শনিবার ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ২২ মাঘ ১৪২৯
                
                
☗ হোম ➤ জাতীয়
ফখরুলের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছেন জাহিদ
ঢাকা অফিস :
প্রকাশ: শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২২, ২:৩৯ পিএম |
ডা. জাহিদ, বিএনপির এখন আলোচিত এবং জনপ্রিয় নেতা। তিনি বিএনপির চিকিৎসক সংগঠন ড্যাবের নেতা হিসেবে অধিক পরিচিত ছিলেন। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে তিনি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে এসেছেন। অনেকেই তাকে এখন বিকল্প মহাসচিব হিসেবে বিবেচনা করছেন। বিএনপির সমস্ত সমাবেশগুলোর সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। কাগজে-কলমে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে দৃশ্যমান এবং প্রধান অতিথি দেখা হলেও মূল চাবিকাঠি ডা. জাহিদের হাতেই। ডা. জাহিদ এখন বিএনপির বিভিন্ন মহাসমাবেশ করার ক্ষেত্রে মূল ব্যক্তি হিসেবেই বিবেচিত হচ্ছেন। তার মাধ্যমে সমস্ত টাকা-পয়সা খরচ হচ্ছে। কোথায় কোন জনসভায় কত টাকা লাগবে, সেটি জাহিদ ঠিক করছেন। সরাসরি লন্ডনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের সাথে তিনি কথা বলেছেন এবং সেভাবেই তিনি যোগাযোগ করছেন। তৃণমূলেও তার গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। বিএনপির অধিকাংশ কর্মী মনে করেন, তিনি ত্যাগী-পরীক্ষিত, দলের প্রতি অনুগত, তার কোনো বিচ্যুতি নাই এবং তিনি সিদ্ধান্ত গ্রহণে বিভ্রান্ত হননা। আর এ কারণেই মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ঘাড়ে এখন নিঃশ্বাস ফেলছেন ডা. জাহিদ।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকেই দৃশ্যমান দেখা যাচ্ছে। বিভিন্ন বিভাগীয় মহাসমাবেশ গুলোতে সেখানে তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা রাখছেন। কিন্তু এই বক্তৃতা রাখা টুকুই তার সম্বল, এটি তার একমাত্র কাজ। এই সমাবেশগুলো কিভাবে হচ্ছে, সমাবেশগুলোর আয়োজন ইত্যাদি সবকিছু দেখভাল করছেন ডা. জাহিদ। আর সে কারণেই ডা. জাহিদের জনপ্রিয়তা বেড়েছে দলের নেতাকর্মীদের ভিতর, এমনকি দলের কেন্দ্রীয় নেতারা এবং লন্ডনে বিএনপির আসল নেতাও এখন জাহিদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। উল্লেখ্য যে, বিএনপি এবার তাদের মতে এই সমাবেশগুলোকে সফল করতে পেরেছে। আর এই সমাবেশ সফল করার ক্ষেত্রে মূল মাস্টারপ্ল্যান ডা. জাহিদের। ড্যাবের এই নেতা দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত থাকলেও একজন চিকিৎসকদের নেতা হিসেবে পরিচিত ছিলেন। চিকিৎসকদের নেতা হিসেবে তিনি ব্যাপক পরিচিত এবং জনপ্রিয় ছিলেন। চিকিৎসক সমাজের মধ্যে তার একটা অবস্থান রয়েছে। এখন এখন ডা. জাহিদকে বিএনপির সমাবেশগুলো সফল করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এবং সেটি করার ক্ষেত্রে তিনি ভালো সফলতা দেখিয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। এ কারণেই বিএনপিতে এখন ডা. জাহিদকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিকল্প ভাবা হচ্ছে।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে নিয়ে বিএনপি কর্মীদের ক্ষোভ এবং সমালোচনার সীমা নেই। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কেন এখনও বিএনপির মহাসচিব আছেন, এই নিয়ে বিএনপি কর্মীদের মধ্যে অনেক প্রশ্ন। তারা মনে করেন, ২০১৮ সালের নির্বাচনে নেতৃত্ব দেওয়ার ব্যর্থতার কারণেই তার দল থেকে সরে যাওয়া উচিত। তাছাড়া তার সঙ্গে সরকারের গোপন সম্পর্ক এবং তিনি দলের কর্মীদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করেন না, প্রায় উত্তেজিত হয়ে ওঠেন ইত্যাদি নানা অভিযোগ প্রায়ই শোনা যায়। বিএনপির স্থায়ী কমিটির দুই একজন সদস্য ছাড়া সবার সঙ্গেই তার দূরত্ব রয়েছে। আর এ কারণেই মির্জা ফখরুল একাকী এবং তাকে বিএনপির নেতাকর্মীরা খুব একটা পছন্দ করে না। তারপরও তারেক জিয়ার আশীর্বাদে তিনি বিএনপির মহাসচিব রয়েছেন। তবে বিএনপির অনেক নেতা মনে করেন যে, বিএনপিতে কোনো বিকল্প মহাসচিব নেই। এ কারণেই তাকে এখন পর্যন্ত মহাসচিবের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আর যখনই বিকল্প পাওয়া যাবে তখনই সরিয়ে দেওয়া হবে। তবে এখন বিএনপির স্থায়ী কমিটি এবং কেন্দ্রীয় অনেক নেতা মনে করছেন, বিকল্প পাওয়া যাবে। ডা. জাহিদের প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে বিএনপি নেতারা বলছেন, তিনি কথা বলেন কম কিন্তু কাজ করেন বেশি এবং যে দায়িত্ব দেওয়া হয় সেই দায়িত্ব নিখুঁতভাবে ঠিকঠাকভাবে করে ফেলেন। সাম্প্রতিক এই মহাসমাবেশগুলো লাইমলাইটে এনেছে ডা. জাহিদকে। আর তিনি এখন মির্জা ফখরুলের বিকল্প হতে পারেন। মির্জা ফখরুলের বিকল্প হবেন কি হবেন না সেটা পরের কথা কিন্তু মির্জা ফখরুল ঘাড়ে যে তিনি নিঃশ্বাস ফেলছেন সেটা বলাই বাহুল্য।


গ্রামের কাগজ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন


সর্বশেষ সংবাদ
যশোরে আ’লীগের ছয় বহিষ্কৃত পেয়েছেন ক্ষমা পাওয়ার চিঠি
বিদায়ী এডির পদায়ন বাণিজ্য
যমেক হোস্টেল যেন টর্চার সেল
প্রথম মিশন ট্রেন দুর্ঘটনার স্থান
বেড়েছে ডিম ও মুরগির দাম, কমেছে জিরায়
যে কারণে প্যারিস অলিম্পিক বয়কট করতে পারে ৪০ দেশ
কাঠবোঝাই নসিমন উল্টে চালক নিহত
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সারাদেশের নজর এখন যশোরে
কেন্দ্রে অভিযোগ জানাবেন স্থানীয় এমপি ও সভাপতি
মণিরামপুরে নতুন কমিটিতে আসলেন যারা
যশোরে আ’লীগের ছয় বহিষ্কৃত পেয়েছেন ক্ষমা পাওয়ার চিঠি
লামা ফাইতং এ ভ্রাতৃঘাতী হামলায় চোখ হারালেন বিয়াই
নাজিরপুরে ইঁদুর মারার বৈদ্যুতিক ফাঁদে কৃষকের মৃত্যু
আ’লীগ ক্ষমতায় আছে বলেই দেশে এত উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে : প্রতিমন্ত্রী স্বপন
আমাদের পথচলা | কাগজ পরিবার | প্রতিনিধিদের তথ্য | অন-লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য | স্মৃতির এ্যালবাম
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন | সহযোগী সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০২৪৭৭৭৬২১৮২, ০২৪৭৭৭৬২১৮০, ০২৪৭৭৭৬২১৮১, ০২৪৭৭৭৬২১৮৩ বিজ্ঞাপন : ০২৪৭৭৭৬২১৮৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
কপিরাইট © গ্রামের কাগজ সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft