সোমবার, ২৫ জানুয়ারি, ২০২১
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
যে মারে সে ভুইলে যায়, যে মার খায় সে ভোলে না
Published : Saturday, 14 November, 2020 at 10:44 PM
যে মারে সে ভুইলে যায়, যে মার খায় সে ভোলে নাআগে ছিলো অটোগিরাফ, একন হইয়েচে ফটোগিরাফ। স¹লি চাই পিয়জনের সাতে এট্টা ফটক তুলতি। ইডাতো তো কোন অপরাদ না। তার যদি মিজাজ মজ্জি খাররা থাকে সিডা কলিই হইয়ে যায়, তুমার সাতে ছবি ছবি খেলবো না। কিন্তুক তাই বিলে আশাশুকি আইগোয় আসা এট্টা মানসির মুবাল কাইড়ে নিয়ে দিনদুপারে ঘরভত্তি মানসির সুমকি আছড়ায়ে ভাইঙ্গে ফেলাডা কোন ভদ্দরতার মদ্দি পড়ে কিনা সিডা সুধীজনের কাচে কোচ্চেন রাকলাম। যার মুবালডা ভাইঙ্গলো হয়ত আবার টাকা দিয়ে আরাট্টা মুবাল কিনতি পারবে। কিন্তুক সবার সুমকি বিয়াকুপ হইয়ে তার মনডা যে ভাইঙ্গলো, সিডা কি আর কিচু দিয়ে জুড়া লাগান যাবে? বিসসুদবার যশোরের বেনাপোল চেকপোস্টের প্যাসেঞ্জার টার্মিনালে এই খাইন বাইদেচে।
বেনাপোল বডার দিয়ে কইলকাতায় যাচ্চিলেন ক্রিকেটার সাকিব। টার্মিনালের মদ্দি আব্দুল মজিদ নামের এক ভক্ত আল্লাদে আটখান হইয়ে সাকিবের সাতে সেলফি তুলার জন্যি দৌইড়োয় গিলেন। সাকিব তখন বিরক্ত হইয়ে মজিদের ফোন তার হাতেত্তে কাইড়ে নিয়ে মাইজেয় আছাড় মারেন। আব্দুল মজিদ বিয়াকুপ হইয়ে কইয়েচেন, আমি সাকিবাল হাসানের একজন ভক্ত। সামনাসামনি তারে ককনো দেকিনি। চেকপোস্টে তারে দেইকে আর আবেগ সামলাতি পারিলাম না। তেবে বুজদি পারিনি আসলে আমাগের মত উমি লোকের উনাগের মতন নামিদামি মানসির সাতে ছবি তুলতি যাওয়াডা মানায় না।
বিটাডার এই কতাডা শুইনে জানের মদ্দি কাইন্দে দেলে। যকন দেশের খেলা হয়, তকন স¹লি জোন কামোয় কইরে খেলা দেকি। দল হাল্লি কিম্বা কেউ গুল্লা মাইরে আউট হলি তার হাতেত্তে তো ব্যাট কাইড়ে নিয়ে আমরা আছাড় মারিনে, তালি সেলপি তুলতি গেলি মুবালি কেন আছাড় দেবে? এত গুমোর কনতে আসে? মুরুব্বীরা কয়, বড় হতি গেলি সবদিকতেই বড় হতি হয়, যার শুদু একদিক বড়, তার দিমাগের কচনে টিকায় দুস্কর। কতাডা আবার সুমকি চইলে আইসলো। সেই সাতে চোকি ভাসচে মাশরাফী চাচার মুক। মনে পড়চে, খেলার মদ্দি একজন মাটে ঢুইকে গিলো, পুলিশ তারে দাবড়ায়লো মারার জন্যি। কিরাম কইরে মাশরাফী চাচা তারে বাচায় আনিলো।
ভালো খেলা করা জিনুস, আর ভালো মানুস হওয়া আরাক জিনুস।
ইতি-
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft