মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২১
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
করোনার মধ্যেই ডেঙ্গুর হানা
এক দিনেই ২০ রোগী হাসপাতালে
কাগজ ডেস্ক
Published : Saturday, 28 November, 2020 at 12:06 AM
করোনার মধ্যেই ডেঙ্গুর হানাকরোনা মহামারির মধ্যেই দেখা দিয়েছে ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব। ২৪ ঘণ্টায় এডিস মশাবাহিত এ রোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন হাসপাতালে ২০ জন। এ নিয়ে বর্তমানে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত ৮২ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ রোগে আক্রান্ত হয়ে গত ২৫ নভেম্বর মারা গেছেন নড়াইল পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর বিশ্বাস।
হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সকাল ৮টার মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে ২০ জন ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ঢাকার অধিবাসী ১১ জন। অন্যরা বাইরের জেলা থেকে আসা।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্যমতে, দেশের সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে বর্তমানে ৮২ ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
ঢাকার ৪১টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৬৯ জন। ঢাকার বাইরের হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৩ জন।
সরকারি প্রতিবেদন অনুযায়ী, চলতি বছরে এখন পর্যন্ত এক হাজার একশ’ পাঁচজন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে এক হাজার ১৭ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।
রোগতত্ত¡, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) ডেঙ্গু সন্দেহে এখন পর্যন্ত ছয়টি মৃত্যুর তথ্য রয়েছে। আইইডিসিআর চারটি ঘটনার পর্যালোচনা সমাপ্ত করে তিনটি মৃত্যু ডেঙ্গুজনিত বলে নিশ্চিত করেছে। মৃতদের মধ্যে রয়েছেন নড়াইল পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর বিশ্বাস। ১৬ নভেম্বর তার শরীরে ডেঙ্গুজ্বর ধরা পড়ে। ১৭ নভেম্বর রাতে তাকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১৮ নভেম্বর সকালে তার রক্তের প্লাটিলেট ৪৪ হাজারে নেমে আসে। সে কারণে তাকে ওই দিনই হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় নিয়ে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। এক সপ্তাহ চিকিৎসাধীন থাকার পর ২৫ নভেম্বর তিনি মৃত্যুবরণ করেন।
স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনার প্রাদুর্ভাবের মধ্যেই ডেঙ্গু মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে। এ রোগের বাহক এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে যতি যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া না হয় তাহলে পরিস্থিতি গত বছরের মতো হতে পারে। যদি সেটা রোধ করা না যায় তাহলে চিকিৎসা সঙ্কটে পড়ে পরিস্থিতি ভয়াবহ হতে পারে। এজন্যে নগর কর্তৃপক্ষের কার্যকর পদক্ষেপের পাশাপাশি সাধারণ মানুষকেও সচেতন হতে হবে।
উল্লেখ্য, গত বছর দেশে ডেঙ্গুর ভয়াবহ প্রাদুর্ভাব দেখা দেয় এবং সরকারি তথ্য অনুযায়ী তখন দেশে একশ’ ৭৯ জন মারা যান।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft