দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: ইউপি নির্বাচন নিয়ে তোড়জোড়        অখ্যাত অনলাইনের কার্ড কিনে ভুয়া সাংবাদিকদের যথেচ্ছা       চার কর্মকর্তাসহ আটজনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট       কেশবপুর, কালীগঞ্জ ও মহেশপুরসহ ৩০ পৌরসভায় ভোট রোববার       মোরেলগঞ্জে হাত-পা বেঁধে যুবককে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল        মণিরামপুরে গুলিভর্তি পিস্তলসহ যুবক আটক       শেখ হাসিনার উন্নয়নের জাদু দেশপ্রেম: শাহীন চাকলাদার এমপি       সাত বছরেও মেলেনি চৌগাছায় নিখোঁজ ৭ জনের খবর       যশোরে স্কপের সভায় শ্রমজীবীদের আন্দোলনে সম্পৃক্ত হওয়ার আহ্বান       উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় নৌকা মার্কায় ভোট দিন : জাহাঙ্গীর কবির নানক      
যশোর পৌরসভা
ভোট হবে আগের সীমানায়
এম. আইউব :
Published : Wednesday, 20 January, 2021 at 10:10 PM, Count : 522

ভোট হবে আগের সীমানায়আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি যশোর পৌরসভায় আগের সীমানায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এবারের নির্বাচনে খসড়া ভোটার তালিকা বুধবার প্রকাশ করা হয়েছে। এই তালিকা অনুযায়ী, ভোটার বেড়েছে ১৫ হাজার পাঁচশ’ ৭৭ জন। নির্বাচন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, যশোর পৌরসভার কোনো সীমানা বাড়ানো হয়নি। সীমানা বেড়েছে শহরের। সেই কারণে পূর্বের সীমানা-ই পৌরসভার সীমানা। আসন্ন নির্বাচনে কেশবপুর পৌরসভায় খসড়া তালিকায় ভোটার বেড়েছে দু’হাজার ছয়শ’৭৩ জন।
এবারই প্রথমবারের মতো যশোর এবং কেশবপুর পৌরসভায় ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন-ইভিএমে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এই নির্বাচনে খসড়া ভোটার তালিকা অনুযায়ী, যশোর পৌরসভায় ভোটার হয়েছে এক লাখ ৪৬ হাজার পাঁচশ’ ৯৮ জন। এরমধ্যে পুরুষ ৭২ হাজার ৫৫ এবং মহিলা ভোটার রয়েছে ৭৪ হাজার পাঁচশ’ ৪৩ জন। সর্বশেষ, ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে ভোটার ছিল এক লাখ ৩১ হাজার ২১ জন। এরমধ্যে পুরুষ ৬৫ হাজার নয়জন এবং ৬৬ হাজার ১২ জন মহিলা ভোটার ছিল।
একইভাবে কেশবপুর পৌরসভায় সর্বশেষ নির্বাচনে ভোটার ছিল ১৮ হাজার ৫২। এরমধ্যে পুরুষ ছিল আট হাজার নয়শ’ ২৯ জন। নয় হাজার একশ’ ২৩ জন ছিল মহিলা ভোটার। বর্তমানে কেশবপুর পৌরসভায় ভোটার সংখ্যা ২০ হাজার সাতশ’ ২৫। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছে ১০ হাজার একশ’ ৮৫ জন। ১০ হাজার পাঁচশ’ ৪০ জন রয়েছে মহিলা ভোটার।
ভোটার তালিকার সাথে সংশ্লিষ্ট যশোর জেলা নির্বাচন অফিসের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, প্রতীক বরাদ্দের পর গেজেট প্রকাশিত হবে। তখন যাচাই বাছাই করা হবে খসড়া ভোটার তালিকা। যাচাই বাছাইয়ে সামান্য সংখ্যক ভোটার কমবেশি হতে পারে বলে জানান তিনি। ইভিএমে ভোট গ্রহণ করার সিদ্ধান্ত হওয়ায় নির্দিষ্ট তারিখের অনেক আগেই এই মেশিন ভোট কেন্দ্রে আসবে। সেখানে মগ ভোটিং (ভোটারদের প্রাকটিস করানো) হবে। ইভিএমে কীভাবে ভোটাররা ভোট দিবেন তা হাতেকলমে শেখানো হবে।
এদিকে, যশোর পৌরসভার ভোটারদের বিভ্রান্তি দূর করতে সীমানা নিয়ে গ্রামের কাগজকে বিস্তারিত জানিয়েছেন জেলার সিনিয়র নির্বাচন অফিসার হুমায়ুন কবির। তিনি বলেন, যশোর পৌরসভার সীমানা বাড়েনি কখনো। সীমানা বেড়েছে শহরের। শহর আর পৌরসভা এক না। এ কারণে ভোটগ্রহণ করা হবে আগের সীমানায়।
হুমায়ুন কবির বলেন, চাইলেই পৌরসভার সীমানা বৃদ্ধি করা যায় না। এটি একটি জটিল এবং দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়া। পৌরসভার সীমানা বৃদ্ধি করতে কমপক্ষে আড়াই বছর নিবিড়ভাবে কাজ করতে হবে। সীমানা বৃদ্ধি করতে হলে প্রতিটি বাড়িতে যেতে হবে। বিন্যাস করতে হবে ওয়ার্ডগুলোর। এটি করতে একাধিক ধাপে কাজ সম্পন্ন করতে হয়। নিয়োগ করতে হবে সীমানা নির্ধারণকারী কর্মকর্তা। যার কোনো কিছু যশোর পৌরসভায় এখনো শুরুই হয়নি বলে জানিয়েছেন জেলা নির্বাচন অফিসার।






« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft