শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি, ২০২১
ক্রীড়া সংবাদ
বোলারদের কল্যাণে চট্টগ্রামের জয়
ক্রীড়া ডেস্ক:
Published : Monday, 30 November, 2020 at 6:13 PM
বোলারদের কল্যাণে চট্টগ্রামের জয়টানা তৃতীয় জয়ের লক্ষ্যে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের বোলারদের হাতে ছিল ১৫১ রানের পুঁজি। দুই পেসার মোস্তাফিজুর রহমান ও শরীফুল ইসলামের তোপে ফরচুন বরিশালের ব্যাটসম্যানদের জন্য এটিই হয়ে যায় দুরূহ ব্যাপার।
এই দুই বাঁহাতি পেসারের তোপেই ১৫২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে পারেনি বরিশাল। আগের দুই ম্যাচে বেক্সিমকো ঢাকা ও জেমকন খুলনাকে যথাক্রমে ৮৮ ও ৮৬ রানে অলআউট করলেও, এবার চট্টগ্রামের বিপক্ষে ১৪১ রান করে ফেলেছে বরিশাল। এতে অবশ্য লাভ হয়নি কোনো। ম্যাচ শেষে ১০ রানের ব্যবধানে জয়টা পেয়েছে চট্টগ্রামই।
১৫২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় বরিশাল। শরীফুলের বলে কট এন্ড বোল্ড হয়ে ফেরেন মেহেদি মিরাজ ১৩ রানে।  তিন নম্বরে নেমে তিনি মোসাদ্দেকের বলে সৈকত আলীর হাতে ধরা পড়েন। তার আগে তিনি করেন ৩২ রান।
এর আগে ইনিংসের দলীয় ৫৯ রানের মাথায় ৩৬ রানের জুটির সমাপ্তি ঘটিয়ে মোস্তাফিজের করা প্রথম ওভারেই আউট হন পারভেজ ইমন, তার ব্যাট থেকে আসে দুই চারের মারে ১৬ বলে ১১ রান। তামিম-ইমন ফিরে যাওয়ার পরই মূলত ম্যাচ ঝুঁকে যায় চট্টগ্রামের দিকে।
তবু শেষ চেষ্টাটা করেছিলেন তৌহিদ হৃদয় ও আফিফ হোসেন ধ্রুব। কিন্তু তারা কেউই ম্যাচ জেতানোর মতো লম্বা সময় উইকেটে থাকতে পারেননি। সৌম্যর বোলিংয়ে খোঁচা মারতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ধরা পড়েন ১০ বলে ১৭ রান করা তৌহিদ এবং ২২ বলে ২৪ রান করা আফিফকে সোজা বোল্ড করে দেন শরীফুল।
এরপর স্রেফ বাকি ছিল আনুষ্ঠানিকতা। বরিশালের শেষ দুই স্বীকৃত ব্যাটসম্যান ইরফান শুক্কুর ও মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনকে আউট করে জয় নিশ্চিত করে দেন মোস্তাফিজ। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৪১ রানের বরিশাল, চট্টগ্রাম পায় ১০ রানের জয়।
বল হাতে চট্টগ্রামের দুই পেসারের ঝুলিতেই জমা পড়েছে ৩টি করে উইকেট। এর জন্য মোস্তাফিজ খরচ করেন ২২ ও শরীফুলের ৪ ওভারে যায় ২৭ রান। এর বাইরে সৌম্য ও মোসাদ্দেক নেন ১টি করে উইকেট।
এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের তৃতীয় ওভারেই সাজঘরে ফিরে যান সৌম্য ৫ রানে।  
ষষ্ঠ ওভারে পরপর চার ও ছয় হাঁকিয়ে সাজঘরের পথ ধরেন চট্টগ্রাম অধিনায়ক মিঠুন ১৭ রানে। লিটন দাস ৪ চারের মারে ২৫ বলে করেন ৩৫ রান। দলীয় ৯৬ রানের মাথায় ২৮ বলে ২৬ রান করে আউট হন শুভ।
দলকে হতাশ করে ৯ বলে মাত্র ২ রান নিয়ে সাজঘরে ফেরেন জিয়াউর রহমান। এরপর ইনিংসের বাকিটা সাজান মূলত সৈকত আলি। মোসাদ্দেক সৈকতের সঙ্গে মাত্র ১৮ বলে যোগ করেন ৪০ রান। আউট হওয়ার আগে সৈকত আলি করেন ২৭ রান। মোসাদ্দেকের ব্যাট থেকে আসে ২৮ রান।  
বল হাতে বরিশালের পক্ষে ২ উইকেট নেন আবু জায়েদ রাহী। এছাড়া সুমন খান, কামরুল রাব্বি, তাসকিন আহমেদ ও মেহেদি মিরাজের ঝুলিতে যায় ১টি করে উইকেট।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft