বুধবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
সম্পাদকীয়
করোনার লণ্ডভণ্ড হতে পারে অর্থনীতি
Published : Friday, 20 November, 2020 at 9:42 PM
করোনার লণ্ডভণ্ড হতে পারে অর্থনীতিসম্প্রতি পত্রিকান্তরে খবর বের হয়েছে, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা সংক্রমণের প্রথম পর্যায়ে দেশের অর্থনীতিতে যে ক্ষতি হয়েছে, দ্বিতীয় ঢেউয়ের আঘাতে তার চেয়ে বেশি ক্ষতি করতে পারে। তথা অর্থনীতি লণ্ডভণ্ড হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। অর্থনীতিবিদ ও ব্যবসায়ীরা বলছেন, শীত চলে যাওয়ার পর বাংলাদেশে শুরু হয়েছিল করোনার প্রথম পর্যায়ের  আক্রমণ। এ কারণে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হলেও বাংলাদেশের অর্থনীতিতে খুব বেশি ক্ষতি হয়নি। তবে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আঘাত মোকাবিলা করাটা কিছুটা কঠিন হবে বলে মন্তব্য করেছেন বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) নির্বাহী পরিচালক ড. আহসান এইচ মনসুর।
ড. আহসান বলেন, ‘করোনার প্রথম পর্যায়ে অর্থনীতিতে যে ধরনের ক্ষতি হয়েছে, দ্বিতীয় পর্যায়ে ক্ষতি আরও বাড়বে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আঘাতে অর্থনীতি লণ্ডভণ্ড হতে পারে।  কারণ, প্রথম পর্যায়ের চেয়ে দ্বিতীয় ঢেউ লম্বা ও দীর্ঘ সময় থাকার আশংকা রয়েছে।’ তিনি মনে করেন, বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি নিয়ে বিশ্বব্যাংক ও আইএমএফ যে প্রাক্কলন করেছে, বাস্তবে তার চেয়েও কম হবে। তার মতে, আগামী বছরের জুনের আগে ব্যবসা-বাণিজ্য স্বাভাবিক নাও হতে পারে। ড. আহসান এইচ মনসুরের মতোই করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আঘাতে অর্থনীতি আরও দুর্বল হয়ে পড়ার আশঙ্কা করেন বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান বিআইডিএসের গবেষক ড. জায়েদ বখত। তিনি বাংলা বলেন, ‘অর্থনীতি এখন যে অবস্থায় আছে, তার চেয়ে কিছুটা খারাপ তো হবেই। যেহেতু প্রত্যেক দেশ আবারও লকডাউনে যাচ্ছে। আগেরবার যেভাবে মৃত্যু হয়েছে, এবার সেভাবে যেনো মৃত্যু না হয়, বা মৃত্যু কমিয়ে আনার চেষ্টা করবে অধিকাংশ দেশ। ফলে এর প্রভাবও পড়বে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে। এতে আমাদের অর্থনীতি এখনকার চেয়ে আরও দুর্বল হবে।’
অবশ্য করোনার এই দুঃসময়ে গতিশীল ছিল দেশের অর্থনীতি। উদ্যোক্তাদের প্রচেষ্টা, শ্রমজীবী মানুষের পরিশ্রম ও সরকারের সহযোগিতা,- এই তিন শক্তি এক হওয়ায় অর্থনীতির চাকা স্বাভাবিক সময়ের চেয়েও জোরে  ঘুরছে। এক্ষেত্রে  সাহস জোগাচ্ছে গার্মেন্ট শ্রমিকদের কষ্টের বিনিময়ে অর্জিত রফতানি আয় এবং প্রবাসী শ্রমিকদের পাঠানো রেমিট্যান্স বা প্রবাসী আয়।  রেমিট্যান্স ও রফতানি আয় বাড়ার সুফল অর্থনীতির অন্যান্য খাতের সুবিধাভোগীরাও পাচ্ছেন। আমরা আশা করবো, দেশ এগিয়ে যাবে করোনা জয় করেই।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft