মঙ্গলবার ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ২৫ মাঘ ১৪২৯
                
                
☗ হোম ➤ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
সরকারি অফিস আঙ্গিনায় ধান চাষ
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২৩, ৩:৫৬ পিএম |
সাতক্ষীরা খামার ব্যবস্থাপক কার্যালয় আঙ্গিনার জায়গায় লিজ দিয়ে ধান চাষ করার অভিযোগ উঠেছে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। বোরবার (২২ জানুয়ারি) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের আওতায় থাকা সাতক্ষীরা সিটি কলেজ সংলগ্ন সরকারি মুরগি প্রজনন ও উন্নয়ন খামার ব্যবস্থাপকের কার্যালয়ের ভেতরে পাওয়ার টিলার দিয়ে চাষ করে ধান রোপনের প্রস্তুতি চলছে।
স্থানীয় বাসিন্দা ও সাতক্ষীরা সিটি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল হোসেন জানান, বিগত কয়েক বছর ধরে রসুলপুর এলাকার আব্দুল মাজেদের ছেলে আরিজুল ইসলামের কাছে খামার ব্যবস্থাপকের কার্যালয়ের আঙ্গিনায় থাকা খালি জায়গা লিজ দিয়েছেন। লিজ বাবদ আরিজুল প্রতি বছর এক লাখ টাকা দিতে হয় খামার ব্যবস্থাপককে।
স্থানীয় রাবেয়া বলেন, গত কয়েক বছর ধরে আরিজুল অফিসের জায়গা লিজ নিয়ে সেখানে চাষাবাদ করছে। তবে কত টাকা দিয়ে লিজ নিয়েছে সেটি আমার জানা নেই।
লিজ নেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে বর্গাদার আরিজুল ইসলাম জানান, খামারবাড়িতে ধানসহ অন্যান্য শাকসবজি চাষাবাদ করছি সেখানকার কর্মচারী হিসেবে। বিনিময়ে প্রতিদিন পারিশ্রমিক নিয়ে থাকি।
এদিকে খামার ব্যবস্থাপকের কার্যালয়ের বড়বাবু নামে খ্যাত এস এম সৈয়াদার রহমান সাংবাদিকদের কাছে বলেন, জায়গাটি বর্গা দেওয়া হয়েছে। চাষকৃত ধানের চার ভাগের একভাগ কর্মকর্তা নেবেন। তবে উৎপাদিত ধান ও অন্যান্য ফসল ভাগাভাগি কীভাবে হয় সেটার সঠিক কোন তথ্য সাংবাদিকদের দেননি বড়বাবু খ্যাত এস এম সৈয়েদার রহমান।
এ সব বিষয়ে অভিযুক্ত সাতক্ষীরা সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসার ও সরকারি মুরগি প্রজনন ও উন্নয়ন খামার ব্যবস্থাপক (ভারপ্রাপ্ত) নাজমুস্ সাকিব বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ কোনো ফাঁকা জায়গা রাখা যাবে না। সব জায়গায় চাষাবাদ করতে হবে। সেই নির্দেশনা মেনেই অফিস স্টাফদের সকলের সহযোগিতায় চাষাবাদ করছি।
সরকারি জায়গা লিজ দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে বিষয়টি অস্বীকার করে তিনি বলেন, সরকারি জায়গা লিজ দেওয়ার একতিয়ার আমার নাই।
সরকারি জায়গায় চাষাবাদ করা ধানসহ অন্যান্য ফসল কিভাবে ভাগাভাগি করা হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি তবে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
সাতক্ষীরা জেলা প্রাণিসম্পদ অফিসার ডা. এ বি এম আব্দুর রউফ জানান, ওটা সরকারি জায়গা। সেখানে মুরগী প্রজনন করা হয়। এই জায়গা ভাড়া দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। এ বিষয়ে খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 


গ্রামের কাগজ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন


সর্বশেষ সংবাদ
অপেক্ষায় যশোর বোর্ডের ১ লাখ পরীক্ষার্থী
মনোমুগ্ধকর আয়োজনে যশোরে পুলিশ সমাবেশ ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতা
যশোরে দু’দিনব্যাপী আইটি মেলার সমাপনী
সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের নির্বাচন ২০ মার্চ
বিসিক চেয়ারম্যানের যশোর পরিদর্শন, দিলেন নানা প্রতিশ্রুতি
আগের তুলনায় রাজস্ব অনেক বেড়েছে : কৃষিমন্ত্রী
ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে আরও ১১ জন হাসপাতালে ভর্তি
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
আলোচিত নীলা এবার খুলনা কারাগারে
তুরস্ক-সিরিয়ায় ভূমিকম্পে নিহত বেড়ে ৫৬০
যশোরে আইটি মেলা ও শীত উৎসবের উদ্বোধন
এলাকা ছাড়ছে সাতক্ষীরা উপকূলের মানুষ
চুড়ামনকাটিতে যুবককে ছুরিকাঘাত
ধ্বংসযজ্ঞের নিচে শুধু লাশের স্তুপ
এশিয়া কাপ পাকিস্তানে, ভারতের ম্যাচ আমিরাতে!
আমাদের পথচলা | কাগজ পরিবার | প্রতিনিধিদের তথ্য | অন-লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য | স্মৃতির এ্যালবাম
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন | সহযোগী সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০২৪৭৭৭৬২১৮২, ০২৪৭৭৭৬২১৮০, ০২৪৭৭৭৬২১৮১, ০২৪৭৭৭৬২১৮৩ বিজ্ঞাপন : ০২৪৭৭৭৬২১৮৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
কপিরাইট © গ্রামের কাগজ সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft