শিরোনাম: যশোরে ৪৫৫ ভূমিহীনের জন্য বাড়ি        যশোর আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী ফোরামের ভরাডুবি       জয় পেয়েছে চট্টগ্রাম-বরিশাল       সুমাজিক যুগাযোগ মাইদ্যম কি সুমাজিক থাকচে?       মণিরামপুরে ট্রাক থেকে লাফিয়ে পড়ে যুবকের আত্মহত্যা        ম্যারাডোনার জার্সি নিলামে ওঠার প্রস্তাব       বাড়ি থেকে বর্জ্য সংগ্রহ করবে যশোর পৌরসভা       যশোরে নতুন করে ১০ জনের করোনা শনাক্ত        কালীগঞ্জে শিশু দগ্ধ        চাঁচড়া যুব মহিলা লীগের কর্মী সম্মেলন      
আদালতের বন্ধ ঘোষণরা রায় উপেক্ষিত
জবরদোস্তি স্টাইলে ভাঙ্গুড়ায় পশুহাট পরিচালিত হচ্ছে
অভিজিৎ ব্যানার্জী
Published : Thursday, 22 October, 2020 at 7:27 PM
জবরদোস্তি স্টাইলে ভাঙ্গুড়ায় পশুহাট পরিচালিত হচ্ছেউচ্চ আদালতের নির্দেশনা উপেক্ষা করে যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার ভাঙ্গুড়া পশুহাট পরিচালনা অব্যাহত রয়েছে। পরিচালনাকারীরা কোনো নির্দেশনার তোয়াক্কা না করে জবরদোস্তি স্টাইলে হাটটি পরিচালনা করছেন। এমনকি তাদের হাট বন্ধের হাইকোর্টের রায়ের স্ট্রে ব্যাকেট মামলাটিও বিজ্ঞ আদালত খারিজ করেছে।
২০ অক্টোবর আসামি পক্ষের ওই আবেদন হাইকোর্টের বেঞ্চ খারিজ করে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, উচ্চ আদালতের নির্দেশ উপেক্ষা করে যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার ভাঙ্গুড়ায় ব্যক্তি মালিকানা জমিতে পশুহাট বসাচ্ছে জবরদোস্তি করে। কোনো নির্দেশ তোয়াক্কা করছে না ইজারাদার টিপু সুলতান গং। সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশন (সিভিল রিভিশনাল জুরিসডিকশন) গত ১৭ সেপ্টেম্বর সেখানে পশুহাট না বসাতে ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। ওই এলাকার বুলবুল আহমেদের আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত এই নির্দেশ দিয়েছেন। সিভিল রিভিশন নং-১২৪৫/২০২০।  আপিল নং ১৪/২০২০। এই রায় বাতিল চেয়ে আসামি পক্ষ পশু হাট পরিচালনার আবেদন করেন।
চলতি বছরের গোড়ার দিকে স্থানীয় টিপু সুলতান ও কামাল হোসেন মিলন ১৫ লাখ ৭৫ হাজার টাকায় পশুহাট নিলামে ডেকে ব্যক্তি মালিকানা জমিতে স্থানান্তরিত করেন। মৃত ফসিয়ারের ছেলে মিলন ছাড়াও পশু হাট পরিচালনার মাধ্যমে আদালতের নিষেধ না মানার দলে আরো রয়েছেন ইদ্রিস আলী মোল্লার ছেলে ইবাদ আলী, করিমপুরের ভাইপো ইকবাল প্রমূখ। এরা পশু হাট এক বছরের জন্য ডেকে নিয়েই সামাজিক প্রতিষ্ঠানের বরাদ্দ বন্ধ করে আয়কৃত টাকা পকেটে ভরতে শুরু করেছে। এতে ভাঙ্গুড়া পশু হাট সংলগ্ন সংখ্যালঘুরা রয়েছেন চরম আতঙ্কে। সর্বশেষ ১৯ অক্টোবর সারাদিন ইজারাদার ও তাদের দোসররা হাটের চারিপাশে জোটবদ্ধ হয়ে ছিল। হাটের পক্ষের লোকজনের চরম হটকারি সিদ্ধান্তে পশুহাট ভোর থেকে চালু করে।
সঙ্গত কারণে বাজারের ব্যবসায়ী ও হাটের চারিপাশের জনগণ চরম উৎকন্ঠার মধ্যে রয়েছেন। কিভাবে ইজারাদাররা সরকারি ও উচ্চ আদালতের সিদ্ধান্ত বার বার অমান্য করছেন তা কারো বোধগম্য হচ্ছে না। মহামান্য হাইকোর্ট পশু হাট পরিচালনায় ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা দিলেও প্রতি সোমবার যথারীতি পশু হাট বসছে। হাটে গরু-ছাগল বেচাকেনা হচ্ছে। খাজনা আদায় করা হচ্ছে। উচ্চ আদালতের নির্দেশ সকল দপ্তরে ও মামলার আসামিদের কাছে পৌঁছালেও হাট বন্ধ হচ্ছে না।
তথ্য মিলেছে, ভাঙ্গুরা বাজারে হাইওয়ে সংলগ্ন ১০৭৮ ও ১০৮২ নং দাগে মাত্র ৪৩ শতক জমি। এর হাইওয়ের দিকে দক্ষিণ পাশে ৫০টি পাকা স্থায়ী দোকান। পশ্চিম পাশে হোসেন আলী ও কৃষ্নপদের বসতবাড়ি। উত্তর পাশে সুবলের বসতবাড়ি। পূর্বে রতন, কালাচানের বাড়ি। এই বাড়ি দুটির সামনে দিয়ে বোয়ালে-বাশুড়ি সড়ক চলে গেছে। একপাশে কিছু দুরে আছে কলেজ ও স্কুল। রয়েছে একটি চাতাল ও স’মিল। প্রায় সাড়ে তিনমাস আগে করোনা উদ্ভূত পরিস্থিতিতে পশু হাটটি চুপিসারে স্থাপন করে টিপু সুলতান গং। মৃত ফসিয়ার বিশ্বাসের ছেলে মিলনের জমিতে এই হাটের অবস্থান। প্রতি সোমবার হাটবারের দিন এলাকায় জানযটের সৃষ্টি হচ্ছে। বাজারের ব্যবসা বাণিজ্য কার্যত চরম বিঘ্নিত হয়। সকলেই অবরুদ্ধ জীবন যাপনে বাধ্য হচ্ছে ওই দিনটিতে।
বাস্তবতা উপলদ্ধি করে জনতার পক্ষে একই গ্রামের ইব্রাহিম মোল্লার ছেলে বুলবুল বাঘারপাড়া সহকারী জজ আদালতে মামলা করেন। মামলা নাম্বার ৩৬/২০।
মামলার বাদী বুলবুল জানান, সিংহভাগ এলাকাবাসী নালিশকৃত জমিতে বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশ যথাযথ পালন করে সেখানে পশুহাট বন্ধ করার পক্ষে।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft