শিরোনাম: রামনগরের সাবেক চেয়ারম্যান রেজাউল সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত       শুক্রবার যশোরের বিভিন্ন এলাকায় দুপুর একটা পর্যন্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকবে       দুক্কির কতা কবো কারে !       যশোর সদর উপজেলা চেয়ারম্যানকে শিক্ষক সমিতির সংবর্ধনা       ফের রিমান্ডে পুলিশ কনস্টেবল দেব প্রসাদ       যশোরে হামলা মারপিট ও ছিনতাইয়ের অভিযোগে পৃথক মামলা       বিনামূল্যে করোনার ভ্যাকসিন প্রত্যেককে দিতে হবে : জিএম কাদের       যশোরে মহিলা পরিষদের সংবাদ সম্মেলন        যশোরে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সমাবেশ ও মানববন্ধন        মামার জোরে আশাশুনির বাগালী স্কুলের নৈশপ্রহরী বহাল তবিয়তে       
যে ওষুধে বন্ধ হবে নাক ডাকা
কাগজ ডেস্ক :
Published : Thursday, 29 October, 2020 at 6:07 PM
যে ওষুধে বন্ধ হবে নাক ডাকা নাক ডাকেন এমন করো সঙ্গে একই বিছানায় ঘুমাতে যাওয়া মানে রাতের ঘুমের একেবারে দফারফা সারা। তবে সঙ্গীর নাক ডাকার বিরক্তিকর দিনগুলো এবার অতীতের বিষয় হতে চলেছে। নাক ডাকা বন্ধে বিজ্ঞানীরা তৈরি করেছেন বিশেষ ওষুধ।
সাধারণত শ্বসনতন্ত্রের কম্পন ও ঘুমন্ত অবস্থায় শ্বাস-প্রশ্বাসের সময় বাধাগ্রস্ত বায়ু চলাচলের ফলে সৃষ্ট শব্দকেই আমরা নাক ডাকা বলে থাকি। মেডিক্যালের ভাষায় এ স্বাস্থ্য সমস্যাটিকে বলা হয় অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়া (ওএসএ)।
মিরর অনলাইনের এক খবরে বলা হয়েছে, নাক ডাকা বন্ধের ওষুধ উদ্ভাবন করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ নির্মাতা কোম্পানি অ্যাপনিমেড-এর গবেষকরা। ‘এডি ১০৯’ নামক এই ওষুধ অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়ার চিকিৎসা হিসেবে তৈরি করা হয়েছে। অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়ায় (ওএসএ) রোগীর গলবিলে শ্বাস বন্ধ হয়ে নাক ডাকার সূত্রপাত ও ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়।
অ্যাপনিডের প্রধান নির্বাহী ডা. ল্যারি মিলার বলেন, ‘অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং বিশ্বজুড়ে উল্লেখযোগ্য একটি জনস্বাস্থ্য সমস্যা। এই রোগের বর্তমান চিকিৎসাগুলো রোগীদের প্রয়োজনীয়তা পূরণ করে না। আমাদের বিশ্বাস, এডি১০৯ ওষুধটি রোগীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি অগ্রগতি হবে।’
বর্তমানে স্লিপ অ্যাপনিয়ার চিকিৎসা হিসেবে অস্বস্তিকর মাউথ গার্ড টাইপের ডিভাইস অথবা সিপিএপি মেশিন ব্যবহারের প্রয়োজন পড়ে। কিছু রোগীর ক্ষেত্রে অস্ত্রোপচারের প্রয়োজনও দেখা দেয়।  
ডা. মিলারের মতে, এডি১০৯ ওষুধটি রোগীদের জন্য সহজ, নিরাপদ এবং কার্যকরী একটি সমাধান। এর ফলে সিপিএপি ডিভাইস বা সার্জারির প্রয়োজন আর পড়বে না। ওষুধটি শ্বাসনালীকে সক্রিয় রেখে বায়ু চলাচলের পথ খোলা রাখে। মাঝারি থেকে গুরুতর রোগীদের চিকিৎসায় এই ওষুধ ব্যবহার করা যেতে পারে। রাতে ঘুমাতে যাবার আগে এটি  সেবনে নাক ডাকা বন্ধ হবে।
ইতিমধ্যে ওষুধটির প্রথম ধাপের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল সম্পন্ন হয়েছে। ট্রায়ালে ২৪ জন স্বেচ্ছাসেবক ৭ দিন এই ওষুধ সেবন করেছিলেন। ফলাফলে দেখা গেছে, ওষুধটি খুব সহনীয় এবং কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছিল না।
খুব শিগগির ওষুধটির দ্বিতীয় ধাপের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু করার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছে অ্যাপনিমেড। দ্বিতীয় ধাপে ১৪০ জনের ওপর ওষুধটি পরীক্ষা করা হবে। 




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft