সম্পাদকীয়
শিরোনাম: মণিরামপুরে গাঁজাসহ যুবক আটক       যুক্তরাষ্ট্রে অনিবন্ধিত বাংলাদেশিদের বৈধ করার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর       ‘বিএনপির ৭ মার্চ পালন দেশের রাজনীতিতে ইতিবাচক’       ২৬ মার্চ থেকে চলবে ঢাকা-জলপাইগুড়ি ট্রেন       জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আলটিমেটাম       মুজিবনগর-কলকাতা ‘স্বাধীনতা সড়ক’ খুলছে মার্চের শুরুতে       টিকা নিয়েও আক্রান্ত, স্বাস্থ্য অধিদফতরের ব্যাখ্যা       চুয়াডাঙ্গায় দেয়াল চাপায় শিশুর মৃত্যু       মাদারীপুরে জমজমাট নির্বাচনী প্রচারণা       অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে বাংলাদেশের নারীরা পিছিয়ে      
গণমৃত্যুর ফাঁদ থেকে কবে মুক্তি?
Published : Friday, 22 January, 2021 at 8:46 PM, Count : 123
গণমৃত্যুর ফাঁদ থেকে কবে মুক্তি?বাংলাদেশে প্রতি বছর ১৫ হাজার ছোট-বড় সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। আবার সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ বা বিআরটিএ’র হিসাব মতে, প্রতিদিন সারা দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান প্রায় ৩০ জন। সে হিসাবেও বছরে নিহতের সংখ্যা দাঁড়ায় ১০ হাজার ৮শ’ জন। আবার বিশ্বব্যাংকের হিসাবে বছরে ১২ হাজার, বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার রেকর্ড অনুযায়ী ২০ হাজার মানুষ সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যায়। অন্যদিকে বুয়েটের অ্যাকসিডেন্ট রিসার্স ইনস্টিটিউট (এআরআই) এবং নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের পরিসংখ্যান অনুযায়ী সড়ক দুর্ঘটনায় প্রতি বছর ১২ হাজার মানুষ নিহত হন। বাংলাদেশের সড়কে করুণ কঠিন ট্র্যাজেডির জন্ম হচ্ছে প্রতিদিন। প্রাকৃতিক দুর্যোগও মোকাবিলা করা যায়, কিন্তু সড়ক দুর্ঘটনা নামক গণমৃত্যুর এই ফাঁদ কি কিছুতেই দূর করা যায় না?
সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ডিজিটাল পদ্ধতিতে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করে সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ কঠোর ভাবে প্রয়োগ করতে হবে। জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশ থেকে হাট-বাজার অপসারণ করা এবং ফুটপাত বেদখল মুক্ত করতে হবে। পাশাপাশি ট্রাফিক পুলিশের কর্মকর্তা ও সদস্যদের যুগোপযোগী প্রশিক্ষণের জন্য আধুনিক ও মানসম্মত ট্রেনিং একাডেমি গড়ে তুলতে হবে। গত বছরে বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় চার হাজার ৯৯৬ মানুষের মৃত্যু এবং পাঁচ হাজার ৮৫ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)। বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক পত্রিকা, সংগঠনগুলোর প্রতিবেদন, টেলিভিশন ও অনলাইন পত্রিকার প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে এ প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। নিসচার হিসেবে, গত এক বছরে চার হাজার ৯২টি সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে রেলপথ ও নৌপথে দুর্ঘটনায় মোট ৩৪১ জন মারা গেছেন। এর মধ্যে রেলপথে ১২৯ জন নিহত ও ৩১ জন আহত এবং নৌপথে ২১২ জন নিহত ও ১০০ জন আহত হন। অন্যদিকে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির বার্ষিক সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিদায়ী বছরে দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ৬ হাজার ৬৮৬ জন। আহত হয়েছেন ৮ হাজার ৬০০ জন। সড়ক দুর্ঘটনার বড় কারণ বেপরোয়া গতি। বেশির ভাগ দুর্ঘটনাই গাড়ি চাপা দেওয়ার ঘটনা। এ ছাড়া রেলপথে দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ৩১৮ জন ও নৌ দুর্ঘটনায় ৩১৩ জন, অর্থাৎ সড়ক, রেল ও নৌপথে দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ৭ হাজার ৩১৭ জন। সংগঠনটি বলছে, ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২০ সালে মোটরসাইকেলে সড়ক দুর্ঘটনা ৩ দশমিক ৭৬ শতাংশ বেড়েছে।
আমরা আশা করি, সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ডিজিটাল পদ্ধতিতে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করে সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ কঠোরভাবে প্রয়োগ করতে হবে। জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশ থেকে হাট-বাজার অপসারণ করা এবং ফুটপাত বেদখল মুক্ত করতে হবে।







« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft