দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শিরোনাম: শৈলকুপা আ’লীগের নির্বাচনী জনসভা জনসমুদ্রে পরিণত       বিশেষ ট্রাউজার পরে খেলবে টাইগাররা       পিসিবি’র প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলেন হাফিজ       কলাপাড়ায় সাবেক এমপি পুত্রের বিরুদ্ধে জমি দখল করে মাছের ঘের করার অভিযোগ       কেএমডি যুব পাঠাগারের উদ্যোগে জাতীয় গ্রন্থাগার দিবস উদযাপন       রাণীনগর উপজেলা আ.লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত       ফুলবাড়ীতে পণ্যে পাটজাত মোড়ক ব্যবহার শীর্ষক উদ্বুদ্ধকরণ সভা অনুষ্ঠিত       নওগাঁর রাণীনগর উপজেলা আ.লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত       পল্লীশ্রীর নারীর ক্ষমতায়নের জন্য সুযোগ সৃষ্টি প্রকল্প উদ্যোগে বার্ষিক“ওরিয়েন্টশন” অনুষ্ঠিত        কলাপাড়ায় নৌকা প্রতিকের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর       
বাঘের আক্রমণে নিহত দু’জনের মরহেদ উদ্ধার হয়নি, অপরজন ভারতে
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
Published : Saturday, 23 January, 2021 at 3:37 PM, Count : 757
বাঘের আক্রমণে নিহত দু’জনের মরহেদ উদ্ধার হয়নি, অপরজন ভারতেসুন্দরবনে বাঘের আক্রমণের ঘটনার দু’দিন পার হলেও দু’ মৎস্যজীবীর মরদেহ উদ্ধার হয়নি। তবে জীবিত থাকা অপর মৎস্যজীবীর সন্ধান মিলেছে। তাকেও উদ্ধারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে বিজিবি।
অন্যদিকে, বিএসএফ নিহত দু’ মৎস্যজীবীর মরদেহ উদ্ধারে তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে বলে বিজিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। নিহতরা হলেন সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার কৈখালী ইউনিয়নের পশ্চিম কৈখালী গ্রামের কফিলউদ্দিনের ছেলে রতন (৪২) ও একই গ্রামের মনোমিস্ত্রীর ছেলে মিজানুর রহমান (৪০)। জীবিত থাকা অপর মৎস্যজীবী একই গ্রামের সাত্তারের ছেলে আবু মুসা (৪১)।
শ্যামনগর উপজেলার নীলডুমুর ১৭ বিজিবির সিও ইয়াছিন চৌধুরী জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পশ্চিম সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্জের বিপরীতে ভারতীয় অংশে পাইজুরি খালে (ম্যাপে নেই) ঘটনাটি ঘটেছে। শনিবার (২৩ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত বাঘের আক্রমণে নিহত দু’ মৎস্যজীবীর কোনো সন্ধান মেলেনি। তবে জীবিত থাকা অপর মৎস্যজীবী মোবাইল ফোনের মাধ্যমে স্বজনদের সঙ্গে মাঝেমধ্যে যোগাযোগ করছেন।
ইয়াছিন চৌধুরী বলেন, ‘ঘটনাটি এমন দুর্গম এলাকায় ঘটেছে সেখানে কাউকে খুঁজে বের করাও দূরূহ ব্যাপার। বিএসএফের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করেছি, চাপ দিচ্ছি, অনুরোধ করছি তারাও মানবিক হয়ে বিষয়টি দেখছেন। জীবিত থাকা মৎস্যজীবীকেও ফিরিয়ে আনার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। মরদেহ দু’টির এখনো হদিস মেলেনি’।
বৃস্পতিবার রাত ৮টার দিকে মৎস্যজীবী আবু মুসা তার স্ত্রীকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জানান, ‘রতন ও মিজানুরকে বাঘে ধরে মেরে ফেলেছে। আমি বেঁচে আছি’। শ্যামনগরের কৈখালী সীমান্তের বিপরীতে ভারতের কালিতলা এলাকায় প্রহ্লাদ নামের এক ভারতীয়র কাছে এই মৎস্যজীবী অবস্থান করছেন বলে মোবাইল ফোনে স্বজনদের জানিয়েছেন।
কৈখালী এলাকার জিএম আবুল কালাম শুভ জানান, ‘আবু মূসার সঙ্গে ফোনে আমার কথা হয়েছে। সে কৈখালীর বিপরীতে ভারতীয় এলাকায় প্রহ্লাদ নামের এক ভারতীয় ব্যক্তির কাছে রয়েছেন। তিনজন একটি নৌকায় ছিলেন। নৌকা থেকে দু’জন নামার পরই তাদের বাঘে আক্রমণ করে। নিরুপায় হয়ে তড়িঘড়ি সে নৌকা নিয়ে ওখান থেকে চলে আসে বলে জানিয়েছে’।
কৈখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম জানান, এখন মরদেহটি দু’টি উদ্ধার করা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। নিহত দু’ পরিবারে চলছে আহাজারি। জীবিত থাকা মৎস্যজীবী আবু মুসাকেও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। সে এখনো ভারতে রয়েছে’।
কৈখালী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জিএম রেজাউল করিম জানান, ‘বাঘের আক্রমণে নিহত দু’ মৎস্যজীবীর মরদেহ দু’টি উদ্ধারের সম্ভাবনা ক্ষীণ হয়েছে আসছে। আমরা সকলেই মরদেহ দু’টি উদ্ধার ও জীবিত আবু মুসাকে ফিরেয়ে আনার দাবি করছি’।
এসব ঘটনার মধ্যেই বিভিন্ন মাধ্যমে সংবাদ ছড়িয়েছে ভারতে চোরাচালান করতে গিয়ে বিএসএফের গুলিতে নিহত হয়েছেন দু’ মৎস্যজীবী। মরদেহ দু’টি বিএসএফ উদ্ধার করেছে ও অপরজনকে আটক রাখা হয়েছে।
তবে এমন ঘটনা সত্য নয় জানিয়ে সীমান্তের নীলডুমুর ১৭ বিজিবির সিও ইয়াছিন চৌধুরী জানান, বিএসএফের গুলিতে নিহত হলে বা তারা লাশ উদ্ধার করে রাখলে সেটি অবশ্যই তারা জানাতো। এটি গোপন করার মত কিছু নয়। তাছাড়া অপর মৎস্যজীবীও বিএসএফের হাতে আটক নেই।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft