শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শৈলকুপা থেকে উদ্ধার হলো বিষধর কমন ক্রেইট
এম হাসান মুসা, শৈলকুপা (ঝিনাইদহ)
Published : Thursday, 26 November, 2020 at 1:26 PM
শৈলকুপা থেকে উদ্ধার হলো বিষধর কমন ক্রেইটদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে উদ্ধার করা সাপ থেকে ভেনম নিয়ে বাংলাদেশেই এন্টি ভেনম বানানো হচ্ছে, যেটা সরকারিভাবে ফ্রি দেয়া হবে। বুধবার রাতে ঝিনাইদহের শৈলকুপায় ধানখেতের মোটর হাউজে আটকা পড়া এশিয়ার বিষধর দু’টি কালাচ সাপ উদ্ধার করল চট্টগ্রামের ভেনম রিসার্চ সেন্টারের কর্মকর্তারা।
তারা জানান, সংগ্রহ করা বিষধর সাপের বিষ নিয়ে দেশেই বানানো হচ্ছে এন্টি ভেনম। বুধবার বিকেলে স্থানীয়রা এ সাপ দেখতে পাওয়া যায় ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার চতুড়া গ্রামের ধান খেতে অবস্থিত একটি মোটর হাউজে। এরপর শৈলকুপার স্থানীয় যুবক নেচার অ্যান্ড ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফার আবীর হাসান বিষয়টি জানান চট্টগ্রামের ভেনম রিসার্চ সেন্টারের কর্মকর্তাদের। তারা এসে সাপ দু’টি মোটর হাউজ থেকে উদ্ধার করেন।
জীববৈচিত্র নিয়ে কাজ করা ফটোগ্রাফার আবীর হাসান জানান, এ অঞ্চলে বিষধর কমন ক্রেইট প্রজাতির সাপ দেখতে পাওয়া যায়, এ সাপ এশিয়া মহাদেশের মধ্যে সর্বাধিক বিষধর সাপ বলে পরিচিত। স্থানীয়ভাবে এই সাপকে কালাচ বলা হয়। তবে ঝিনাইদহ অঞ্চলে এ সাপকে কাননবোড়া বলা হয়। গোখরা বা কিং কোবরার থেকেও বিষধর হয়ে থাকে এরা। শৈলকুপা থেকে উদ্ধার হলো বিষধর কমন ক্রেইট
ভেনম রিসার্চ সেন্টারের ট্রেইনার বোরহান বিশ্বাস জানান, কোবরা বিষধর হলেও তাদের একশ’ পার্সেন্ট কামড়ের মধ্যে আশি পার্সেন্ট কামড় হয়ে থাকে ফলস বাইট। অর্থাৎ বেশিরভাগ সময় আত্মরক্ষার্থে কামড় দেয় গোখরা, এতে বিষ ঢালে না। কিন্তু এই কালাচ বা কমন ক্রেইট সাপের শতভাগ কামড়েই বিষ ঢালে। তাদের কামড় সাধারণত টের পায় না আক্রান্ত ব্যাক্তি। কোনো ধরনের রক্তপাত বা জ্বালাপোড়া করে না। ফলে এই সাপের কামড়ে মানুষ দ্রুত মারা যায়। ঝিনাইদহ অঞ্চলে এই সাপের উপদ্রপ সবচেয়ে বেশি।
প্রায়ই শৈলকুপাসহ নানা এলাকায় মৃত্যু ঘটছে এ সাপের কামড়ে। এই জাতীয় সাপের ফনা থাকে না, দেখতে কালোর ওপরে সাদা রিং থাকে। রিংগুলো গলার নীচ থেকে লেজ পর্যন্ত হয়। এরা ইঁদুর বা খাবারের খোঁজে লোকালয়ে মানুষের ঘরে চলে আসে আর ঘুমন্ত মানুষ বেশি কামড়ের শিকার হয়। চট্ট্রগ্রামের এন্টি ভেনম প্রজেক্টের ভেনম রিসার্চ সেন্টারের ট্রেনার বোরহান বিশ্বাস রোমন আরও জানান, উদ্ধার করা সাপ থেকে ভেনম নিয়ে বাংলাদেশে এন্টি ভেনম বানানো হচ্ছে, যেটা সরকারিভাবে ফ্রি দেয়া হবে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft