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
লাভের মদ্দি নেই, হিসেবের মদ্দি আছি
Published : Monday, 9 November, 2020 at 10:22 PM
লাভের মদ্দি নেই, হিসেবের মদ্দি আছিদুইজন অত্থনীতিবিদির মদ্দি খুব দোস্তি। তাগের একজন মুরুব্বী আরাকজন ছুকরা। মুরুব্বীজন অভিজ্ঞ আর ছেলেছুকরাডা হালি কইরে পাশ কইরেচে। তারা দুইজন একজাগায় হলি তাগের আলোচুনার বিষয়বস্তু হয় অত্থনীতি। একদিন বৈকেলে তারা দুইজন হাটতি বাইরোচে। নানা কতা কতি কতি হটাস তাগের সুমকি এক খাবলা গবোর পইড়েচে। তাই দেইকে মুরুব্বীজন জুয়ানডারে কচ্চেন, তুমি যদি এই গবোর খাতি পার তেবে তুমারে একলক্ষ টাকা দেব। জুয়ান অত্থনীতিবিদ ভাবতেচে এই দুসসুমায়তি যদি এট্টু গবোর খাইয়ে এক লক্ষ টাকা বাগায় নিয়া যায় তালি ক্ষেতি কি! টকাস কইরে রাজি হইয়ে গেচে। পইড়ে থাকা গবোর খপাখপ খাইয়ে নেচে। জুয়ানডা বাজিতি জিইতে গেচে। কি আর করা বাইদ্য হইয়ে মুরুব্বী অত্থনীতিবিদ তার ঝুলায় থাকা একলক্ষ টাকা বাইরো কইরে দেচে। খানিকটে দুরি যাওয়ার পর পতে আবার আরাক খাবলা গবোর পইড়ে থাকতি দেইকে জুয়ানডা মুরুব্বীডারে কচ্চে আপনি যদি এই খাবলা গবোর খাতি পারেন তালি আপনারেও আমি একলক্ষ টাকা দেব। মুরুব্বীডা আগে একলক্ষ টাকা খ্যায় কইরে এমনিতি টাকার শোগে পরান পুইড়ে মরার কায়দা। ইরাম এট্টা দান পাইয়ে তিনি আর ছাড়বেন কেন। কওয়াও সারা খপাখপ গবোর খাওয়াও সারা। কি আর করা এত ভক্তি ভরে গবোর খাওয়া দেইকে জুয়ানডা এট্টু আগে জিতা একলক্ষ টাকা ফেরত দিয়ে দেচে।
খানিকটে পত হাটার পর জুয়ানডা মুরুব্বীডারে কচ্চে আচ্চা আমাগের দুইজনের অত্থনীতির অবস্তাতো যা ছিলো তাই ই আচে, কোন পরিবত্তন হয়নি। অতচ মাঝখান দিয়ে দুইজনেই গবোর খালাম। এ কতা শুইনে মুরুব্বী অত্থনীতিবিদ কচ্চেন কলি কি! কিডা কলে আমাগের মদ্দি অত্থনীতির কোন পরিবত্তন হয়নি। এট্টুক সুমায়’র মদ্দি দুইলক্ষ টাকার লেনদেন হইয়ে গ্যালো। এই সুমায়’র মদ্দি যদি দুইলক্ষ টাকা লেনদেন হয় তালি দিনি কত হচ্চে, মাসে কত হচ্চে, বচরে কত হচ্চে হিসেব কইরে ক’দিনি। ইরাম হারে অত্থনীতি সচল হলি চচ্চড় কইরে উন্নতি বুজিস কিচু?
আমাগের চারিদিকি ইরাম চ”চ্চড়ে উন্নতির কতা শুনি। নানান খাতের উন্নতির জন্যি হাজার হাজার কোটি টাকার বড় বড় পোজেট বাস্তবায়ন করা হয়। নিদ্দিষ্ট সুমায়’র মদ্দি এই টাকা হাত বদলও হয়। কিন্তুক আমরা যারা গাও গিরামের খাইটে খাওয়া মানুস আমাগের দশা ঐ গবোর খাওয়ার মতো। কোন লাভ নেই অকারনে খাইয়ে যাচ্চি।
ইতি-
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft