বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন, ২০২১
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
এবার স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীর প্রতারণার পাল্টা মামলা
কাগজ সংবাদ
Published : Thursday, 3 December, 2020 at 9:15 PM
এবার স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীর প্রতারণার পাল্টা মামলাযশোরে শিক্ষিকা স্ত্রী আসমা খাতুনের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে আদালতে পাল্টা মামলা করেছেন জেলা শিক্ষা অফিসের সহকারী পরিদর্শক হুমায়ুন কবীর। বৃহস্পতিবার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হুমায়ুন কবীর বাদী হয়ে এ মামলা করেন। বিচারক সাইফুদ্দীন হোসাইন মামলাটি তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) যশোরকে নির্দেশ দিয়েছেন। অভিযুক্ত স্ত্রী আসমা খাতুন ওরফে আসমা পারভীন শহরের খড়কি কবরস্থানের পাশের আবু সিদ্দিকীর মেয়ে এবং সদর উপজেলার বসুন্দিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা। আগামী বছরের ২৭ জানুয়ারি পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন বিচারক।
বাদী হুমায়ুন কবীর মামলায় উল্লেখ করেছেন, তিনি যশোর জেলা শিক্ষা অফিসের সহকারী পরিদর্শক পদে চাকরি করেন। ২০০৫ সালের ২৩ মে এক লাখ এক টাকা দেন মোহরে তাদের বিয়ে হয়। সংসারকালে আইমান কবীর (১৩) নামে একটি পুত্র সন্তান হয় তাদের। এরপর তারা খড়কি শাহ আব্দুল করিম রোডের মোস্তাফিজুর রহমানের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করেন। এরই মধ্যে স্ত্রী আসমার ভাইয়ের বাড়ির পাশে স্বামী-স্ত্রীর নামে জমি কিনে বসবাস করবেন বলে স্বামী হুমায়ুন কবীরকে বলেন। ২০০৭ সালের ১০ ডিসেম্বর হুমায়ুন কবীর তার স্ত্রীকে পাঁচ লাখ টাকা দেন। কিন্তু আসমা খাতুন প্রতারণামূলকভাবে নিজের নামে জমি রেজিস্ট্রি করেন। এরপর ওই জমিতে বাড়ি নির্মাণ করে না দিলে স্বামীকে তালাক দেয়াসহ নাবালক সন্তানকে হত্যার হুমকি দেন আসমা। ২০১২ সালের ১৮ অক্টোবর আবারো বিভিন্ন কায়দায় সাড়ে চার লাখ টাকা দেন স্ত্রী আসমাকে। এরপর আবারো স্বামীর কাছে ১০ লাখ টাকা দাবি করেন আসমা। এরপর স্বামী টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় ছেলের ওপর নির্যাতন শুরু করেন। ২০১৬ সালের ৪ আগস্ট আবারো তিন লাখ ৭৫ হাজার টাকা দেন হুমায়ুন কবীর। ওইদিনই তিনশ’ টাকার স্ট্যাম্পে লিখিতভাবে আসমা অঙ্গীকারনামা দেন যে আর কোনোদিন স্বামীর কাছে টাকা দাবি করবেন না। কিন্তু একই বছরের ৪ অক্টোবর রাত ৮টার দিকে পিতা আবু সিদ্দিকীসহ আট-১০ জন লোক নিয়ে ভাড়া বাসা থেকে হুমায়ুন কবীরকে বের করে তালা ঝুলিয়ে দেন। ৫ অক্টোবর এই ব্যাপারে হুমায়ুন কবীর কোতোয়ালি মডেল থানায় অভিযোগ করেন। পুলিশের হস্তক্ষেপে বাসার দরজায় লাগানো তালার চাবি ফেরৎ দেন আসমা। কিন্তু দাবিকৃত টাকা না দিলে স্বামী হুমায়ুন কবীরকে হত্যার হুমকি দেন। স্বামী হুমায়ুন কবীরের কাছ থেকে আরও টাকা হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টা অব্যাহত রাখার উদ্দেশ্যে আসমা যৌতুক নিরোধ আইনে একটি মামলা করেন। এরপর গত ২৭ নভেম্বর বিকেল চারটার দিকে জেলা শিক্ষা অফিসের রেস্টহাউজে আসমাকে ডেকে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে আদালতে মামলা করেছেন।
 
    








সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft